cbn  

আবুল আলী, টেকনাফ:

কক্সবাজার থেকে টেকনাফ ফেরার পথে একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে ১৮ জন যাত্রী আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টার দিকে টেকনাফ সদর ইউনয়নের বরইতলি (উটনি) নামক এলাকায় এ দূঘর্টনাটি ঘটেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, বাসটি কক্সবাজার থেকে ছেড়ে টেকনাফ আসা পথে বাসটি (ঢাকা মেট্রো-ব ০২-০৫৫০) উটনি নামক এলাকায় চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশ্ববর্তী খাদে পড়ে যায়। এতে বাসে থাকা অধিকাংশ যাত্রীই আহত হয়েছেন। তারমধ্যে রোহিঙ্গা নাগরিকের সংখ্যা বেশি।

আহত ব্যক্তি হলো- টেকনাফ পৌরসভার কুলালপাড়া এলাকার আবুল হোসেনের স্ত্রী নয়না খাতুন(৫০), চকরিয়া এলাকার জহির আহাম্মদের ছেলে মো. রফিক (৫০), হ্নীলার আবুল হোসেন ছেলে নুরুল আলম (৫০), কুতুপালং এলাকার হাবিবুল্লাহ মেয়ে গোলতাজ বেগম (৩২), মোচনি ক্যম্প এলাকার শামশুর আলমের ছেলে মো. আলম(৩৫), মিয়ানমারের বুসিদং এলাকার কালু মিয়া ছেলে সমশুর আলী(৩৫), আবুল কালামের ছেলে নুরু কামাল (২৪), সমশুর আলমের ছেলে রিয়াজুর (২৫), আজিজুর রহমানের ছেলে জহুর আহাম্মদ(৬০), জাবেদের মেয়ে ফরিদা খাতুন(৩০), হাফেরে ছেলে আব্দুর রহমান(৭), নুরু মোহাম্মদের আজিদা আক্তর (২০), তার ছোট বোন পরমি (১৭), আবু তাহেরর মেয়ে জমিলা খাতুন(৭০), মো. জোবাইর (৩০)। আহত বাস যাত্রীদের অধিকাংশকে টেকনাফ সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক প্রণয় রুদ্র বলেন, তার মধ্যে মারাত্মক আহত চারজন রোহিঙ্গাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার পাঠানো হয়েছে। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •