হেডম্যান লাবুর অত্যাচারে অসহায় সাধারণ মানুষ

বিশেষ প্রতিবেদক :

উখিয়া উপজেলার হলদিয়া পালং ইউনিয়নের রুমখাঁ হাতিরঘোনা এলাকার হেডম্যান হিসেবে পরিচিত আব্দুল গফুর লাবু’র অবৈধ রাজত্ব চলছে। তার অপকর্মে নানাভাবে হয়রানীর শিকার হচ্ছে অসংখ্য সাধারণ মানুষ। কেউ প্রতিবাদ করলে উল্টো হুমকি দেয় বিতর্কিত লাবু। শুধু তাই নয়, লাবুর নিকটাত্মীয় বাবুল কালাম (বাবুল) নিজ বসতভিটা তৈরী করার জন্য পাহাড় কাটছে দিনরাত। গত প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে সরকারি বনভূমির বিশাল পাহাড়গুলো কেটে সমান করছে পাহাড় খেকোরা। অন্যদিকে নুরুল হক নামে এদের এক সহযোগীও বসতভিটা তৈরি করার জন্য পাহাড় কেটে সমতল করছে প্রতিনিয়ত। অথচ, রহস্যজনক কারনে এসব পাহাড় কাটার দৃশ্য দেখেও না দেখার ভান করে আছে সংশ্লিষ্ট বিট কর্মকর্তা। স্থানীয়দের দাবী-ঘুষের টাকার বিনিময়ে লাবু এবং তার সিন্ডিকেট এসব অপকর্ম করে যাচ্ছে।

অভিযোগ আছে- কোনভাবেই আইনকে তোয়াক্কা না করে পরিবেশ বিধ্বংসী এসব কর্মকান্ড করে চলেছেন তারা। ফলে একদিকে সবুজ বনায়ন যেভাবে ধ্বংস হচ্ছে অন্যদিকে তেমনিভাবে পরিবেশেরও মারাত্বক বিপর্যয় ঘটছে হাতিরঘোনা এলাকায়। আর কেউ এসবের প্রতিবাদ করলে মিথ্যা মামলা অথবা বসতভিটা থেকে উচ্ছেদ করে পথে নামিয়ে দেবার হুমকি ধুমকিও দেয় লাবু এবং তার বাহিনীর সদস্যরা।

তার অন্যায় অত্যাচারের কাছে খুবই অসহায় স্থানীয় লোকজন। যদিও নিজের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগগুলো অস্বীকার করেছেন অভিযুক্ত আবদুল গফুর লাবু।

এমতাবস্থায় দ্রুত সময়ের মধ্যে তদন্ত সাপেক্ষে বিতর্কিত লাবুর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থাগ্রহনের দাবী জানিয়েছেন স্থানীয় ভুক্তভোগীরা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •