রোহিঙ্গাদেরকে তাদের ভূমিতে টিকিয়ে রাখতে বাংলাদেশকে কৌশলী হতে হবে

মোয়াজ্জেম হোসাইন সাকিল :

সমুদ্রের তীরের ঝাউবাগান কিংবা ম‌্যানগ্রোভ ফরেস্ট উপকূলের মানুষকে রক্ষা করে। ঘূর্ণিঝড়, সাইক্লোন কিংবা যেকোন প্রাকৃতিক দূর্যোগে প্রথম ধাক্কাটা এসে লাগে এই ঝাউবাগান কিংবা ম‌্যানগ্রোভ ফরেস্টে।
রোহিঙ্গারাও মিয়ানমার সীমান্তে আমাদের জন‌্য ঝাউবাগান কিংবা ম‌্যানগ্রোভ ফরেস্টের মতোই। মিয়ানমারের যতো নির্যাতন সব তাদের উপর।

এখন ঝাউবাগান কিংবা ম‌্যানগ্রোভ ফরেস্ট উজাড় হয়ে যাচ্ছে। এখন দূর্যোগের প্রথম ধাক্কাটাই লাগবে আমাদের উপর।
আমাদের …. বাঙালীদের অনেকেই যোগ দেব মিয়ানমারের চর হিসেবে। ভারতের চর যেমন আছি সেরকম।
আমাদের বাসায় আজ কি রান্না হয়েছে সেটাও চলে যাবে মিয়ানমারে। আমার পাশে আপন সেজে থাকা গুপ্তচরই সব খবর সরবরাহ করবে মিয়ানমারকে। এখনও করছে। ভারতের জন‌্য করছে বেশি। আমাদের মাঝে অনেকেরই দ্বিতীয় বাড়ি ভারতে। অনেকেরই দ্বিতীয় বাড়ি মিয়ানমারে। এর পেছনে যথেষ্ট যুক্তিযুক্ত কারণও আছে।
মায়ানমারের বাহিনীর গুলি এসে পড়ছে বাংলাদেশের ভূমিতে। মিয়ানমারের হেলিকপ্টার উড়ে যাচ্ছে বাংলাদেশের আকাশসীমা লঙ্ঘন করে। কেন এতো স্পর্ধা তাদের। আমরাই বা কেন এর বিরুদ্ধে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করছিনা।

আমরা মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মোটেও সোচ্চার হচ্ছিনা। সোচ্চার হচ্ছি ঝাউবাগান কিংবা ম‌্যানগ্রোভ ফরেস্ট রূপী রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে। রোহিঙ্গাদেরকে তাদের নিজ ভূমিতে টিকিয়ে রাখতে বাংলাদেশকে অনেক বেশি কৌশলী হওয়া জরুরী। কিন্তু আমরা কোন ধরণের কৌশলই দেখছিনা।
ভৌগলিকভাবে এই অঞ্চলটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ হওয়ায় আরকানকে শক্ত ঘাঁটি বানানোর জন‌্যই রোহিঙ্গাদের উচ্ছেদ করা হচ্ছে। ভারত এবং চীন মিয়ানমার থেকে এই ভৌগলিক সুযোগ ভোগ করতে মরিয়া। বাণিজ‌্যিক সুযোগের জন‌্যও মরিয়া।
আরকান রোহিঙ্গামুক্ত হলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হবে বাংলাদেশ। এই জন‌্য বাংলাদেশেরই উচিত হবে কূটনৈতিক তৎপরতা চালানো। বন্ধু রাষ্ট্রগুলোকে ধরে রোহিঙ্গাদেরকে তাদের নিজ ভূমিতে টিকিয়ে রাখতে তদবির চালানো। বন্ধু কূটনৈতিকদের ধরে তদবির চালানো। বিশ্বব‌্যাপী একটি জনমত তৈরির চেষ্টা করা। এই কূটনৈতিক তৎপরতায় সুফল আসুক বা না আসুক। এটা ছাড়া কোন উপায় দেখছিনা। রোহিঙ্গাদের তাদের নিজ ভূমিতে টিকিয়ে রাখতে বাংলাদেশকে কৌশলী হতেই হবে।
চইলকিনা হন কৌসলনে নজানি।

সর্বশেষ সংবাদ

কাশ্মিরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে চ্যালেঞ্জ সাবেক সেনা কর্মকর্তার

‘ডেঙ্গু মোকাবিলায় আগামী সপ্তাহটা চ্যালেঞ্জিং’

বৃহস্পতিবার থেকে বন্ধ হচ্ছে ফেসবুক গ্রুপ চ্যাট

কাশ্মীর নিয়ে মোদির চতুর্মুখী নীলনকশা

খালেদার মুক্তিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে যাবে বিএনপি

কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন: পদ প্রত্যাশীদের দৌড়ঝাঁপ

হাজিদের প্রথম ফিরতি ফ্লাইটে ৪১৮ যাত্রী দেশে পৌঁছেছে

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে প্রস্তুত কেরণতলী ঘাট

নয়া জমানার নয়া হেয়ার স্টাইল !

টেকপাড়ায় সরকারী কর্মকর্তার বসতবাড়িতে হামলার অভিযোগ

লুৎফুর রহমানের মৃত্যুতে ব্লাড ডোনার’স সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সফি উল করিমের শোক

ইসলামপুরের যুবলীগ কর্মী লুৎফুর রহমান আর বেঁচে নেই, সকাল ১০ টায় জানাজা

মক্কায় জসিম উদ্দীন মিয়াজী স্মরণে দোয়া মাহফিল

মার্শাল চেয়ারম্যান ও তোফায়েল বে অফ বেঙ্গল ক্রুজ লাইন এসোসিয়েট এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক নির্বাচিত

সৌদিআরবে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি নিহত

সৌদি তেলক্ষেত্রে ড্রোন হামলা

মিয়ানমারের রোহিঙ্গা নির্যাতন তদন্ত দল ঢাকায়

ভারুয়াখালী ছোট চৌধুরীপাড়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ ও সমাজ পরিচালনা কমিটি গঠিত

মহেশখালীতে জমি দখলকে কেন্দ্র করে যুবক আহত

ইসলামী ব্যাংকের পল্লী উন্নয়ন প্রকল্পের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন