ইয়াবার বিরুদ্ধে গণ প্রতিরোধের আহবান

সংবাদদাতা:
সীমান্তবর্তী জেলা হিসেবে কক্সবাজার থেকে সারাদেশে ভয়াবহ মাদক ইয়াবা পাচার হচ্ছে। এ ইয়াবার বিরুদ্ধে গণ প্রতিরোধ গড়ে তোলতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা থেকে শুরু করে সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ে এ নিদের্শনা রয়েছে। তাই সকলকে ইয়াবা সহ সকল প্রকার মাদকের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়ার আহবান জানানো হয়।

কক্সবাজারের নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে পালিত “মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচারবিরোধী আর্ন্তজাতিক দিবস” এর অনুষ্ঠানে এ আহবান জানানো হয়।

কক্সবাজার জেলা প্রশাসন ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের যৌথ উদ্যোগে দিবস উপলক্ষ্যে সকালে এ র‌্যালী কক্সবাজার শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। ওখানে সচেতনতামুলক এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধন শেষ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে এক আলোচনা সভায় বক্তারা, কক্সবাজার থেকে ইয়াবা পাচার রোধে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধের অঙ্গিকার করেন।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রিট খালেদ মাহমুদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, কক্সবাজারের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক সাইফুল ইসলাম মজুমদার, বিশেষ অতিথি ছিলেন, বিজিবির কক্সবাজারস্থ ৩৪ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল মঞ্জুরুল হাসান খান, কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আফরুজুল হক টুটুল, সহকারী সিভিল সার্জন ডাক্তার মহিউদ্দিন মো. আলমগীর। বক্তব্য রাখেন, জেল সুপার বজরুল রশিদ, নোঙর এর পরিচালক দিদারুল আলম রাশেদ প্রমুখ। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কক্সবাজার কার্যালয়ের সহকারি পরিচালক সোমেন মন্ডল।

অনুষ্ঠান শেষে নির্ধারিত বিষয়ে আয়োজিত রচনা ও চিত্র অংক প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরষ্কার প্রদান করা হয়। রচনা প্রতিযোগিতায় ক গ্রুপে প্রধান হয়েছে কক্সবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র মো. আবু নুরশাদ, দ্বিতীয় হয়েছে একই প্রতিষ্টানের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র ঈমরানুর রশিদ রাফাত, তৃতীয় হয়েছে ইসলামিয়া মহিলা কামিল মাদ্রাসার নবম শ্রেণীর ছাত্রী জান্নাতুন নাঈমা। খ গ্রুপে প্রথম হয়েছে কক্সবাজার সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী নুসরাত জাহান লামিয়া, দ্বিতীয় হয়েছে কক্সবাজার হার্ভাড ইন্টারন্যাশনাল কলেজের ছাত্র কামাল হোছাইন। চিত্রাংক প্রতিযোগিতায় ক গ্রুপে প্রথম হয়েছে ঋদিমা দেবনাথ, দ্বিতীয় হয়েছে মৌনতা দে, তৃতীয় হয়েছে নাবিলা ইসলাম ইভা। খ গ্রুটে প্রথম হয়েছে তছলিমা আক্তার কলি, দ্বিতীয় হয়েছে প্রিয়ন্ত সিংহ, তৃতীয় হয়েছে প্রমি চৌধুরী। বিশেষ পুরষ্কার পেয়েছে রাইয়ান ইবনে জামান।

প্রসঙ্গত, প্রতি বছর ২৬ জুন এ দিবস পালন করা হলেও ওই দিন ঈদ হওয়ায় এক মাস পর ২৬ জুলাই দিবসটি পালনের সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

বুবলীর সঙ্গে শাকিবের বিয়ে, গুঞ্জন নাকি সত্যি?

সাবেক ডিসি ও ইউএনওসহ তিনজনের কারাদণ্ড

ইয়াবাসহ আইন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা আটক

চকরিয়া উগ্রবাদ ও সহিংসতা প্রতিরোধে দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ

চকরিয়ায় কথিত চিকিৎসকের ভূল চিকিৎসার শিকার বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী

রামুর গর্জনিয়ায় বজ্রপাতে একই পরিবারের নারীসহ আহত ৫

মালুমঘাটে প্রভাবশালীর সহযোগিতায় চলছে বাল্য বিবাহ!

চট্টগ্রাম কলেজে ছাত্রলীগের কমিটি নিয়ে দফায় দফায় সংঘর্ষ

নিরাপদ সড়ক চাই: নিজে বাঁচব, অপরকে বাঁচাব

বিএনপির ১৭৩ প্রার্থী প্রায় চূড়ান্ত

চবি উপাচার্যের সাথে মিশর আল আযহার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে সংবর্ধনা

বিমানবন্দর থেকে ইয়াবাসহ বরিশালের দুই তরুণী আটক

ইয়াবা পাচারের দায়ে টেকনাফের যুবকের ১০ বছর জেল

মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনে আ. লীগের মনোনয়ন পাচ্ছেন সিরাজুল মোস্তফা!

উলঙ্গ থাকার বিধান কী?

গ্যারেজে চাকরি করা প্রবাসী, কাগজ ব্যবসায় কোটিপতি

হঠাৎ স্যামসাং স্মার্টফোন বিস্ফোরণ! তারপর…

হাটহাজারীতে পিকআপ-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত ১

দেড় লাখ ইভিএম কেনার সিদ্ধান্ত