প্রেস বিজ্ঞপ্তি:
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার ও বিশ^বিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন অনুমোদিত কক্সবাজারের একমাত্র বেসরকারী বিশ^বিদ্যালয় কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হল জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদৎ দিবস ও জাতীয় শোক দিবস। সকাল ৮টায় বিশ^বিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর আব্দুল হামিদের নেতৃত্বে জাতীয় পতাকা অর্ধনিমিত করণ ও কালো পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে শোক দিবসের কার্যক্রম শুরু হয়। এরপর সকাল সাড়ে আটটায় শোক র‌্যালী নিয়ে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে স্থাপিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়।পরে সকাল দশটায় বিশ^বিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিশ^বিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর আব্দুল হামিদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ^বিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান সালাহ উদ্দিন আহমেদ সিআইপি।

আলোচনা সভায় বক্তার বলেন, বঙ্গবন্ধু না হলে আজ আমরা একটি স্বাধীন জাতি হিসেবে নিজেদের পরিচয় দিতে পারতাম না। কিন্তু দেশী, বিদেশী নানা ষড়যন্ত্রের কারণে আমরা অসময়ে এই মহান নেতাকে হারাই। বঙ্গবন্ধুর বড় অপরাধ ছিল তিনি বাঙ্গালী জাতিকে বিশ^াস করতেন। তিনি পা থেকে মাথা পর্যন্ত আগাগোড়াই ছিলেন বাঙালী।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সালাহ উদ্দিন আহমেদ সিআইপি বলেন, জাতির জনক স্বাধীনতা এনেছেন। এখন তাঁর মেয়ে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি জননেত্রী শেখ হাসিনার ধারাবাহিক উন্নয়নের ফসল।

তিনি আরো বলেন,বর্তমান প্রজন্মকে সঠিক ইতিহাস জানতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ^াসী হয়ে জাতি গঠনে ভুমিকা রাখতে হবে। আলোচনা সভা শেষে ১৫ আগস্টে শাহাদৎ বরণকারী সকল শহীদদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া মাহফিল মোনাজাত পরিচালনা করেন, বিশ^বিদ্যালয়ের ইসলামিক স্ট্যাডিস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক বেলাল নূর আজিজি। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, বিশ^বিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার নাজিম উদ্দিন সিদ্দিকী সহ বিশ^বিদ্যালয়ের সকল বিভাগের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •