শহরে স্লুইস গেইটের মুখ দখল করে স্থাপনা নির্মাণ চলছে

বিশেষ প্রতিবেদক:

কক্সবাজার শহরের পেশকার পাড়াস্থ স্লুইস গেইটের মুখ দখল করে স্থাপনা নির্মাণ করছে এক প্রভাবশালী। উক্ত পাকা স্থাপনা নির্মাণ হলে পানি নিস্কাসনে বাধা গ্রস্থ হবে এবং শহরে জলাবদ্ধতা বাড়বে বলে মনে করেন সাধারণ মানুষ। এদিকে স্লইস গেইটের মুখ দখল করে পাকা স্থাপনা নির্মান করা ব্যাক্তির দাবী এই জমি সে ক্রয় সূত্রে মালিক তাই এখানে বাড়ি করার অধিকার তার আছে কেউ তাকে বাধা দিতে পারবে না।

পেশকার পাড়া এলাকার নাছির আলম, শামসুল আলম সহ অনেকে বলেন গত দুদিন ধরে পেশকার পাড়াস্থ বাকঁখালী নদীর পাড়ে ডে স্লুইস গেইট টি আছে তার মুখ দখল করে রাশেদ নামের এক ব্যাক্তি বাড়ি নির্মাণ করার নামে পুরু নালা দখল করে আরসিসি পিলার করে ভারী দেয়ার দিচ্ছে, আমরা প্রথমে বাধা দিলেও পরে তাতে কাজ না হওয়ার বিভিন্ন দপ্তরেও মৌখিক ভাবে অভিযোগ করি কিন্তু কোন কাজ হয় নি। আমাদের দাবী বর্তমান পৌর পরিষদ অনেক কষ্ট করে পৌর শহরকে কিছুটা জলাবদ্ধতা মুক্ত করেছে এছাড়া স্লুইস গেইট গুলোও আমরা অনেক চেস্টা করে দখল হওয়া থেকে বাচিঁয়েছি সেখানে বর্তমানে স্লুইস গেইটের মুখ দখল করে যদি পাকা স্থাপনা হয তাহলে বর্ষা মৌসনে যদি পানি যেতে পারে না হলে আবারো জলাবদ্ধতা হবে বিশেষ করে পেশকার পাড়া,টেকপাড়া, নুরপাড়া সহ পুরু এলাকা পানিতে তলিয়ে যাবে তাই সময় থাকতে এই পাকা স্থাপনা নির্মাণ কাজ বন্ধ করা দরকার।

এ ব্যপারে কক্সবাজার দোকান মালিক সমিতির সভাপতি আমিনুল ইসলাম বলেন বর্তমান স্লইস গেইট দিয়ে পানি নিস্কাশন হতে পারছে না বলে আমরা নিজেদের জমি দিয়ে পানি নদীদে পড়ার ব্যবস্থা করেছি এলাকার অনেক সম্মানি মানুষ বহু জমি নালার জন্য ছেড়ে দিয়েছে সেখানে বর্তমানে স্লুইস গেইটের মুখ দখল করে দেয়াল নির্মান করা খুবই দুঃখ জনক দ্রুত এটা অপসারণ করা দরকার। যদি এখানে প্রশাসন ব্যার্থ হয় তা হলে সাধারণ জনগন নিয়ে মানুষ প্রতিরোধ গড়ে তুলবে। কারন মানুষকে বাচঁতে হবে এর আগেও স্লুইস গেইটের জমিতে মানুষ বসতবাড়ি করেছে। সেখানে সরজমিনে গিয়ে দেখলেই সব বুঝা যাবে। কিছু মানুষের কারনে পুরু শহরের মানুষ পানিতে থাকে সেটা হতে দেওয়া হবে না।

এ ব্যপারে সরজমিনে গিয়ে দেয়াল নির্মান কারি জমির মালির মোঃ রাসেদ জানান আমি হাবিবুল্লাহ বহদ্দারের ছেলে ফারুক থেকে জমি কিনেছি সে সূত্রে আমি জমির মালিক আর আমার কেনা জমিতে বাড়ি করার অধিকার আমার আছে আর আমি কোন নালার জমি দখল করিনি।

এ ব্যপারে কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ আলী হোসেন বলেন বিষয়ে টি খোঁজ নিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা দেওয়া হবে।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

মধ্য জানুয়ারিতে ভোট চায় ঐক্যফ্রন্ট

অা.লীগের মনোনয়ন নিলেন ব্যরিস্টার প্রশান্ত বডুয়া

জাতীয় পার্টি থেকে মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন হিরো আলম

প্রথম দিন বিএনপির ১৩২৬ মনোনয়ন ফরম বিক্রি

টেকনাফে র‌্যাব-৯ এর অভিযানে ৯ হাজার ৮০৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার, আটক ১

আচরণবিধি প্রতিপালনে মাঠ পর্যায়ে ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের নির্দেশ ইসির

‘জেলারের স্ত্রী ও শ্যালক এত টাকা কোথায় পেলেন’

রাজনৈতিক কারণে কাউকে গ্রেফতার না করার নির্দেশ

কর্মস্থলে যোগদান করলেন শিক্ষা প্রকৌশল নির্বাহী প্রকৌশলী খন্দকার নাজমুল ইসলাম

স্থানীয় ক্ষতিগ্রস্থ জনগোষ্টির আত্নসামাজিক উন্নয়নে কাজ শুরু করেছে সরকার

টোকেন এর নামে চাঁদাবাজি, শ্রমিকদের বিক্ষোভ

অবৈধ টমটমের বিরুদ্ধে অভিযানঃ মামলা, ১২ হাজার টাকা জরিমানা

পালংখালীতে নতুন করে রোহিঙ্গা ক্যাম্প স্থাপনা নিয়ে উত্তেজনা

উখিয়ায় ইজিপি প্রকল্পে অনিয়মের অভিযোগ

চকরিয়ায় দুরন্ত পথিক মেধা বৃত্তি পরীক্ষা’১৮ এর ফলাফল ঘোষণা

চকরিয়ায় স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ সম্পন্ন

পেকুয়া উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠিত

নাইক্ষ্যংছড়িতে অবৈধ পাথর উত্তোলনের দায়ে ইউপি চেয়ারম্যানকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা 

শহরের যুবদল নেতা মোজাম্মেলের পিতার মৃত্যুতে লুৎফুর রহমান কাজলের শোক

লবণ মাঠ দখল চেষ্টা পেকুয়ায়, আহত ৩