প্রধান বিচারপতির সব অনুষ্ঠান বর্জনের ঘোষণা

ডেস্ক নিউজ :

চলমান বিতর্কে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার সব অনুষ্ঠান বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ। বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবনে এক প্রতিবাদ সমাবেশে এ ঘোষণা দেন সংগঠনের সদস্য সচিব ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এমপি।

তিনি বলেন, রায়ের মধ্যে অপ্রাসঙ্গিক ও অগণতান্ত্রিক বক্তব্য প্রত্যাহারে প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহাকে যে সময় দিয়েছিলাম, আজ তা শেষে হচ্ছে। সুপ্রিম কোর্টে ঈদের ছুটি শুরু হচ্ছে, খুলবে আগামী ৩ অক্টোবর। এ সময়ে আন্দোলনকে ফলাফলের দিকে নিতে হবে।

উপস্থিত আইনজীবীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তাপস বলেন, আমরা এসকে সিনহার সব কর্মকাণ্ড, কর্মসূচি অবশ্যই বর্জন করব, প্রত্যাখ্যান করব এবং পরিহার করব। কোনো আইনজীবী তার (প্রধান বিচারপতির) কোনো কর্মসূচিতে যাবেন না।

তিনি বলেন, প্রধান বিচারপতি তার বক্তব্য প্রত্যাহার করেননি। ফলে সামনের দিনে তার বিরুদ্ধে আমাদের আন্দোলন হবে এক দফা।

ক্ষমতাসীন দলের এই এমপি বলেন, প্রধান বিচারপতি তার শপথ ভঙ্গ করেছেন। তিনি এখন এই পদে আসীন থাকতে পারেন না। একজন বিচারপতি তার বিচারিক কার্যক্রম পরিচালনার সময় আরেকটি সাংবিধানিক পদের কাউকে অব্যাহতি করার যে ধৃষ্টতা দেখিয়েছেন, সেটা শপথ ভঙ্গ শুধু নয়, রাষ্ট্রদ্রোহীতার শামিল। আমরা আশা করছি, বিচারপতির কোড অব কনডাক্ট মেনে তিনি অচিরেই তার পদ থেকে পদত্যাগ করবেন।

তিনি আরও বলেন, আমরা দাবি করছি আপনি (প্রধান বিচারপতি) পদ ছেড়ে চলে যান। তা না হলে আগামী অক্টোবর থেকে আপনাকে সরাতে দেশব্যাপী দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

সমাবেশে আওয়ামী লীগের আইন সম্পাদক অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম বলেন, ‘এসকে সিনহা যে কর্মসূচিতে যাবেন, সেটি আমরা পরিহার করব। প্রধান বিচারপতি কথায় কথায় ভারতের উদাহরণ দেন। সেই ভারতের সুপ্রিম কোর্টের একটি রায় তাদের সংসদ বাতিল করে দিয়েছে। সংসদ মনে করলে তার রায় বাংলাদেশেও বাতিল হতে পারে।

তিনি বলেন, আমাদের প্রধান বিচারপতি মেলা ফাইড (অসৎ) কাজ করেছেন। রায়ের একটি জায়গায় বেশ আপত্তিকর কথা বলা হয়েছে। যে ‘রাষ্ট্রপতি’ কথাটা লাগানো নাকি আল্ট্রা ভায়ার্স হয়েছে। তাহলে রাষ্ট্রপতির উপরে কি প্রধান বিচারপতি বসতে চান? সেজন্যই প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আপনি (এসকে সিনহা) রাষ্ট্রপতির ক্ষমতাকেও কেড়ে নিতে চান?

রাষ্ট্রপতির বিষয় যেখানে ছিল না, সেখানে তাকে টেনে আনায় আপনার মেলা ফাইড আমাদের কাছে পরিষ্কার। আমরা দ্ব্যর্থহীনভাবে বলতে চাই- মানুষের ভাষা বুঝতে হবে। সারাদেশের মানুষের আবেগ বুঝতে হবে। সংবিধানে অপ্রাসঙ্গিক, অনাকাঙ্ক্ষিত, অনভিপ্রেত যেসব মন্তব্য রয়েছে তা বাতিল করতে হবে। বাতিল না হলে যে পরিণতি হবে, তার দায় আপনাকেই বহন করতে হবে।

cbn
কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রশ্নে অস্পষ্ট অবস্থান আসিয়ান মন্ত্রীদের

কক্সবাজারে ইয়াবা কারবারিদের আত্মসমর্পণ জানুয়ারির শেষে: মন্ত্রী

ঈদগাঁও রিপোর্টার্স সোসাইটির নতুন কমিটি

দলের করণীয় বললেন মওদুদ

সরকারের উন্নয়নের বার্তা ছড়িয়ে দিতে যোগ্য কান্ডারী কছির

উন্নয়ন ও জনসেবায় চকরিয়া-পেকুয়াবাসিকে আস্থার প্রতিদান দিব- জাফর আলম এমপি

বিক্ষুব্ধ বাংলাদেশি শ্রমিকদের আক্রমণের শিকার কুয়েত বাংলাদেশ দূতাবাসে

হুইল চেয়ারে মুহিত, পাশে নেই সুসময়ের বন্ধুরা

ভারত থেকে পালিয়ে আসা ১৩শ’ রোহিঙ্গা এখন বাংলাদেশে

উপজেলা নির্বাচনে ‘স্বতন্ত্রভাবে’ অংশ নেবে বিএনপি

ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ছাত্রলীগ নেতা হিমুর ব্যাপক গনসংযোগ

চট্টগ্রামে ৩টি হাইটেক পার্ক হচ্ছে

সংরক্ষিত আসনে এমপি চান মহেশখালীর মেয়ে প্রভাষক রুবি

ঈদগাঁওতে নৌকার চেয়ারম্যান মনোনয়ন প্রত্যাশী রাশেদের গণসংযোগ

অতিথি পাখির কলকাকলিতে মুখরিত বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার ১১

গণিত ছাড়া জীবনই অচল : জেলা প্রশাসক

উখিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১, চালক আটক

শহর কৃষক লীগের সভাপতির মামলায় ওয়ার্ড সভাপতি গ্রেফতার

২৭০০ ইউনিয়নে সংযোগ তৈরি, বিনামূল্যে ইন্টারনেট ৩ মাস