ইমাম খাইর, সিবিএন:
মিয়ানমারে নির্যাতিত হয়ে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের পাশে তুরস্ক থাকবে বলে জানিয়েছেন ফার্স্ট লেডি এমিনি এরদোয়ান। এছাড়া মিয়ানমার থেকে বিতাড়িত রোহিঙ্গা মুসলমানদের আশ্রয় দেয়ায় বাংলাদেশ ও জনগ্রণের প্রতি ধন্যবাদ দিয়েছেন তিনি।
বৃহস্পতিবার (৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উখিয়া কুতুপালং রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে তুরস্কের ফার্স্ট লেডি এমিনি এরদোয়ান একথা বলেন।
এ সময় সঙ্গে ছিলেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেগলুত কাভাসোগলু, বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোঃ আলী হোসেনসহ উর্ধতন কর্মকর্তারা।
এমিনি এরদোয়ান বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে তুরস্কের একটি বিশেষ বিমানে কক্সবাজার বিমানবন্দরে এসে পৌঁছান। সেখান থেকে সড়ক পথে প্রথমে উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে যান।
সেখানে রোহিঙ্গা নারী-পুরুষের উপর মিয়ানমারে বর্বর নির্যাতনের বর্ণনা শুনেন। এ সময় কুশল বিনিময় করেন ক্যাম্প কর্মকর্তাদের সঙ্গে।
বেলা পৌনে দুইটার দিকে উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এসে পৌঁছান। এসময় ক্যাম্পের দেশী-বিদেশী কর্মকতারা এমিনি এরদোয়ানকে স্বাগত জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •