রোহিঙ্গা নারীরা পথে জন্ম দিচ্ছেন সন্তান

আবুল আলী, টেকনাফ:

মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর নির্মম অত্যাচার-নির্যাতনে আরাকান রাজ্য থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা নারীরা বাংলাদেশ সীমান্তের কাছে নাফ নদীতে নৌকার মধ্যে ও মাঠে-ঘাটে অনেক নবজাতকের জন্ম দিচ্ছেন।

মিয়ানমার বাহিনীর নির্যাতন থেকে প্রাণে বাঁচতে গর্ভবতী সানোয়ারা বেগম (২৯) পরিবারের ৬জন সদস্য নিয়ে পালিয়ে আসেন। নাফ নদী পাড়ি দিয়ে শাহপরীরদ্বীপ ঘোলারচর এলাকায় পোঁছাই সেখন থেকে টেকনাফে উদ্দেশ্য রওনা হন। আসার পথে হঠাৎ করে পছন্দ বেদনা শুরু হয় তার। এক দিকে ওপারে মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষীর বেপরোয়া গুলির ভয়, আবাার এপারে আসার সময় বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষীর হাতে ধরা পড়ার ভয়। নৌকাযোগে গত সনিবার রাত ১০টার সময় পালিয়ে আসে মাজপথে সাবাবাং এলাকার রাস্তা পাশে রাত ১২টার দিকে জন্ম দিলেন তিনি এক নবজাতকের। এ নবজাতকের মাতৃভূমি কোন দেশে তা নির্ণয় করা কঠিন হয়ে পড়েছে। সানোয়ারা এ নবজাতকসহ ৫ সন্তানের মা। নবজাতকের বাবা মিয়ানমার মংডু বাঘগোনা এলাকার মোঃ উসমানের ছেলে মো: ইউছার ১দিনে শিশু, মোঃ আয়ুব(৯), মেয়ে সেকুফা বেগম(৭), সনিরা বেগম(৫), রোকিয়া বেগম(৩)। নদী পার হওয়ার পর টেকনাফ রোহিঙ্গা ক্যা¤প লেদা বি ব্লক ২০৩ নাম্বার রুম তার রোনের জামাই হাবিবের বাড়িতে মানবিক কারণে সানোয়ারা বেগমকে আশ্রয় দিয়েছেন। সেনুরা জানান, আর্থিক সঙ্কটের কারণে তিনি কোনো চিকিৎসা পাচ্ছেন না। স্বামী কোথায় গিয়ে কাজ করা মত কোন জায়গা নাই কি ভাবে এক মুতু ভাত খাব তা নিয়ে চিন্তায় আছি।

তার বাবা উসমান জানার, আমার ছোট ছোট ৫ সন্তান নিয়ে এখন আমাদের কী হবে। আমাদের এলাকার থেকে অনেক মানুষ চলে আসছে দেখে মনে হচ্ছে আমরা কোন কাজ পাব না- এ কথা বলের সাথে সাখে কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি।

এ রকম অনেক অগণিত রোহিঙ্গা শিশুর জন্ম হচ্ছে। কারো নাফ নদে নৌকার মধ্যে, কারো নদের পাড়ে, কারো ধানক্ষেতে, জঙ্গলে, গাছের নিচে, রাস্তায় বা খোলা আকাশের নিচে। অর্থাৎ বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তের নাফ নদের আশপাশে তাদের জন্ম। এ রকম শিশুর জন্ম দেয়া একজন মা হামিদা বেগম (৩২)। তিনি মিয়ানমারে বাহিনীর তাণ্ডব থেকে বাঁচতে গর্ভবতী অবস্থায় মাইলের পর মাইল পথ হেঁটেছেন। যখন নাফ নদের তীরে পৌঁছে নৌকায় পা দিয়েছেন, তখনই তার প্রসব বেদনা ওঠে। অগত্যা তীরে উঠে খোলা আকাশের নিচেই জন্ম দিলেন পুত্রসন্তানের।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

আরব আমিরাতে উখিয়া প্রবাসীদের মিলনমেলা উপলক্ষে আলোচনা সভা

আ’লীগ জনগনের সংগঠন, নির্বাচনের বিধি মেনে কাজ করুন : মেয়র নাছির

গায়েবি মামলা প্রত্যাহার চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে তালিকা দিল বিএনপি

রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে সু চিকে ভর্ৎসনা মাহাথিরের

হালদা নদীকে দুষণমুক্ত করতে সবার সহযোগিতা চাইলেন ইউএনও রুহুল আমিন

সুব্রত চৌধুরীকে দিয়ে অলির রাজত্ব খতম করতে চায় গণফোরাম

দলীয় পরিচয় বহাল রেখে অন্যের প্রতীকে ভোট নয় অনিবন্ধিতদের

জাতীয় হিফযুল কুরআন প্রতিযোগিতায় বিচারক মনোনীত হলেন মাওলানা মুহাম্মদ ইউনুস ফরাজী

১০ বিশিষ্ট ব্যক্তিকে নির্বাচনে সম্পৃক্ত করতে চান ড. কামাল

আবারও স্পেনের সেরা লিওনেল মেসি

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে সিএনএনের মামলা

জিএম রহিমুল্লাহ, ভিপি বাহাদুরসহ ৬ জনের আগাম জামিন

লক্ষ্যারচরে দরিদ্রদের মাঝে স্বল্প মূল্যে খাদ্যশস্য বিতরণ

কক্সবাজার ১ ও ২ থেকে সালাহউদ্দিন ও হাসিনা আহমদ’র মনোয়নপত্র গ্রহণ

চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে ক্যানসারের রেডিওথেরাপি চালু 

পেশকার পাড়ায় সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডের প্রামান্য চিত্র প্রদর্শন

পেকুয়ায় শ্রমিকলীগ নেতা শাহাদাতকে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় অবশেষে মামলা

নুরুল বশর চৌধুরী কক্সবাজার-২ আসনের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন

পর্দা উঠলো ওয়ালটন বীচ ফুটবল টূর্ণামেন্ট’র উদ্বোধন

কক্সবাজার জেলা পুলিশে ১০০ নতুন কনস্টেবলের যোগদান