গর্জনিয়ার কৃষকেরা অসহায়: চার পয়েন্টে দিতে হয় চাঁদা

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী :
কক্সবাজারের রামুর গর্জনিয়া ইউনিয়ন থেকে কক্সবাজার কিংবা ঢাকা-শহরে রপ্তানিকৃত কৃষিপণ্য থেকে চার পয়েন্টে চাঁদা আদায় করা হচ্ছে। এ ঘটনায় শান্তিতে নেই হাজারো কৃষক। কৃষিপণ্য থেকে সংশ্লিষ্ট গর্জনিয়া ইউপি সরকারি
রাজস্ব আদায় করছে। অথচ কৃষকদের কাছ থেকে একই পণ্যের জন্য পাশ্ববর্তী গর্জনিয়া বাজার, কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন পরিষদ, নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়ন পরিষদ এবং পার্বত্য বান্দরবান জেলা পরিষদের নাম ভাঙিয়ে ইজারাদাররা চাঁদা আদায় করছে।

গর্জনিয়া ইউপির আট নম্বর ওয়ার্ড সদস্য নুরুল আলম বলেন, ‘স্ব স্ব ইউনিয়নে ইজারা নিলে- অন্য ইউনিয়নে ইজারার টাকা নেওয়ার কোন বিধান নেই। কিন্তু কচ্ছপিয়া ইউপি সেই বিধি বার বার ভঙ্গ করছে। এতে করে গর্জনিয়ার কৃষকেরা আর্থিক এবং মানসিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে।’

স্থানীয় কৃষকেরা জানায়, গর্জনিয়া অংশে কোন হাট নেই। বেঁচা কেনা হয়না। তবুও কচ্ছপিয়া ইউপির গর্জনিয়া বাজার ইজারাদারেরা ক্ষেতের পাশে গিয়ে চাঁদা আদায় করেন। গর্জনিয়া-নাইক্ষ্যংছড়ি-রামু সড়ক দিয়ে শশাসহ কৃষিপণ্য নানা প্রান্তে রপ্তানি হয়ে থাকে। এ কারণে সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে কচ্ছপিয়া ইউপির ইজারাদারসহ অন্যরা গর্জনিয়া ইউপির ইজারার রশিদ থাকলেও দাপট দেখিয়ে কৃষক থেকে টাকা আদায় করছে। টাকা না দিলে হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে।

বোমাংখিল গ্রামের কৃষক ওমর ফারুক (৩২) বলেন, ‘এক পিকআপ শশা রপ্তানি করতে গর্জনিয়া ইউপিকে হাজার টাকা ইজারা দেওয়ার পরও বাধ্য হয়ে কচ্ছপিয়া ইউপিকে
৮০০ টাকা দিতে হচ্ছে। এর পর নাইক্ষ্যংছড়ির দুটি পয়েন্টেও টাকা দিতে হয়। এ ক্ষেত্রে গর্জনিয়ার রশিদ দেখালেও কোন কাজ হচ্ছে না।’ ফারুকের মত শতাধিক কৃষকের অভিযোগ একই। তাঁরা প্রতিবাদ করেও ফল পাচ্ছেন না।

গর্জনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম বলেন, ‘অন্যায়ভাবে গর্জনিয়ার কৃষক থেকে বাকিরা চাঁদা নিচ্ছে। বিষয়টা খুবই দু:খজনক। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্টদের সহযোগিতা চাই।’

জানতে চাইলে কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আবু মো.ইসমাঈল নোমন স্বীকার করেছন- এক ইউপি ইজারার টাকা আদায় করলে, অন্য ইউপি নিতে পারে
না। বিষয়টি তিনি খতিয়ে দেখবেন। গর্জনিয়া পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক (ওসি, তদন্ত) কাজি আরিফ উদ্দিন বলেন, কৃষকের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেলে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নিবেন।

রামু উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রিয়াজ উল আলম জানান, বিষয়টি নিয়ে তিনিও খুবই ব্যথিত। ঘটনার সুষ্ঠু সামাধান এবং চাঁদাবাজি বন্ধে আগামী ১৫ দিনের
মধ্যে কার্যকরি ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

সর্বশেষ সংবাদ

বিজিবি ক্যাম্প এলাকায় অপরাধী চক্রের দৌরাত্ম্য, আতঙ্কে সাধারণ মানুষ

গোয়েন্দা পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ফেনীর ডাকাত সর্দার ইকবাল নিহত

টেকনাফ উপজেলা ছাত্রদলের কমিটি গঠিত

বাংলাদেশে অধিকাংশ তরুণদের হৃদরোগ হওয়ার কারণ জানালেন ডা. দেবী শেঠি

শহরের সাহিত্যিকা পল্লীতে পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপন করা হবে : এসপি মাসুদ হোসেন

পশ্চিম চৌফলদন্ডী স. প্রা. বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের অনিয়ম-দুর্নীতির তদন্ত শুরু

গর্জনিয়ার পোয়াংগেরখিল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস উদযাপন

উখিয়ায় বিদ্যুৎ সংযোগের লক্ষ লক্ষ টাকা আদায়, তদন্তে নেমেছে কমিটি

টেকনাফে চলন্ত অবস্থায় আগুন, পুড়ে ছাই মাইক্রোবাস

ইসলামাবাদে চৌকিদার অনুপস্থিত থেকে ভাতা উত্তোলন ও নথি গায়েবের অভিযোগ

ডিসি কলেজের শিক্ষার্থীরা আমার সন্তান সমতুল্য : ডিসি কামাল হোসেন

উখিয়ায় চলমান উন্নয়ন কার্যক্রম পরিদর্শন করলেন মন্ত্রী পরিষদ সচিব শফিউল আলম

রমজাইন্যা চোরার বিধিবাম! ধরা খেল জনতার হাতে

‘কেয়ার’ এর উদ্যোগে মহেশখালীতে দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস মেলা অনুষ্ঠিত

কিডস আইটি সেন্টারের ‘আইকিউ টেস্ট ও চারুকারু প্রদর্শনী’ জমে উঠেছে

ঘুমন্ত তুহিনকে কোলে করে নিয়ে আসেন বাবা, খুন করেন চাচা

২০ অক্টোবর জেলা শ্রমিক লীগের বর্ধিত জরুরী সভা আহ্বান

ত্রি-দেশীয় সম্মেলনে যোগ দিতে ৮ দিনের সফরে ভারত যাচ্ছেন সাংবাদিক নজরুল 

আন্তর্জাতিক কনফারেন্স শেষে ইফা’য় সৌজন্য সাক্ষাত করলেন মাওলানা সিরাজুল ইসলাম

পিএমখালীতে ফ্রি রক্তের গ্রুপ নির্ণয়