ডেস্ক নিউজ:
বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির পপুলেশন মুভমেন্ট কর্মসূচির হাইজিন কিড্স ত্রাণে উপকারভোগির কার্ড নিয়ে নৈরাজ্য করেছে বিডিআরসির কর্মকর্তা সেলিম আহমেদ। সিন্ডিকেটের খপ্পরে ফেলে উপকারভোগিদের ১২’শ কার্ড গায়েব করেছে এই দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা। এতে হাতিয়ে নিয়েছে লাখ লাখ টাকা।
জানা গেছে, হাইজিন কিড্স সামগ্রির ত্রাণ বিতরণের জন্য উখিয়ার কুতুপালং নিবন্ধিত ক্যাম্পের জন্য ৩০ কার্ড বরাদ্ধ দেওয়া হয়। ওই কার্ডের বিপরীতে সেখানে আরসিওয়াই কর্মী দিয়ে তালিকাও করা হয়। কিন্তু একদিন পর নিজস্ব লোক দিয়ে টাকার বিনিময়ে কার্ড গুলো অন্য রোহিঙ্গাদের কাছে বিতরণ করে। এতে অবৈধভাবে হাতিয়ে নেয় বিপুল পরিমাণ টাকা।
জানা গেছে, ওই কার্ড অনুযায়ী বিতরণের দিন আরসিওয়াই কর্মীরা কুতুপালং ক্যাম্পে যায়। কিন্তু সকালে তাদের কাছ থেকে ক্যাম্পের বাইরে স্বাক্ষর নিয়ে তাড়িয়ে দেয়। তাদেরকে ক্যাম্পের ভেতরে ঢুকতে দেয়া হয়নি। একইভাবে গত ৫ জুলাইও কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে একই ঘটনা ঘটান সেলিম আহমেদ।
সূত্রমতে, টেকনাফের বিভিন্ন জায়গায় ফুড প্যাকেজ বিতরণের দায়িত্ব পায় আরসিওয়াই কর্মীরা। গত ১৮ মে সেই  ফুড প্যাকেজ বিতরণ করার জন্য যায় আরসিওয়াই কর্মীরা। ওই সময় কৌশলে সন্ত্রাসী ভাড়া করে সেলিম আহমেদ তাদের উপর হামলা করে বিতরণ বানচালের চেষ্টা করে। এভাবেই ফুড প্যাকেজের ১২’শ কার্ড লুপাট করে সেলিম আহমেদ। এসব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন কক্সবাজার যুব রেডক্রিসেন্ট এর যুব প্রধান মোহাম্মদ হোসাইন মাসুম। তিনি বলেন, তাদেরকে বিতরণের জন্য নিয়েও গেলেও মূলত স্বাক্ষর নিয়ে তাড়িয়ে দেন সেলিম আহমেদ। পরে ওই সেলিম আহমেদ সেগুলো প্রকৃত উপকারভোগিদের দেয় না। এবিষয়ে বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট কক্সবাজার ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক আবুহেনা মোস্তফা কামালের কাছে অভিযোগ করা হয়েছে।
আবুহেনা মোস্তফা কামাল বলেন, যুব প্রধানের কাছ থেকে অভিযোগ পাওয়ার পর সেগুলো আবার সদর দপ্তরে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে।
— দৈনিক সকালেরর কক্সবাজার
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •