স্বামীকে পরকিয়া প্রেমে বাধা দেয়ায় স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম

শফিউল আলম, চকরিয়া :
চকরিয়ায় স্বামীকে পরকিয়া প্রেমে বাধা দেওয়ায় গৃহবধু হামিদা বেগম (২৫) কে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে পাষন্ড স্বামী ও শাশুড়ী। উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের বৃন্দাবনখীল গ্রামে গত শুক্রবার সকাল ১১ টার দিকে ঘটেছে মর্মান্তিক এ ঘটনা। গৃহবধু হামিদা বেগম একই এলাকার আবু ছৈয়দের মেয়ে। তাকে উদ্ধার করে প্রথমে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জেলা সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়। সর্বশেষ গতকাল ১২ আগস্ট বিকেলে আশংখাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল প্রেরণ করা হয়েছে।
অভিযোগে ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, চকরিয়া উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের বৃন্দাবনখীল গ্রামের মৃত আনোয়ার হোসেনের ছেলে শামশুল আলম (৩০) এর সাথে ২০০৯ সালে বিয়ে হয় একই এলাকার আবু ছৈয়দের মেয়ে হামিদা বেগম (২৫) এর। সুন্দরভাবে চলে তাদের দু’জনের সংসার। সংসারে ৬ বছরের একটি পুত্র সন্তান ও ৪ বছরের একটি কন্যা রয়েছে। বিয়ের কয়েক বছরের মাথায় স্বামী শামশুল আলম মোবাইল ফোনের সর্ম্পকে চট্টগ্রামের একটি মেয়ের সাথে পরকিয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ে। স্বামীর পরকিয়ায় স্ত্রী বাধা প্রদান করলে আরো বেপরোয়া হয়ে উঠে স্বামী। শুরু হয় স্ত্রীর উপর নির্যাতনের স্ট্রীম রোলার। স্ত্রীর পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগের প্রেক্ষিতে বৃন্দাবনখীল গ্রামের পাড়ার সর্দার আমির হোসেনসহ স্থানীয়রা স্বামী পরিবারকে সামাজিক ভাবে কয়েকবার শালিসী বৈঠকেও বসান। সর্বশেষ গত ১১ আগস্ট সকাল ১১টার দিকে পাষন্ড স্বামী শামসুল আলম ও শাশুড়ী জগুনা বেগম নির্যাতিত অসহায় স্ত্রী হামিদা বেগমকে বেধম মারধর করে খালি ষ্টাম্পে স্বাক্ষার করতে বলে। হামিদা বেগম খালি স্ট্যামে স্বাক্ষর না করায় স্বামী ও শাশুড়ীসহ পরিবারের সদস্যরা ধারালো অস্ত্র উপর্যপুরি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এক পর্যায়ে মারা গেছে মনে করে বাড়ির পাশ^বর্তী জঙ্গলের ভেতরে ফেলে দেয়। এসময় স্থানীয় প্রতিবেশীরা গৃহবধু হামিদা বেগমকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতাল ভর্তি করা। বর্তমানে জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে রয়েছে বলে জানিয়েছেন গৃহবধু হামিদা বেগমের পিতার পরিবারের লোকজন। শাশুড়ী বাড়ি পরিবারের সদস্যরা চিকিৎসার নূন্যতম খোজ খবর নেওয়ার জন্যও আসেনি বলে জানান। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় হারবাং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলাম মিরান। তিনি জানিয়েছেন, আহত রোগিকে হাসপাতালে নিয়ে আগে চিকিৎসা দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

হোয়াইক্যং হাইওয়ে পুলিশের অভিযানে ৫হাজার ইয়াবা সহ আটক-২

এলাকার উন্নয়নই আমার স্বপ্ন -কাউন্সিলর সাহাব উদ্দিন সিকদার

শহীদ জাফর মাল্টিডিসিপ্লিনারী একাডেমিক ভবনের উদ্বোধন

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি কর্মীদের ন্যায় বিচার কোথায়?

আইনগত ভিত্তি পেলেই ইভিএম ব্যবহার : সিইসি

খাগড়াছড়িতে ব্রিজ ভেঙে ট্রাক নদীতে, নিখোঁজ ১

সাগরে বৈরি আবহাওয়ার কবলে পড়ে ফিশিং ট্রলার ডুবি

‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন মুক্তগণমাধ্যমের জন্য বড় বাধা হয়ে দাঁড়াবে’

ফাইভ-জি মোবাইল নেটওয়ার্কে বিকিরণের ঝুঁকি বেশি?

রাখাইনে এখনো থামেনি সেনা ও মগের বর্বরতা

জাতীয় ঐক্য নিয়ে অস্বস্তিতে আ’লীগ

প্রধানমন্ত্রীর জাতিসঙ্ঘ সফরে প্রাধান্য পাচ্ছে রোহিঙ্গা ইস্যু

সাকা চৌধুরীর কবরের ‘শহীদ’ লেখা নামফলক অপসারণ করলো ছাত্রলীগ

তিন মাসের জন্য প্রত্যাহার আনোয়ার চৌধুরী

মনোনয়ন দৌড়ে শতাধিক ব্যবসায়ী

ফখরুল-মোশাররফ-মওদুদ যাচ্ছেন ঐক্য প্রক্রিয়ার সমাবেশে

এবার ভারতের কাছেও শোচনীয় হার বাংলাদেশের

রোহিঙ্গা শিশুদের শিক্ষায় ২০০ কোটি টাকা অনুদান বিশ্বব্যাংকের

বিরোধীরা সব জায়গায় সমাবেশ করতে পারবে

চাকরি না পেয়ে সুইসাইড নোট লিখে খুবি ছাত্রের আত্মহত্যা