শামীম ইকবাল চৌধুরী, নাইক্ষ্যংছড়ি:
বান্দরবান সীমান্তের জিরো পয়েন্ট অবস্থানরত রোহিঙ্গা ও অনুপ্রবেশ বিষয়ে বিশেষ আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক সভা করেছে প্রশাসন। বৃহস্পতিবার সকালে জেলার সীমান্তবর্তী উপজেলা নাইক্ষ্যংছড়িতে অনুষ্ঠিত আইন শৃংখলা সভায় বান্দরবান জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক বলেছেন- দেশের প্রতিটা ইঞ্চি ভূমি রক্ষা করা প্রকৃত দেশ প্রেমিকের দায়িত্ব। জীবনের প্রয়োজনে ৭১মতই আমাদের ভূমিকে আমাদের রক্ষা করতে হবে। সীমান্তে যে মানব বিপর্যয় হয়েছে তার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মানবিক আচরণের নির্দেশ দিয়েছেন। রোহিঙ্গারা নির্যাতনের শিকার হয়ে আমাদের সীমান্তঞ্চলে আসতে বাধ্য হয়েছেন।

সভায় বাংলাদেশ বর্ডার গার্ডের ৩১ ব্যাটালিয়ানের অধিনায়ক লে.কর্ণেল আনোয়ারুল আযীম বলেছেন- রোহিঙ্গারা আমাদের দেশে নিবন্ধিত ও অনিবন্ধিত আশ্রয় শিবীরে আশ্রয় দিতে সাহায্য করেছে। রোহিঙ্গা ইস্যুতে কারা দালাল, মানবপাচারের সাথে জড়িত তা এলাকার জনগণ-জনপ্রতিনিধিগণ ভালো জানেন। আশা করব তারা রোহিঙ্গাদের নিয়ে কোন ধরনের ব্যবসা করবেন না।

বান্দরবান জেলা পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় বলেছেন- রোহিঙ্গাদের সুন্দর স্বাস্থ্য সেবাসহ তাদের প্রতি মানবিক আচরণের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন। বান্দরবানে কোন ভাবেই রোহিঙ্গা রাখা যাবেনা, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন। যেভাবে ত্রাণ বিতরণ হচ্ছে তাতে নিপরাপত্তার বিষয় রয়েছে।

এতে আরো বক্তব্য রাখেন নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো: কামাল উদ্দিন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস,এম সরওয়ার কামাল, নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউপি চেয়ারম্যান তসলিম ইকবাল চৌধুরী, ঘুমধুম ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আজিজ, উপজেলা জামে মসজিদের খতিব মাওলানা ফরিদুল আলম, রেজু জামিরতলী পাড়া বৌদ্ধ বিভাহের অধ্যক্ষ সুপ্রীয় থেরো।

এছাড়াও সভায় উপস্থিত ছিলেন ৩১ বিজিবির উপ অধিনায়ক মেজর আশরাফ, ৫৭বিজিবির উপ অধিনায়ক মেজর এরশাদুল হক, থানা অফিসার ইনচার্জ এএইচএম তৌহিদ কবির, এমপি প্রতিনিধি আলহাজ্ব খায়রুল বাশার, উপজেলা আওয়ামীলীগ আহ্বায়ক ও জেলা পরিষদ সদস্য ক্যউচিং চাক, সদস্য সচিব ইমরান মেম্বার, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার রাজা মিয়া প্রমুখ।

বান্দরবানের অন্তত ১৩টি পয়েন্টের জিরো লাইনে অনুপ্রবেশ করা রোহিঙ্গাদের বিষয়ে বিশেষ এ আইন শৃঙ্খলা সভায় প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, হেডম্যান-কারবারীসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মেম্বারবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •