আশা করি মিয়ানমারের চেতনা উদয় হবে : সংসদে প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোহিঙ্গাদের হত্যা ও তাদের ওপর নির্যাতনের নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, আশা করি মিয়ানমারের চেতনা উদয় হবে। তাদের নাগরিকদের ফিরিয়ে নিয়ে নিরাপদ আশ্রয়ে থাকার ব্যবস্থা করবে। বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদের ১৭তম অধিবেশনের সমাপনী ভাষণে একথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, খাদ্য নিয়ে কাউকে খেলতে দেব না। চালের দাম বাড়ার কোনো যৌক্তিতা দেখি না। কারা এ নিয়ে খেলছে? ’৭৪ সালের খাদ্য সচিবকে কিন্তু জিয়াউর রহমান পরে মন্ত্রী বানিয়েছিলেন। সেই সময়ে মঙ্গার সঙ্গে এই মন্ত্রী বানানোর যোগসাজশ আছে। বিষয়টি মনে রাখতে হবে। চাল মজুদ রেখে এ ঘটনা ঘটাচ্ছে কিনা তা তল্লাশি করে দেখা হবে।

রোহিঙ্গাদের সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী বলেন, মিয়ানমার তাদের দেশের মানুষদের ওপর অত্যাচার করছে। কিছু বিদ্রোহী ঘটনা ঘটিয়েছে। তারা সেই দেশের সেনাবাহিনী, পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে তাদের হত্যা করেছে। অস্ত্র কেড়ে নিয়েছে। সে ঘটনার পরই সেখানে সেনাবাহিনী হত্যাযজ্ঞ, অত্যাচার, নির্যাতন চালাচ্ছে। কিন্তু নিরীহ মানুষের ওপর কেন এমন অত্যাচার করা হবে?

তিনি আরও বলেন, আমি দেখেছি কী করুণ অবস্থা। শিশু, নারী বয়োবৃদ্ধ বেশি এসেছে। চাকরিজীবী ভালো পরিবারের লোকজনও চলে আসতে বাধ্য হয়েছে। ’৭১ সালে হানাদার বাহিনী যেভাবে আমাদের ওপর আক্রমণ করেছিল ঠিক সেভাবেই তাদের ওপর অত্যাচার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা নিজেরাই দেখেছি দিনের পর দিন পাকহানাদার আমাদের ওপর অত্যাচার করেছে। বাড়িঘরে আগুন দিয়েছে। দূর থেকে এখনও দেখা যায় মিয়ানমারে আগুন
জ্বলছে। এরা আমাদের কাছে বিরাট একটি বোঝা ঠিকই; কিন্তু মানবিক কারণে আমরা আশ্রয় দিতে বাধ্য হয়েছি। তাদের নির্যাতনের কথা শুনলে কোনো মানুষই সহ্য করতে পারবে না। তাদের কোথায় কীভাবে রাখব জানি না।

শেখ হাসিনা বলেন, মিয়ানকার সরকার কেন এ ধরনের ঘটনা ঘটাচ্ছে তা জানি না। তবে যারাই বিদ্রোহী কাজের সঙ্গে জড়িত তাদের খুঁজে বের করা উচিত। নিরীহ মানুষ কী করেছে? আজ বিশ্ব বিবেক জেগে উঠেছে। ইতোমধ্যে কানাডার প্রধানমন্ত্রী সু চিকে ফোন দিয়ে এ সমস্যা সমাধানের জন্য বলেছেন। জাতিসংঘও তাদের নাগরিক ফিরিয়ে নিতে বলেছে। রিলিফ তদারকির জন্য সোনবাহিনীকে দায়িত্ব দিয়েছি। যারাই ত্রাণ নিয়ে যাবে তারা ডিসির কাছে জমা দেবে। যদি প্রয়োজন হয় আমাদের খাবার তাদের সঙ্গে ভাগ করে খাব। মিয়ানমারের মত রোহিঙ্গাদের নাফ নদী কিংবা বঙ্গোপসাগরে ফেলতে পারি না।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

কক্সবাজারের ৩দিন ব্যাপী ‘প্রাথমিক চক্ষু পরিচর্যা’ বিষয়ক কর্মশালার উদ্বোধন

‘ঘরের ছেলে’র বিদায়ে ব্যথিত পেকুয়াবাসী

শিল্পী ফাহমিদা গ্রেফতার : জামিনে মুক্ত

‘মাশরুম একটি অসীম সম্ভাবনাময় ফসল’

তথ্য প্রযুক্তি’র সেবা সাধারণের দোরগোড়ায় পৌঁছাতে সরকার বদ্ধ পরিকর : শফিউল আলম

চট্টগ্রামে জলসা মার্কেটের ছাদে ২ কিশোরী ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৬

কোটালীপাড়ায় নিজ জমিতে অবরুদ্ধ ৬১ পরিবার : মই বেয়ে যাদের যাতায়াত

জামায়াত নেতা শামসুল ইসলামকে গ্রেফতারের প্রতিবাদ ও মুক্তি দাবী

দুর্ঘটনারোধে সচেতনতার বিকল্প নেই : ইলিয়াস কাঞ্চন

Google looking to future after 20 years of search

ইবাদত-বন্দেগিতে মানুষ যে ভুল করে

শেখ হাসিনাকে পাল্টা চ্যালেঞ্জ বি. চৌধুরীর

পর্যটকবান্ধব আদর্শ রাঙামাটি শহর গড়তে জেলা প্রশাসনের অভিযান চলছে

জামায়াত নেতা শামসুল ইসলামকে গ্রেফতারের প্রতিবাদ ও মুক্তি দাবী

ঈদগাঁও থেকে ৭ হাজার ইয়াবাসহ আটক ৩, বাস জব্দ

জুতায় লুকিয়ে পাচারের পথে ৩১০০ ইয়াবাসহ যুবক আটক

জাতিসংঘের হস্তক্ষেপের কোনও অধিকার নেই: মিয়ানমার সেনাপ্রধান

বৃহস্পতিবার ঢাকায় বিএনপির সমাবেশ

দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করা কি শুধু ইসলামেই নিষেধ?

খুটাখালীর ব্যবসায়ী নুরুল ইসলামের ইন্তেকাল