বিদেশ ডেস্ক:
মেক্সিকোতে ‍ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৫।আহত হয়েছেন দুই শতাধিক। মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট এনরিক পেনা নিয়েটো জানিয়েছেন, এই ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল রিখটার স্কেলে ৮ দশমিক ১। শনিবার ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মেক্সিকোর অন্তত পাঁচ কোটি মানুষ এই ভূমিকম্প টের পেয়েছেন। প্যাসিফিক সুনামি ওয়ার্নিং সেন্টার বলেছে, এই ভূমিকম্পের প্রভাবে সমুদ্রের স্বাভাবিক জোয়ারের চাইতে তিন মিটার উঁচু ঢেউ সৃষ্টি হতে পারে। শক্তিশালী এ ভূমিকম্পের পর গুয়েতেমালা, এল সালভেদর, কোস্টারিকা, নিকারাগুয়া, পানামা, হন্ডুরাস ও ইকুয়েডরেও সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়েছে। এরইমধ্যে প্রশান্ত মহাসাগরের মেক্সিকো উপকূলে এক মিটার উচ্চতার সুনামি আঘাত হেনেছে।

মেক্সিকোর জাতীয় জরুরি সার্ভিসের প্রধান লুইস ফিলিপ পুয়েনতে বলেন, চিয়াপা ও জুশিতানে আরও তিনটি মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দেশটিতে ৮.১ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত আনে। ভূমিকম্পের কেন্দ্র ছিল মেক্সিকোর পিজিয়াপান থেকে ৮৭ কিলোমিটার দূরে প্রশান্ত মহাসাগরে। ১৯৮৫ সালের পর মেক্সিকো উপকূলে এটিই সবচেয়ে শক্তিশালী ভূমিকম্প। ওই ভূমিকম্পে ১০ হাজারেরও বেশি মানুষের প্রাণহানি ঘটে।
ওই অঞ্চলে উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে। সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হচ্ছে সহায়তা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •