বিশেষ প্রতিবেদক:
মিয়ানমারের একগুয়েমি সিদ্ধান্ত দমনে বাংলাদেশ সরকারকে সামরিক শক্তি প্রয়োগের আহবান জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবু নগরী।
তিনি বলেছেন, মিয়ানমারের মুসলিম অধ্যূসিত এলাকাকে মুসলিম শুন্য করতে দেশটির সামরিক জান্তা বাহিনী নিরীহ মানুষের উপর গুলি চালাচ্ছে। জ্বালাও পোড়াও এবং হত্যাকান্ড অব্যাহত রেখেছে। তাদের সমুচিত জবাব দিতে আন্তর্জাতিক কূটনৈতিক চাপ বাড়াতে হবে। মিয়ানমারের বিরুদ্ধে সকল মানবিক শক্তিগুলো ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।
শনিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাতে কক্সবাজারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আল্লামা জুনায়েদ বাবু নগরী এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, মিয়ানমার থেকে নির্যাতিত হয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা মানবেতর জীবন-যাপন করছে। তাদের জন্যে উন্মুক্ত ত্রাণ বিতরণ ব্যবস্থা করতে হবে।
মিয়ানমার সরকার প্রধান অং সান সুচি বর্তমানে সবচেয়ে বড় সন্ত্রাসী ও কসাই আখ্যা দিয়ে বাবু নগরী বলেন, অং সান সুচি মদদে নিরীহ মানুষকে হত্যা করা হচ্ছে। আন্তর্জাতিক আদালতে সুচির বিচার করতে হবে।
বর্তমান সরকারের সমালোচনা করে হেফাজতের এই নেতা বলেন, যে সময়ে মিয়ানমারে রক্তের বন্যা বইছে সে সময়ে বাংলাদেশের খাদ্যমন্ত্রী মিয়ানমার থেকে চাল আনতে গেছেন। এই দেশের তৌহিদী জনতা রোহিঙ্গাদের রক্তমাখা চাউল খাবে না।
হেফাজতে ত্রাণ তৎপরতা সম্পর্কে বাবু নগরী বলেন, রোহিঙ্গারা সবচেয়ে মজলুম। মানবিক কারণে তাদের পাশে দাঁড়ানো সবার উচিৎ। আমরা ভাগাভাগি করে হলেও তাদের খাওয়াবো। এটি আমাদের ঈমানী দায়িত্ব। রোহিঙ্গাদের সেবার জন্য হেফাজতের প্রায় এক হাজার স্বেচ্ছাসেবক মাঠে কাজ করছে। তিন কোটি টাকার উপরও ত্রাণ সামগ্রী মজুদ করা হয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি রোহিঙ্গাদের নাগরিক অধিকার নিশ্চিত করে স্বদেশে ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহবান জানান। একই সঙ্গে মিয়ানমার সরকারের চলমান অভিযানকে সম্পূর্ণ অবৈধ এবং সন্ত্রাসী কায়দা বলে আখ্যা দেন তিনি।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন-হেফাজতের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী, শিক্ষা গবেষনা ও প্রশিক্ষণ সম্পাদক মুফতি হারুন ইজহার, কক্সবাজার জেলা সেক্রেটারী মাওলানা ইয়াসিন হাবিব ও চট্টগ্রাম মহানগর (উত্তর) সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মীর ইদ্রিস।
হেফাজতের জেলা সিনিয়র সহ-সভাপতি হাফেজ সালামত উল্লাহর সভাপতিত্বে এতে উপস্থিত ছিলেন, হেফাজত নেতা মাওলানা হাফেজ মুবিনুল হক, মাওলানা আব্দুস সালাম কুদছী, মাওলানা নুরুল হক চকোরী, সায়েম হোসেন চৌধুরী, খালেদ সাইফী, মাওলানা মঞ্জুর ইলাহী, হাফেজ মুহাম্মদ আবুল মনজুর, কেফায়েত উল্লাহ, দিদারুল আলম প্রমুখ।
সংবাদ সম্মেলনের আগে আল্লামা বাবু নগরী উখিয়া কুতুপালং, বালুখালীসহ বিভিন্ন এলাকায় রোহিঙ্গাদের মধ্যে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •