হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ :

টেকনাফের ইয়াবা পল্লী হিসাবে বহুল আলোচিত সদর ইউনিয়নের উত্তর নাজিরপাড়া গ্রাম থেকে ১০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে বলে জানা গেছে। তবে ইয়াবা চোরাকারবারীরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে। আটক ইয়াবার মুল্য ৩০ লক্ষ টাকা। উদ্ধারকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে। যা পরবর্তীতে উর্দ্ধতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে।

টেকনাফ-২ বিজিবি’র অধিনায়কের পক্ষে অতিরিক্ত পরিচালক শরীফুল ইসলাম জোমাদ্দার ১১ সেপ্টেম্বর জানান “১০ সেপ্টেম্বর ব্যাটালিয়নের অধীনস্থ টেকনাফ বিওপির সুবেদার মোঃ ইব্রাহিম হোসেনের নেতৃত্বে একটি টহল দল উত্তর নাজিরপাড়া গ্রামে রাস্তার উপর মোটর সাইকেল যোগে নিয়মিত টহলে গমন করে। মোটর সাইকেল যোগে টহলকালীন রাস্তার পার্শ্বে অবস্থানরত একজন লোক টহলদলকে দেখা মাত্রই একটি ব্যাগ হাতে দৌঁড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এমতাবস্থায় টহলদল রাস্তার পার্শ্বে মোটর সাইকেল রেখে তাকে ধাওয়া করলে এক পর্যায়ে সে তার হাতে থাকা ব্যাগটি ফেলে পার্শ্ববর্তী গ্রামের ভেতর পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে টহলদল ইয়াবা পাচারকারী কর্তৃক ফেলে যাওয়া ব্যাগটি তল্লাশী করে ৩০ লক্ষ টাকা মূল্যমানের ১০ হাজার পিছ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। উদ্ধারকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে। যা পরবর্তীতে উর্দ্ধতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে”।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •