গণহত্যার দায়ে আন্তর্জাতিক গণআদালতে সু চি ও সেনাপ্রধান দোষী সাব্যস্ত

সিবিএন ডেস্ক:
গণহত্যা ও মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে অং সান সু চি এবং দেশটির সেনাপ্রধানকে দোষী সাব্যস্ত করেছে মালয়েশিয়াভিত্তিক আন্তর্জাতিক গণ-আদালত। ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ শুক্রবার এ সিদ্ধান্তে উপনীত হয় পার্মানেন্ট পিপলস ট্রাইব্যুনাল (পিপিটি) নামের এই আন্তর্জাতিক গণআদালত। রোহিঙ্গা ও কাচিনদের ওপর চালানো গণহত্যা ও নিষ্ঠুর নিপীড়নের তদন্তে যুক্ত বিশিষ্টজন এবং খ্যাতনামা আইনজীবীদের সমন্বয়ে গঠিত সদস্যের বিচারক প্যানেল এ রায় দেন। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে মালয়েশিয়াভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দ্য স্টার।

১৮ সেপ্টেম্বর কুয়ালালামপুরে এই বিচারিক প্রক্রিয়া শুরু হয়। আর ২২ সেপ্টেম্বরের রায়ের মধ্য দিয়ে প্রথমবারের মতো কোনও নোবেল বিজয়ী আন্তর্জাতিক গণআদালতে দোষী সাব্যস্ত হলেন। ইতোপূর্বে কোনও নোবেলজয়ীকে এমন বিচারের মুখোমুখি হতে হয়নি।

আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বিশেষজ্ঞদের একটি প্যানেল বার্মিজ নেতাদের গণহত্যা বিষয়ক শুনানিতে অংশ নেয়। এতে রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের লোকজন মিয়ানমারে তাদের বিরুদ্ধে পরিচালিত জাতিগত নিধনযজ্ঞের বর্ণনা দেন। নিজেদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রযন্ত্রের অপরাধের বিবরণ তুলে ধরেন সংখ্যালঘু কাচিন সম্প্রদায়ের সদস্যরা। যুক্তরাষ্ট্রের জর্জ মাসন বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনোসাইড স্ট্যাডিজ অ্যান্ড প্রিভেনশনের গবেষক অধ্যাপক গ্রেগরি স্ট্যানটনও জবানবন্দি দেন।

গণহত্যা ও নির্যাতনের অন্তত ২০০টি সুস্পষ্ট প্রমাণের ভিত্তিতে মিয়ানমার সরকারকে দোষী সাব্যস্ত করে রায় ঘোষণা করা হয়। এছাড়া রায়ের আলোকে ১৭টি সুপারিশ করেন আদালত। এ রায় এবং সুপারিশগুলো জেনেভায় জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিলে পাঠানো হবে।

গণআদালতের শুনানিতে অধ্যাপক গ্রেগরি স্ট্যানটন বলেন, মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী, পুলিশ, বৌদ্ধ মিলিশিয়া এবং দেশটির বর্তমান বেসামরিক সরকার মানবতাবিরোধী অপরাধ ও গণহত্যা চালিয়েছে। সেখানে রোহিঙ্গারা রাষ্ট্রীয় বৈষম্যের শিকার। বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হকও শুনানিতে অংশ নেন।

প্রসিকিউশনের যুক্তিতর্ক, বিশেষজ্ঞ সাক্ষীদের মতামত, ভুক্তভোগীদের জবানবন্দি বিচার বিশ্লেষণ করে এ রায় দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন পিপিটি মালয়েশিয়া শাখার সাংগঠনিক সভাপতি চন্দ্র মোজাফফর।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

প্রকৃত নেতা মাত্রই পল্টিবাজ : ইমরান খান

ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে অধিনায়ক সাকিব, ফিরেছেন সৌম্য

বিজয় ফুল তৈরী প্রতিযোগিতায় চট্টগ্রাম বিভাগে প্রথম উখিয়ার নওশিন

চকরিয়ার রুবেল বাঁচতে চায়

দূর্নীতির দায়ে চট্টগ্রামের কারা ডিআইজি প্রিজন ও জেল সুপারের বদলী

মহেশখালী উন্নয়ন পরিষদের নির্বাচন সম্পন্ন

রোহিঙ্গা শিবিরে কলেরা টিকা ক্যাম্পেইন শুরু

শহর পরিচ্ছন্নতায় নামলেন কক্সবাজার পৌর মেয়র

‘বাবা লাগবে? সবুজ গোলাপি লাল সব আছে’

সংসদ নির্বাচনে কেন আসতে চাচ্ছে না বিদেশী পর্যবেক্ষকেরা?

জোট করা ছাড়া কি এবার জয় সম্ভব নয়?

বাংলাদেশের নির্বাচন : কেন কৌশল পাল্টাল ভারত?

কক্সবাজার সদর-রামু আসনে নৌকা পাচ্ছেন কে?

ভারতের রাজনীতিতে যেভাবে প্রভাব ফেলবে বাংলাদেশের নির্বাচন

চার পয়েন্টকে গুরুত্ব দিয়ে তৈরি হচ্ছে আ.লীগের ইশতেহার

মহেশখালীতে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার

দলের সিদ্ধান্ত কতটুকু মানবেন বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীরা?

মওলানা ভাসানীর ৪২তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

বিয়ের আগেই ৪৫০ কোটি টাকার বাংলো উপহার

ভারতের তামিলনাডুতে ‘গাজা’র আঘাতে প্রাণ গেল ৩০ জনের