প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

কক্সবাজার জনপদে কয়েক লক্ষ রোহিঙ্গা অবৈধভাবে অবস্থান করছে আসছে। গত কিছু দিন থেকে আরো কয়েক লাখ রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ করেছে। এই রোহিঙ্গা জনস্রোতের কারণে কক্সবাজারের আর্থ-সামাজিক পরিবেশ যেন বিঘিœত না হয় সে ব্যাপারে প্রশাসন ও এলাকাবাসীর সচেতনতা কামনা করছে পরিকল্পিত কক্সবাজার আন্দোলন। এই বিষয়ে আমাদের কিছু প্রস্তবনা পেশ করা হলো।

#বাংলাদেশে অনুপ্রবেশকারী রোহিঙ্গাদের তাদের দেশে ফেরৎ পাঠাতে আন্তর্জাতিক ও কূটনৈতিক চাপ প্রয়োগ

# বাংলাদেশের নেতৃত্বে বিভিন্ন দেশ সফর করে বিশ্বজনমত তৈরি করা

# কক্সবাজারে বিছিন্নভাবে ছড়িয়ে থাকা রোহিঙ্গাদের বাধ্যতামুলকভাবে শিবিরে বা ক্যাম্পে রাখা

# দ্র”ততম সময়ে ফিঙ্গার প্রিন্টসহ রোহিঙ্গাদের ডাটাবেজ তৈরি করণ

# স্থানীয়দের কারো বাসা-বাড়িতে রোহিঙ্গাদের না রাখা ও ক্যাম্পে পাঠাতে সহযোগিতা করা এবং বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ না হওয়া

# রোহিঙ্গাদের তদারকির জন্য প্রতিটি ক্যাম্প বা শিবিরে কঠিন নিরাপত্তা বেষ্টনির ব্যবস্থা করা

# সকল রোহিঙ্গা ক্যাম্প সিসি ক্যামেরার আওতায় রাখা # রোহিঙ্গাদেরকে ত্রাণ বা খাদ্য সামগ্রী জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে প্রদান করা

# রাহিঙ্গা নিয়ে কাজ করা দেশি-বিদেশী এনজিও’র তালিকা প্রকাশ ও মনিটরিং ব্যবস্থা করা

# রোহিঙ্গাদের বিষয়ে কারো মতামত বা অভিযোগ জানাতে বিশেষ কন্ট্রোল রুম এর ব্যবস্থা করা

# রোহিঙ্গা ইস্যুতে উস্কানিদাতাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা

# রোহিঙ্গাদের নিয়ে যারা দালালি করছে তাদের তালিকা তৈরি করা

# রোহিঙ্গা নিয়ে কেউ যেন অনৈতিক সুবিধা ও হয়রানি না করতে পারে সে দিকে সজাগ দৃষ্টি রাখা

# অনুপ্রবেশকারী রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ও শিবিরের জুরুরী ভিত্তিতে পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপন করা এবং প্রয়োজনে আলাদা সিকিউরি বাহিনী তৈরি করা

# রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশের কারণে দেশের সার্বিক ক্ষয়ক্ষতি নিরূপন করা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •