নুরুল আমিন হেলালী :

৪৬তম জাতীয় স্কুল ও মাদ্রাসা গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ২০১৭ ককসবাজার সদর উপজেলার ফাইনাল অনুষ্টিত হয়েছে। কক্সবাজার সরকারী বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাম মোহন সেন এর সভাপতিত্বে অনুষ্টিত খেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা চেয়াম্যান জি.এম.রহিম উল্লাহ, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সেলিম উদ্দিন, উত্তরজোন আহবায়ক ও ঈদগাহ আদর্শ শিক্ষা নিকেতনের প্রধান শিক্ষক এ কে এম আলমগীর। ৩০ জুলাই সকাল সাড়ে ১০ টায় বর্ণিত মাঠে উত্তরজোন চ্যাম্পিয়ন ঈদগাহ আদর্শ শিক্ষা নিকেতন বালিকা কাবাডিতে দক্ষিণজোন চ্যাম্পিয়ন বায়তুশরফ জব্বারিয়া একাডেমীকে ২৩-১৬ পয়েন্টের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে উপজেলা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরর অর্জন করে। ২য় খেলা সকাল সাড়ে ১১ টায় অনুষ্টিত বালক কাবাডিতেও ঈদগাহ আদর্শ শিক্ষা নিকেতন ১৮-৫ পয়েন্টের বিশাল ব্যবধানে বায়তুশরফ জব্বারিয়া একাডেমিকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়। ঈদগাহ আদর্শ শিক্ষা নিকেতনের কাবাডি খেলোয়াড়দের ক্রীড়া নৈপূন্য ও টেকনিকের কাছে টিকতে না পেরে বায়তুশরফের খেলোয়াড়রা ১০ মিনিটের খেলায় মাত্র ৩ মিনিটে অলআউট হয়ে পরাজয় মেনে নিয়ে মাঠ ছেড়ে চলে যায়। অপরদিকে দুপুর ২ টায় একই মাঠে উত্তরজোন চ্যাম্পিয়ন ঈদগাহ আদর্শ শিক্ষা নিকেতন ফুটবল বালিকাতে দক্ষিণজোন চ্যাম্পিয়ন আমেনা খাতুন বালিকা বিদ্যালয়কে ২-০ গোলে হারিয়ে বালিকা ফুটবলেও চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে। বিশেষ করে বিজয়ী দলের খেলোয়াড় বাকপ্রতিবন্ধি উম্মে সায়মা টিসার ক্রীড়া নৈপুন্য উপস্থিত অতিথি ও দর্শকদের নজর কাড়ে। বলতে গেলে প্রতিবন্ধি টিসার কাছে বিজিত দলের খেলোয়াড়রা একপ্রকার অসহায় হয়ে পড়ে। ২য় খেলা বিকেল সাড়ে ৩ টায় অনুষ্টিত ফুটবল বালকেও উত্তরজোন চ্যাম্পিয়ন ঈদগাহ আদর্শ শিক্ষা নিকেতন দক্ষিণজোন চ্যাম্পিয়ন পৌরপ্রিপারেটরী উচ্চ বিদ্যালয়কে ৩-২ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে। দেখা গেছে মফস্বলের প্রতিষ্টান ঈদগাহ আদর্শ শিক্ষা নিকেতন শহরে গিয়েও জাতীয় স্কুল-মাদ্রাসা ফুটবল বালক-বালিকা ও কাবাডি বালক-বালকাতে শহরে ক্রীড়ায় স্বনামধন্য প্রতিষ্টানগুলিকে হারিয়ে চারটি খেলাতে চ্যাম্পিয়ন হয়ে অতিথি ও দর্শকদের নজর কেড়েছে। খোলা শেষে অতিথি বৃন্ধ তাদের সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে উভয় দলের খেলোয়াড়দের ভাল খেলা উপহার দেয়ার জন্য ধন্যবাদ জানান এবং বিজয়ী ও বিজিত দলের মাঝে চ্যাম্পিয়ন ট্রপি ও রানার আপ ট্রপি তুলে দেন। এ সময় অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষক মো:ইব্রাহিম, আব্দুল হামিদ খাঁন, পরেশ কান্তি দে, বিপ্লব কান্তি দে, আব্দুল মজিদ খাঁন, নুরুল আমিন হেলালী, আবুল কাশেম, আবু বকর, ফরিদুল আলম, রবিউল হাসান ও সদরের অফিস সহকারী অসিম বাবু প্রমূখ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •