চকরিয়া প্রতিনিধি :

আসন্ন শারদীয় দূর্গোৎসব উদযাপন উপলক্ষে উপজেলা ও থানা প্রশাসন এবং হিন্দুধর্মীয় নেতৃবৃন্দের নিয়ে ব্যাপক প্রস্তুতি মূলক এক মতবিনিময় সভা গত ১৪ সেপ্টেম্বর দুপুর ১২টায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় সভাপতিত্ব করেন চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাহেদুল ইসলাম। অনুষ্ঠিত সভায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী, শাহারবিল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মাতামুহুরী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মহসিন বাবুল, থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মিজানুর রহমান, চকরিয়া প্রেস ক্লাব সভাপতি আবদুল মজিদ, থানার এস আই আব্দুল খালেক, এস আই গৌতম সাহা, চকরিয়া উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি তপন কুমার দাশ, সাধারণ সম্পাদক বাবলা দেবনাথ, পূজা উদযাপন পরিষদের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক বাবু সুমন, তপন কুমার শুশীলসহ বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ চকরিয়া উপজেলা ও পৌর সভা শাখার নেতৃবৃন্দ সহ বিভিন্ন পূজা মন্ডপের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ও অন্যান্য নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় বক্তারা বলেন, আসন্ন শারদীয় দুর্গোৎসব উদযাপনে চকরিয়া বিভিন্ন পূজা মন্ডপে সুশৃংঙ্খল পরিবেশ বজায় রাখতে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখা হবে। এজন্য সকলের সর্বাত্মক সহযোগীতা প্রয়োজন। চকরিয়া থানার ওসি বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানিয়েছেন, প্রত্যেক পূজা মন্ডপে অন্য বছরের চেয়ে এই বছর অতিরিক্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হবে। প্রয়োজনে জেলা পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রত্যেক পূজা মন্ডপের জন্য স্পেশাল পুলিশ আনা হবে। তাই এবারের দূর্গোৎসবকে অধিক ঝাজজমক পূর্ণ পরিবেশে সার্বজনীয় উৎসবে পরিণত করার আহবান জানান। উল্লেখ্যযে, আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে শারদীয় দূর্গোৎসব। চকরিয়ায় মোট ৪৫ পূজা মন্ডপ রয়েছে। এসব পূজা মন্ডপে থাকবে প্রশাসনের নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা বলয়। এছাড়াও ঘট পুজা (ছোট) মন্ডপ রয়েছে আরো ৪০টি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •