সিবিএন:
আন্তর্জাতিক সমুদ্র সৈকত পরিচ্ছন্নতা দিবস (১৯ সেপ্টেম্বর) পালিত হয়েছে। সারা বিশ্বের ন্যায় মঙ্গলবার সকালে দিনটি উপলক্ষে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত থেকে প্রায় এক কিলোমিটার পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করা হয়। নিজের হাতেই ময়লা আবর্জনা তুলে নিয়ে কর্মসুচির উদ্বোধন করেন কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কর্ণেল (অব.) ফোরকান আহমদ।
তিনি বলেন, কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত আমাদের বড় সম্পদ। এটিকে নিজের মতো করে দেখতে হবে। পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। সৈকতকে এমনভাবে দেখতে হবে যাতে কোন পর্যটক কক্সবাজার সম্পর্কে নেতিবাচক ধারণা নিয়ে কক্সবাজার না ছাড়ে। এ সর্বপর্যায়ে সচেতনতা বাড়ানোর জন্য তিনি জোর দেন।
পরিবেশ অধিদপ্তর এর আয়োজনে সমুদ্র সৈকত পরিচ্ছন্নতা দিবসে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার (ট্যুরিষ্ট) জিল্লুর রহমান, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার হোসাইন মোঃ রায়হান কাজেমী, পরিবেশ অধিদপ্তর কক্সবাজার কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক সরদার শরিফুল ইসলাম, কক্সবাজার দক্ষিণ বন বিভাগের কর্মকর্তা আলী কবির, হোটেল মোটেল গেস্ট হাউজ মালিক সমিতির সহ-সভাপতি আলহাজ্ব শফিকুর রহমান সিকদার, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আবুল কাসেম সিকদার, যুবনেতা রাজিবুল হক চৌধুরী রিকো, টুয়াকের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এস.এম কিবরিয়া, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসাফ উদ-দৌলা আশেক, সাবেক অর্থ সম্পাদক শহীদুল্লাহ নাঈম, কটেজ ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সভাপতি কাজী রাসেল আহাম্মদ নোবেল, সেভ দ্য নেচারের এর চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম রিয়াদ, পরিকল্পিত কক্সবাজার আন্দোলনের সমন্বয়ক সাংবাদিক আব্দুল আলীম নোবেল। এছাড়া বিভিন্ন সামাজিক ও পরিবেশ সংগঠনের নেতারা এতে অংশ গ্রহণ করেন।

আন্তর্জাতিক সমুদ্র সৈকত পরিচ্ছন্নতা দিবসে টুয়াক

এর আগে আন্তর্জাতিক সমুদ্র সৈকত পরিচ্ছন্নতা দিবসের বর্ণাঢ্য র‌্যালী কক্সবাজার সাংস্কৃতিককেন্দ্র প্রাঙ্গন থেকে বের হয়। র‌্যালীটি কক্সবাজর লাবণী পয়েন্ট সমুদ্র সৈকতে গিয়ে শেষ হবে। ওই স্থান থেকে সমুদ্র সৈকত বীচ ক্লিনিং কর্মসূচি শুরু হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •