মো. নুরুল করিম আরমান, লামা:

কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বান্দরবানের লামা উপজেলায় জোসনা বেগম (২৯) নামের এক গৃহবধূকে কোদাল দিয়ে কুপিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার দিবাগত গভীর রাতে উপজেলার রুপসীপাড়া ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি মুরুংঝিরিতে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা অভিযুক্ত সাচি মং মার্মাকে (৪০) আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছেন। জোসনা বেগম মুরুংঝিরির বাসিন্দা রুহুল আমিনের স্ত্রী ও দুই সন্তানের মা।

স্থানীয় সূত্র জানায়, জোসনা বেগমের স্বামী রুহুল আমিন পেশায় একজন দিনমজুর। কিছুদিন আগে কাজের সন্ধানে চট্টগ্রাম যান তিনি। এ সুযোগক কাজে লাগিয়ে রুপসীপাড়া ইউনিয়নের অংহ্লাপাড়ার বাসিন্দা পাইচ মং মার্মার ছেলে সাচি মং মার্মা তাকে কুপ্রস্তাব দেন। এতে রাজি না হওয়ায় শনিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে সাচি মং মার্মা জোসনা বেগমের ঘরে ঢুকে কোদাল দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত করে সাচি মং মার্মা। পরে স্থানীয়রা আহতকে উদ্ধার করে রবিবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। সাচি মং মার্মা মুরুঝিরিতে একটি খামার ঘরে অবস্থান করে জুম চাষ করত।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার শফিউর রহমান মজুমদার বলেন, গৃহবধূ জোসনা বেগমের মাথা, চেহারাসহ সারা শরীরে আঘাতের দাগ রয়েছে।

এ বিষয়ে লামা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, এ ঘটনায় অভিযুক্ত সাচি মং মার্মকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মিমাংসার জন্য রুপসীপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ ছাচিংপ্রু মার্মা দায়িত্ব নিয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •