ক্রেনে ঝুলিয়ে গুলি চালিয়ে ধর্ষকের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর

পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে ইয়েমেনের রাজধানী সানায় জনসম্মুখে এক ধর্ষকের ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে। সোমবার রাজধানী সানার তাহরির স্কয়ারে ওই ধর্ষকের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়। এনিয়ে গত দুই মাসে পর পর দুই ধর্ষকের মৃত্যুদণ্ড জনসম্মুখে কার্যকর করলো ইয়েমেন।

বার্তা সংস্থা এএফপি বলছে, শিশুকন্যাকে ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে ২২ বছর বয়সী হুসেইন আল-সাকেত নামের এক ধর্ষককে জনতার সামনে ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে। তাহরির স্কয়ারে ফাঁসি কার্যকরের সময় রাজেহ ইজ্জেদিন নামে দেশটির একজন বিচারক উপস্থিত ছিলেন।

jagonews24

সাকেতের বিরুদ্ধে সাফা মুহাম্মদ তাহির আল-মুতারিকে (৫) অপহরণ, ধর্ষণ এবং হত্যার পর মাটিতে পুঁতে রাখার অভিযোগ ছিল। অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ার পরই তাকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের রায় দেয় হুথি বিদ্রোহীরা। কোনো কোনো সংবাদমাধ্যমে ধর্ষণের পর খুন হওয়া শিশুর বয়স পাঁচ বছর উল্লেখ করা হয়েছে।

সাকেতকে ফাঁসি দেয়ার ব্যাপারে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট এবং আদালতের সদস্যদের উপস্থিতিতে রাজনৈতিক পরিষদের সভাপতির অনুমোদন ছিল। এছাড়া বিশেষ অপরাধ আদালত এবং ভিকটিমের পরিবারের সম্মতি ছিল।

jagonews24

২০১৫ সালের ৯ নভেম্বর নির্জন এলাকা থেকে নাবালিকা সাফাকে অপহরণ করে ধর্ষণের পর তার মরদেহ পুঁতে রাখে সাকেত। ২০১৪ সাল থেকে হুথি বিদ্রোহীদের দখলে থাকা সানার তাহরির স্কয়ারে এতোদিন পর এসে তার ফাঁসি কার্যকর করা হয়।

সেখানে সাকেতের হাত-পা বেঁধে ক্রেনের সঙ্গে ঝুলিয়ে জনতার সামনেই একজন পুলিশ সদস্য তার শরীরে পাঁচটি গুলি চালিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করেন।

jagonews24

চলতি বছরের ৩১ জুলাই আরেকজনকে একই স্থানে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছিল। তার বিরুদ্ধে তিন বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ ছিল। দুই সপ্তাহের মধ্যে দেশটিতে ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে দু’জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হলো।

সূত্র : আল-আরাবিয়া, মিডল ইস্ট মনিটর।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠে আন্ত:ফুটবল টুর্ণামেন্ট উদ্বোধন

উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হোপ ফাউন্ডেশনের ৪০শয্যার হসপিটাল উদ্বোধন

পৌর কাউন্সিলরসহ ৪ মাদক কারবারির বাড়িতে অভিযান, নারীসহ দুই জনের সাজা

কক্সবাজার সিটি কলেজে পদার্থ বিজ্ঞান ও প্রাণ-রসায়ন অনার্স অধিভুক্তি লাভ

সাবেক এমপি মরহুম এড. খালেকুজ্জামান স্মরণে সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচী

কুতুবদিয়ায় অস্ত্রসহ আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ৩ সদস্য আটক

কক্সবাজারে ‘শেখ হাসিনার উন্নয়নের গল্প’ প্রচারে ছাত্রনেতা ইশতিয়াক

লামায় কারিতাস টেকনিক্যাল ট্রেনিং কোর্সের সনদ বিতরণ

গোলদিঘীর সৌন্দর্য্য বর্ধন, মাস্টার প্ল্যান নিয়ে ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের সাথে কউকের মতবিনিময়

টেকনাফের ইয়াবা রানী ইয়াসমিনসহ দুইজন আটক, মিললো বস্তাভর্তি ৭২ হাজার ইয়াবা

টেকনাফে ২০ হাজার ইয়াবাসহ তিনজন আটক

বালুখালী শরণার্থী ক্যাম্প থেকে রোহিঙ্গা বৃদ্ধ অপহরণ, মুক্তিপণ দাবী

যানজটমুক্ত করতে মাঠে অটোবাইক মালিক চালকরা

বিতর্কিত ডিজিটাল আইন সংবিধান বিরোধী

কাঁদতে কাঁদতে মাঠ ছাড়লেন রোনালদো

ঘামের গন্ধে কাছে আসে যে সাপ

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব ফের গ্রেফতার

সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্কবার্তা

এক নিয়োগ আবেদনে ৪০ কোটিরও বেশি আয়

আলোচনায় বসতে মোদিকে ইমরানের চিঠি