সিবিএন:
টেকনাফ উপজেলায় পৃথক অভিযান চালিয়ে সাড়ে তিন লক্ষাধিক ইয়াবাসহ মিয়ানমারের তিন নাগরিককে আটক করেছে বিজিবি।
বিজিবির টেকনাফ-২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল এসএম আরিফুল ইসলাম জানান, সোমবার ভোরের দিকে উপজেলার নেটংপাড়া ও হ্নীলা ইউনিয়নের মোচনী এলাকায় নাফ নদীর কাছে এ অভিযান চালানো হয়।
আটকরা হলেন – মিয়ানমারের আকিয়াব জেলার মংডু থানার নাইটরডিল এলাকার ইউনুছ আলীর ছেলে আবু ফয়াজ (৪০), মো. আব্দুর রশিদের ছেলে মোহাম্মদ শফিক (২০) ও একই থানার নোয়াপাড়া এলাকার ফয়জল আহম্মদের ছেলে মো. রফিক (২৫)।
বিজিবি কর্মকর্তা আরিফুল বলেন, মিয়ানমার থেকে ইয়াবার চালান আসার খবর পেয়ে তাদের একটি দল নেটংপাড়ায় অবস্থান নেয়। মিয়ানমারের দিক থেকে একটি ইঞ্জিনচালিত কাঠের নৌকায় তারা আসছিল।
বিজিবি সদস্যরা থামার সংকেত দিলে নৌকাটি নদীর কিনারায় রেখে কেওড়া বনের ভেতর পালানোর চেষ্টা করে তারা। কিন্তু ধাওয়া দিয়ে তিনজনকে ধরা হয়। তাদের শরীর তল্লাশি করে পাওয়া গেছে ২২ হাজার ৪৮৬ ইয়াবা।
প্রায় একই সময় হ্নীলা ইউনিয়নের মোচনী এলাকায় বিজিবি আরও একটি অভিযান চালায় বলে জানান বিজিবি কর্মকর্তা আরিফুল। তিনি বলেন, মিয়ানমার থেকে ইয়াবার চালান আসার খবরে বিজিবি মোচনী এলাকার ছুরিখালের পাশে ওত পাতে।
ইঞ্জিনচালিত কাঠের নৌকায় চার-পাঁচজন লোক আসছিল। থামার সংকেত দিলে তারা কিনারায় নৌকা ইয়াবার ব্যাগ নিয়ে কেওড়া বনে পালানোর চেষ্টা করে। তবে বিজিবির ধাওয়া খেয়ে তারা ব্যাগ ফেলে যায়। এখানে পাওয়া গেছে ৩ লাখ ৪০ হাজার ইয়াবা।
আটককৃতদের টেকনাফ থানায় হস্তান্তর করে মামলা দেওয়া হয়েছে বলে জানান বিজিবি কর্মকর্তা আরিফুল।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •