কুতুবদিয়ায় জিআরও কর্তৃক গৃহবধু শ্লীলতাহানীর খবরে ব্যাপক তোলপাড়

পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের জের…

বিশেষ প্রতিনিধি,কুতুদিয়া :
কক্সবাজারের কুতুবদিয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের জেনারেল রেকর্ড অফিসার (জিআরও) এএসআই কাজি মোঃ ইউনুছ কর্তৃক আদালতে আসা এক বিচারপ্রার্থীকে শ্লীলতাহানীর খবরে এলাকায় ব্যাপক তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে বিচারপ্রার্থীসহ এলাকার সচেতন মহলের মাঝে চরম ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, শ্লীলতাহানীর বিষয়ে সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক প্রতিকার চেয়ে ৫ আগস্ট (শনিবার) কক্সবাজার পুলিশ সুপার (এসপি) বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে ভুক্তভোগী গৃহবধু হাবিবা বেগম।

এব্যপারে ভিকটিম হাবিবা বেগম জানান, গত ২২ জুলাই একটি মামলা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে উপজেলার লেমশীখালী ইউনিয়নের হাজারিয়া পাড়া থেকে কুতুবদিয়া আদালতে যান তিনি। এসময় তাকে একান্তে নিয়ে বিভিন্ন অযুহাতে ৫২০০ টাকা ঘুষ নেন জিআরও। এর পার তার স্বামীকে জামিনে ছাড়িয়ে দেবেন উল্লেখ করে আরো বিশ হাজার টাকা ঘুষ দাবী করেন জিআরও। টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে ভিকটিমকে কুপ্রস্তাব দেয় এবং একপর্যায়ে হাবিবাকে জড়িয়ে ধরে জোরপূর্বক ব্যারাকে নিয়ে যেতে চাইলে চিৎকার দেয় হাবিবা। তার চিৎকারে আদালতে থাকা কয়েকজন আইনজীবী ও আইনজীবী সহকারী এসে তাকে উদ্ধার করে।

ভিকটিম আরো জানান, বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য বিভিন্নভাবে চেষ্টা করেও ভিকটিম রাজি না থাকায় তাতে ব্যর্থ হন জিআরও। বিষয়টি কাউকে প্রকাশ না করতে জিআরও ইউনুছ বারবার চাপ প্রয়োগ করতে থাকলে গত ৫ আগস্ট বাধ্য হয়ে ভিকটিম (হাবিবা) কক্সবাজার পুলিশ সুপার (এসপি) বরাবরে স্ব-শরীরে হাজির হয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এদিকে বিষয়টি নিয়ে কুতুবদিয়া আদালত পাড়াসহ পুরো উপজেলায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। হাবিবার পরিবার অভিযোগ করেছে ঘটনাটি পত্রিকায় প্রকাশ হওয়ায় হাবিবা বেগমকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিচ্ছে জিআরও।

এ ব্যাপারে জানতে জিআরও ইউনুছের মুঠোফোনে বারবার যোগাযোগ করেও কল রিসিভ না করায় তার বক্তব্য সংযুক্ত করা সম্ভব হয়নি।

cbn
কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

সবচেয়ে ‘কিউট’ কুকুরের মৃত্যু

চট্টগ্রামে ইয়াবা নিয়ে রোহিঙ্গা দম্পতিসহ গ্রেপ্তার ৪

মাদকবিরোধী অভিযানের সঙ্গে সমাজে ফেরার সুযোগও দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

টেকনাফে গ্রেপ্তার মাদকের আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

এনজিওতে স্থানীয়দের ছাঁটাই উদ্বেগের

রাখাইনে আরসা’র হামলায় ৬ বিজিপি সদস্য আহত: মিয়ানমার

সিঙ্গাপুরে গেলেন এরশাদ

উখিয়ায় দু’টি প্রতিষ্ঠানের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন মন্ত্রীপরিষদ সচিব

লামায় আওয়ামী লীগের আরও ৩ নেতাকর্মীর দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ

কৃষি জমির মাটি যাচ্ছে ইটভাটায়

ভূমধ্যসাগরে পৃথক জাহাজডুবিতে নিহত ১৭০ অভিবাসী

স্থানীয় ছাঁটাইয়ের নেপথ্যে

এবার ছেলে সন্তানের মা হলেন টিউলিপ সিদ্দিক

অধ্যাপিকা এথিন রাখাইনকে সাংসদ হিসেবে দেখতে চায় কক্সবাজারবাসী

ভালো মানুষ হয়ে শিক্ষার্থীদের দেশ গঠনের কাজে অংশ নিতে হবে-অধ্যক্ষ ফজলুল করিম

চকরিয়া সরকারি কলেজে যৌন হয়রানি প্রতিরোধ কল্পে র‌্যালী ও আলোচনা সভা

কক্সবাজার ইনস্টিটিউট ও পাবলিক লাইব্রেরির দ্রুত সংস্কারের দাবীতে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন

নাইক্ষ্যংছড়িতে সাড়ে ৬ কোটি টাকা ব্যয়ে কলেজের দুই নতুন ভবনের কাজ শুরু

এমপি জাফরের নেতৃত্বে চকরিয়া-পেকুয়ার বিপুল নেতাকর্মীর বিজয় সমাবেশে যোগদান

উৎসবমুখর পরিবেশে ‘বাংলাদেশ প্রেসক্লাব ইউএই’র বর্ণিল অভিষেক