রিয়াজ উদ্দিন, পেকুয়া:

পেকুয়ায় মায়ানমারে গণহত্যা বন্ধের দাবীতে সোচ্চার হচ্ছে সর্বস্তরের মানুষ। গত দুইদিনে পৃথক স্থানে একাধিক মানববন্ধন কর্মসুচী পালিত হয়েছে। মায়ানমারের জাতিগত সহিংসতা নিরসন সংখ্যালঘু আরাকান রাজ্যে মুসলিম নিধনের প্রতিবাদে সর্বস্তরের পেকুয়াবাসী শান্তিপূর্ণ মানববব্ধন কর্মসুচীর দিকে ঝুকছেন। শুক্রবার জুমার নামাজের পর মুসল্লীসহ সর্বস্তরের মানুষ মানববন্ধন কর্মসুচীতে সমবেত হয়েছে। ওই দিন টইটং ইউনিয়নের হাজীবাজারে ও বারবাকিয়া বাজারে বিশাল মানববন্ধন অনুষ্টিত হয়। জুমার নামাজের পর এ মানববন্ধন এবিসি সড়কের হাজী বাজার পয়েন্টে হয়েছে। বারবাকিয়া বাজারেও একই সময়ে পৃথক মানববন্ধন হয়েছে। টইটং হাজীবাড়ি নুরুজজাহান ইয়াংস্টার ক্লাব ,হাজী বাড়ি, নুরুজ্জাহান ঐক্য পরিষদ ও হযরত আলী (রা:) স্মৃতি সংসদ ওই মানববন্ধনের আয়োজন করে। মানববন্ধন শেষে এক সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সভা অনুষ্টিত হয়। এ সময় বক্তব্য রাখেন টইটং এর প্যানেল চেয়ারম্যান হাজী শাহাব উদ্দিন, মাষ্টার মিজানুল করিম, শওকতুল ইসলাম খোকন, সাংবাদিক মোহাম্মদ হাসেম, নুর মোহাম্মদ, ছাত্রনেতা বাহাদুর, এরশাদ প্রমুখ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মাহাফুজুল করিম, নোমান, এডভোকেট মিরাজ, জকরিয়া, আবদু রহিম, জাহাঙ্গীর, শহিদুল ইসলাম মানিক, মৌলভী মুফতি মাহামুদ, কফিল, মোজাহিদ, তারেক, আবদু গফুর, রিয়াল, নেওয়াজ, রিজন, মিজান, আজম, মোস্তাক, আবুল খাইর, পারভেজ, রাজিব, ইউনুছ, শাহাদত, রাজন, হাসান, আবু হানিফ, জালাল, জাবেদ, হানিফ, হাসেম প্রমুখ। এ দিকে বারবাকিয়া বাজারে মানববন্ধন হয়েছে। বারবাকিয়া বাজার ব্যবসায়ী ও সর্বস্তরের বারবাকিয়াবাসীর পক্ষে এ মানববন্ধন সড়কে হয়েছে। এ সময় বক্তব্য রাখেন পেকুয়া উপজেলা বিএনপির সেক্রেটারী ইকবাল হোসাইন, বিশিস্ট আলেমে দ্বীন আবু বক্কর প্রমুখ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাজারের ব্যবসায়ী নুুরল হোসাইন, মোহাম্মদ আলম সাবেক এমইউপি, মাস্টার মহসিন, মোহাম্মদ মাজাম্মেল হকসহ বারবাকিয়া বাজারের শত শত ব্যবসায়ী। তারা জুমার নামাজের পর পরই বারবাকিয়া বাজারে লাইনে দাড়িয়ে মানববন্ধন শুরু করে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •