কিভাবে বাঁচাবে মোহছেনা ১০ দিনের শিশুকে!

রফিক মাহমুদ,উখিয়া :

মিয়ানমারের এপারে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) কড়া পাহারা। ওপারে মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) টানা গুলি বর্ষণের শব্দ। আর সীমান্তের এলাকায় হাজার হাজার রোহিঙ্গার আর্তনাদ। নারী, পুরুষ ও শিশুদের এদিক-ওদিক ছোটাছুটি। বাড়িঘর, স্বজন, সহায়-সম্বল সব হারিয়ে প্রাণ বাঁচাতে ছুটছেন তারা। যে যেভাবে পারছেন সীমান্ত পার হয়ে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছেন। মিয়ানমার সীমান্তরে অন্তত ১৫টি পয়েন্টের সবখানে একই চিত্র।

মোহছেনা বেগম, বয়স ২০ বছর। বাংলাদেশ সীমান্ত সংলগ্ন মিয়ানমারের মংডু ঢেকিবনিয়ায় বাড়ী। স্বামীর রুহুল আমিন (২৪)। মোহছেনা মাত্র ১০ দিন বয়সের তার কন্যা শিশুকে কোলে নিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। সে বর্তমানে ঘুমধুম জলপাইতলী সীমান্ত পয়েন্টে অনুপ্রবেশকারী অন্যান্য রোহিঙ্গাদের সাথে অবস্থান করছে। বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের পর তার একমাত্র দুশ্চিন্ত কোলের শিশুটিকে সে কিভাবে বাঁচিয়ে রাখবে ? মোহছেনার মত অসংখ্য নারীই এখন সীমান্তে বাসিন্দা হয়েছে।

রবিবার বিকালে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের জলপাইবনিয়া সীমান্ত পয়েন্টে বিজিবি’র পাহারায় জটলা বেঁধে বসে আছে শত শত রোহিঙ্গা নারী, পুরুষ ও শিশু। কুলছুমা বেগম (৩৫) জানান, তার বাড়ি মিয়ানমার আরকান রাজ্যের ঢেঁকিবনিয়া গ্রামে। ২ ছেলে ৩ মেয়ের মধ্যে এক ছেলেকে ধরে নিয়ে হত্যা করেছে সে দেশের সেনাবাহিনী। সে আর ফিরবে না। তাই তারা প্রাণের ভয়ে তিনিও বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছেন ।

ছবি আরা বেগম নামের আরেক নারী কান্না করতে করতে প্রতিবেদককে বলেন, ‘আমার স্বামীকে ধরে নিয়ে গিয়ে মিয়ানমারের সেনা বাহিনীর একটি দল হত্যা করেছে আমাকেও তারা পশুর মত কওে নির্যাতন করেছে। এ কারণে আমি বাংলাদেশে পালিয়ে এসে সীমান্তে আশ্রয় নিয়েছি। তাদের মত হাজারও মোহছেনা, কুলছুমা আর ছবি আরা বেগম এখন খুলা আকাশের নিচে রাত কাটাচ্ছে জলপাইবনিয়ার মত পুরো সীমান্ত জুড়ে।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

পোকখালীতে চিংড়ি ঘেরে ডাকাতির চেষ্টা, মালিককে কুপিয়ে জখম

মহেশখালীতে ৩দিন ব্যাপী কঠিন চীবর দানোৎসব শুরু

ইন্টারনেট সুবিধার আওতায় কক্সবাজার প্রেসক্লাব

আওয়ামীলীগ ভাওতাবাজিতে চ্যাম্পিয়ন : ড. কামাল

সত্য বলায় এসকে সিনহাকে জোর করে বিদেশ পাঠানো হয়েছে: মির্জা ফখরুল

সাতকানিয়ায় মাদকসহ আটক ২

কক্সবাজারে হোটেল থেকে বন্দী ঢাকার তরুণী উদ্ধার

৩০০ আসনে প্রার্থী চূড়ান্ত ইসলামী আন্দোলনের

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে খেলনা বেলুনের সিলিন্ডার বিস্ফোরণে আহত ৯

চকরিয়া আসছেন পুলিশের আইজি, উদ্বোধন করবেন থানার নতুন ভবন

না ফেরার দেশে গর্জনিয়ার জমিদার পরিবারের দুই মহিয়সী নারী

চকরিয়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু

চকরিয়ায় ৪০শতক জমিতে দরিদ্র কৃষকের ক্ষেতে দুবৃর্ত্তের তান্ডব

পিসফুল ইউনাইটেড ক্লাবের অগ্নিদগ্ধে মৃত রায়হানের স্বরণ সভা ও দোয়া মাহফিল 

১০ নম্বরি হলেও নির্বাচন বয়কট করবো না : ড. কামাল

প্রকৃত নেতা মাত্রই পল্টিবাজ : ইমরান খান

ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে অধিনায়ক সাকিব, ফিরেছেন সৌম্য

বিজয় ফুল তৈরী প্রতিযোগিতায় চট্টগ্রাম বিভাগে প্রথম উখিয়ার নওশিন

চকরিয়ার রুবেল বাঁচতে চায়

দূর্নীতির দায়ে চট্টগ্রামের কারা ডিআইজি প্রিজন ও জেল সুপারের বদলী