‘কিছু নেতা মনে করেন সুপ্রিম কোর্ট তাদের দলের অঙ্গ সংগঠন’

ডেস্ক নিউজ:

লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) প্রেসিডেন্ট ড. কর্নেল অলি আহমদ বীর বিক্রম (অব.) বলেছেন, ‘কিছু রাজনীতিবিদের কর্মকাণ্ড দেখলে মনে হয়, বাংলাদেশ তাদের নিজস্ব সম্পত্তি আর দেশের জনগণ তাদের সেবাদাস। কিছু কিছু রাজনৈতিক দল মনে করে, হাই কোর্ট ও সুপ্রিম কোর্ট তাদের দলের অঙ্গসংগঠন। তাদের হুকুম মেনেই কোর্টকে কাজ করতে হবে।’

অলি আহমদ সোমবার তার দলে যোগদান করতে আসা নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বক্তৃতা করছিলেন। তিনি বলেন, ‘অনেকেই হাই কোর্ট, সুপ্রিম কোর্টের রায় নিয়ে মিছিল-মিটিং এবং অহেতুক সমালোচনায় লিপ্ত। প্রধান বিচারপতিকে পদত্যাগ করার জন্য আলটিমেটামও দেওয়া হয়েছে। আইনকে তার নিজস্ব গতিতে চলতে দেওয়া হচ্ছে না; যা দুঃখজনক ও অনাকাঙ্ক্ষিত। ’

রাজধানীর ডিওএইচএস এলাকায় গতকাল সকালে তার বাসভবনে যোগদান অনুষ্ঠানে অলি আহমদ আর বলেন, ‘জনগণের ধারণা হাই কোর্ট ও সুপ্রিম কোর্টই হচ্ছে দেশ ও জনগণের শেষ ভরসাস্থল। এখন পর্যন্ত সাবেক প্রধান বিচারপতি খায়রুল হক ছাড়া অন্য কোনো বিচারপতিকে ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলের সেবাদাস বলে মনে করে না। ’

তিনি আশা প্রকাশ করেন যে, বর্তমান প্রধান বিচারপতি নিম্ন আদালতগুলোকে ক্ষমতাসীন দল ও সরকারের জাঁতাকল থেকে মুক্ত রাখার পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।

তিনি বলেন, ‘সাংবিধানিক পদগুলোকে বিতর্কের ঊর্ধ্বে রাখতে হবে। এতে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সঠিক বাস্তবায়ন হবে। ’ কর্নেল অলি বলেন, ‘আমরা অত্যন্ত উদ্বেগের সঙ্গে লক্ষ্য করছি, প্রধান বিচারপতি আর সুপ্রিম কোর্টকে নিয়ে অহেতুক বিতর্কের সৃষ্টি করা হয়েছে। ’ তিনি বলেন, ‘কোর্টের যে কোনো রায়ে কেউ সন্তুষ্ট হবেন বা কেউ অসন্তুষ্ট হবেন— এটাই স্বাভাবিক। সংক্ষুব্ধ ব্যক্তি আইন অনুযায়ী প্রতিকারের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারেন। আইনে তার বিধান রয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘ক্ষমতার মোহ ও লোভের কারণে আমরা হিতাহিত জ্ঞান হারিয়ে ফেলেছি। সবাই মনে করে নিজ নিজ জায়গায় কেউ নিরাপদ নয়।’

কর্নেল অলি আহমদ আরো বলেন, ‘বিগত বছরগুলোয় সংসদীয় গণতন্ত্রসহ আমরা একে একে দেশের সব গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানকে সুপরিকল্পিতভাবে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিয়েছি। সমগ্র জাতি আজ অধৈর্য, অস্থিরতা ও আস্থাহীনতায় ভুগছে। কারও প্রতি কেউ সামান্যতম শ্রদ্ধা ও সৌজন্যবোধ দেখাতে চায় না।’

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

আইসিসি নিজেই মিয়ানমারের বিচারে সক্ষম: জাতিসংঘ মহাসচিব

বান্দরবানের কোথায় কী দেখবেন

নিজেদের সংশোধন করি, আইন মানার সংস্কৃতি গড়ে তুলি- ইলিয়াস কাঞ্চন

বিএনপি ক্ষমতার লোভে অন্ধ হয়ে গেছে : কর্ণফুলীতে ওবায়দুল কাদের

ক্যান্সার, হৃদরোগ, শ্বাসযন্ত্রের রোগ ও ডায়াবেটিসের কাছে হারছে মানুষ

মাতারবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মাস্টার মাহমুদুল্লাহ কারাগারে

রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে গায়েবি মামলার তদন্ত বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে রিট

অনুপ্রবেশের অপেক্ষায় আরও ৫ লাখ রোহিঙ্গা

চকরিয়া পালাকাটা দাখিল মাদ্রাসার প্রাক্তন ছাত্র সংসদের পূর্ণাঙ্গ কমিটি 

চট্টগ্রামে প্রাইভেটকার-মাইক্রোবাস-অটোরিকশার সংঘর্ষে নিহত ২

৬০ হাজার রোহিঙ্গা শিশুকে ভাষা শেখাবে সরকার

ক্যান্সার চিকিৎসায় কত লাগে?

সরকারের সেবায় সোনালী ব্যাংকের ক্ষতি হাজার কোটি টাকা

যেসব আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত

ঈদগাঁওতে মাধ্যমিক শিক্ষকদের এমপি ও কউক চেয়ারম্যানের সহযোগিতার আশ্বাস

কাঁচা মরিচের অনেক ঔষধি গুণ রয়েছে। এবার কাঁচা মরিচের ৫ গুণ জেনে নিন

কোটি কোটি টাকার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এখন ধ্বংসস্তূপ!

মুখ ধোওয়ার সময় যে ভুল করবেন না

তুরস্কে মেঘ আর মসজিদের মিতালি!

মালয়েশিয়ায় ব্যাপক ধর-পাকড়, ৫৫ বাংলাদেশি আটক