ফরিদুল আলম দেওয়ান, মহেশখালী: 

ককস বাজারের মহেশখালী দ্বীপের শীর্ষ  ইয়াবা ব্যবসায়ি বদিউল আলম প্রকাশ বদি ড্রাইভারকে পুলিশ গতকাল ২২ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় ২টি দেশীয় তৈরী বন্দুক,৬ রাউন্ড তাজা কার্তুজ,১শ লিটার বাংলা মদ ও বিপুল পরিমান ইয়াবা সেবনের সরঞ্জামসহ গ্রেপ্তার করেছে। সে উপজেলার হোয়ানক ইউনিয়নের পূর্ব বড়ছড়া পাহাড়তলী গ্রামের মৃত উলা মিয়ার পুত্র।
মহেশখালী থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ পিপিএম বার জানান, গ্রেপ্তারকৃত আলোচিত মাদক ব্যবসায়ী বদিউল আলম প্রকাশ বদি ড্রাইভার দীর্ঘ দিন থেকে ইয়াবা ও মাদক ব্যবসা করে আসছিল। তার ইয়াবার বিশাল নেটওয়ার্ক রয়েছে মর্মে পুলিশের কাছে খবর ছিল দীর্ঘ দিন থেকে। ইতিপূর্বে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করতে একাধিক বার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। গ্রেপ্তার এড়াতে সে কিছুদিন এলাকা থেকে পালিয়ে অাত্নগোপনে চলে গিয়েছিল।
সম্প্রতি সে পুনরায় এলাকায় ফিরে এসে আবারো ইয়াবা বিক্রি করছে মর্মে খবর পেয়ে গতকাল ২২ সেপ্টেম্বর রাত সন্ধ্যা ৭টায় থানার অফিসার ইনচার্জ প্রদীপ কুমার দাশ নিজেই কালারমার ছড়া পুলিশ ক্যাম্পের অাইসি এস আই রাজু আহমেদ গাজী ও থানার এ এস আই সজীব দত্ত সহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে হোয়ানক ইউনিয়নের বড়ছড়া মিলন মার্কেটে তার ফার্নিচার তৈরীর আদলে গড়ে তোলা ইয়াকা,মদ ও অত্র বিক্রয়ের আস্তানা থেকে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। ওসি জানান, গ্রপ্তারের পরপরই তার স্বীকারোক্তি মতে ফার্নিচারের দোকানে কাঠের নীচে লুকিয়ে রাখা ১টিতে গুলি ভর্তিসহ ২টি দেশীয় তৈরী বন্দুক,৬ রাউন্ড তাজা কার্তুজ,অনুমান ১০০ লিটার দেশীয় তৈরী চোলাই মদ ও তার অস্তানায় তল্লাশী করে প্রচুর পরিমাণ ইয়াবা সেবনের সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। পুলিশ আরো জানান, এ দুধর্ষ ইয়াবা ব্যবসায়ির পাহাড়ী এলাকায় ইয়াবা জমা রেখে খুব সতর্কতার সহিত ব্যবসা করে আসছে। তার ইয়াবার স্টক ধরতে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ ও অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •