কক্সবাজারে ২০ হোটেলে বর্ষাকালীন অফার ঘোষণা

শাহেদ মিজান, সিবিএন:
পর্যটন নগরী কক্সবাজারের বিলাসবহুল ২০ হোটেল রুম ভাড়ায় বিশেষ অফার ঘোষণা করা হয়েছে। মাত্র ৩০০ থেকে ৫০০ টাকার মধ্যে ওই ২০ হোটেলের রুম পাওয়া যাবে। বর্ষাকালীন মৌসুমে এই অফার ছাড়া হয়েছে। আগামী ৩০ আগষ্ট পর্যন্ত এই অফার বলবৎ থাকবে। মঙ্গলবার কক্সবাজার প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দেয় কক্সবাজার হোটেল মোটেল ও গেস্টহাউজ মালিক সমিতি।

সংবাদ সম্মেলনে কক্সবাজার হোটেল মোটেল ও গেস্টহাউজ মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম সিকদার জানান, বর্ষা উপলক্ষ্যে পর্যটকদের বিশেষ অফার ছেড়েছে কক্সবাজার হোটেল মোটেল ও গেস্টহাউজ মালিক সমিতির আওতাভুক্ত ২০ হোটেল। এসব হোটেলের স্বাভাবিক ভাড়া এক হাজার টাকার উপরে। মূলত বর্ষাকালে পর্যটনের মন্দা মৌসুমেও পর্যটক আকৃষ্ট করতে এই অফার ঘোষণা করা হয়েছে। হোটেলগুলো হলো- তাহের ভবন এন্ড গেষ্ট হাউস, ডায়মন্ড প্যালেস গেস্ট হাউস, অ্যালবাট্রস রিসোর্ট, সী-আরাফাত রিসোর্ট, আর.এম গেষ্ট হাউস, সী-ল্যান্ড গেষ্ট হাউস, লেমিচ, রিসোর্ট, জিয়া গেষ্ট ইন, জিয়া গেষ্ট হাউস, কক্স ইন, সোহাগ গেষ্ট হাউস, বীচ হলিডে গেষ্ট হাউস, ওয়েল পার্ক রিসোর্ট, কক্স ভিউ রিসোর্ট, সিলিকন শাকিরা বে রিসোর্ট, ঊর্মি গেস হাউস, মাসকাট হলিডে রিসোর্ট, হোটেল বে- মেরিনা, গ্যালাক্সী রিসোর্ট লি: ও সী-কিং গেষ্ট হাউস।
আবুল কাশেম সিকদার আরো জানান বর্ষাকালীন অফারের আওতায় ২০ হোটেলের ১০টি করে মোট ২’শটি কক্ষ অফারের আওতায় থাকবে। ৩০০ থেকে ৫০০ টাকার এই অফারটি আগামী ৩০ আগষ্ট পর্যন্ত বলবৎ থাকবে।

সংবাদ সম্মেলনে কক্সবাজার হোটেল মোটেল ও গেস্টহাউজ মালিক সমিতি কর্তৃপক্ষ আরো জানান, বর্তমানে রিক্সা, সিএনজি ও টমটম চালক কর্তৃক পর্যটক হয়রানি বৃদ্ধি পেয়েছে। একই সাথে দালালদের দৌরাত্ম্যও বৃদ্ধি পেয়েছে। রিক্সা, সিএনজি, টমটম চালক ও দালালরা বাস টার্মিনাল থেকে পর্যটকদের প্রলোভনে ফেলে কমিশনের ভিত্তিতে নির্দিষ্ট কিছু হোটেলে তোলে দেয়। পর্যটকদের কাছ থেকে ওই হোটেলগুলো গলাকটা রুম ভাড়া আদায় করছে। এতে পর্যটকেরা আর্থিক ও শারীরিকভাবে হয়রানি হচ্ছে। যার ফলে পর্যটকেরা কক্সবাজার বিমুখও হচ্ছে।
অন্যদিকে অধিকাংশ হোটেল দালালের আশ্রয় না নেয়া হোটেলগুলো পর্যটক না পেয়ে আর্থিক দৈন্যদশায় পতিত হচ্ছে। এতে তারা কর্মচারীদের বেতন পর্যন্ত দিতে পারছে না। সর্বোপরি হোটেল ব্যবসায়ীদের শত শত কোটি টাকার অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। এর থেকে পরিত্রাণ পেতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ চেয়েছে হোটেল মোটেল ও গেস্টহাউজ মালিকেরা।

উক্ত সংবাদ সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হোটেল মোটেল ও গেস্টহাউজ মালিক সমিতির উপদেষ্টা ও কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহের চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র সাংবাদিক প্রিয়তোষ পাল পিন্টু ও এড. আয়াছুর রহমান। হোটেল মোটেল ও গেস্টহাউজ মালিক সমিতির পক্ষে উপস্থিত ছিলেন ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলহাজ্ব শফিকুর রহমান কোম্পানি। উপস্থাপনায় ছিলেন হোটেল কর্মকর্তা-কর্মচারী এসোসিয়েশনের সভাপতি কলিম উল্লাহ।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

খরুলিয়ায় ছেলের ছুরিকাঘাতে পিতার মৃত্যু

তফসিল ঘোষণার পর থেকেই নির্বাচনকালীন সরকার শুরু -মন্ত্রিপরিষদ সচিব

চট্টগ্রামে বিএনপির মনোনয়ন ফরম নিলেন ৫ জন

সংসদ নির্বাচনের মাঠে যেসব ফুটবলাররা

নির্বাচনের পরিবেশ অনুকূল নয়, কূটনীতিকদের জানালো বিএনপি

কক্সবাজার-৩ আসনে আওয়ামী লীগের ২৪ জনের মনোনয়ন ফরম জমা

মধ্য জানুয়ারিতে ভোট চায় ঐক্যফ্রন্ট

অা.লীগের মনোনয়ন নিলেন ব্যরিস্টার প্রশান্ত বডুয়া

জাতীয় পার্টি থেকে মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন হিরো আলম

প্রথম দিন বিএনপির ১৩২৬ মনোনয়ন ফরম বিক্রি

টেকনাফে র‌্যাব-৯ এর অভিযানে ৯ হাজার ৮০৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার, আটক ১

আচরণবিধি প্রতিপালনে মাঠ পর্যায়ে ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের নির্দেশ ইসির

‘জেলারের স্ত্রী ও শ্যালক এত টাকা কোথায় পেলেন’

রাজনৈতিক কারণে কাউকে গ্রেফতার না করার নির্দেশ

কর্মস্থলে যোগদান করলেন শিক্ষা প্রকৌশল নির্বাহী প্রকৌশলী খন্দকার নাজমুল ইসলাম

স্থানীয় ক্ষতিগ্রস্থ জনগোষ্টির আত্নসামাজিক উন্নয়নে কাজ শুরু করেছে সরকার

টোকেন এর নামে চাঁদাবাজি, শ্রমিকদের বিক্ষোভ

অবৈধ টমটমের বিরুদ্ধে অভিযানঃ মামলা, ১২ হাজার টাকা জরিমানা

পালংখালীতে নতুন করে রোহিঙ্গা ক্যাম্প স্থাপনা নিয়ে উত্তেজনা

উখিয়ায় ইজিপি প্রকল্পে অনিয়মের অভিযোগ