বদলাইস না বাবা !

প্রকাশ: ১৬ জুলাই, ২০১৭ ০৮:৫৯ , আপডেট: ১৬ জুলাই, ২০১৭ ০৯:১৭

পড়া যাবে: [rt_reading_time] মিনিটে


-আলমগীর মাহমুদ :
কক্সবাজারের বিভিন্ন এলাকার নামকরণ, কোন না,কোন,ঐতিহাসিক অধ্যায়কে কেন্দ্র করে। অধিকাংশ ক্ষেত্রে , এসব ইতিহাসের নেই লেখাজুখাও।কক্সবাজারের মানুষ পুরানা আমল থেকে এসব ইতিহাস ঐতিহ্য, সংরক্ষন,লালন,প্রয়োজনীয় কাজের অংশই ভাবতে পারেনি।
এলাকার কোন বিষয়, ভাষা, আইল্যা সাইর,অঁলা (বিয়েরগীত)চিলবদউল এর ছড়া হারিয়ে গেছে।এসব বিষয়ের এখন নিভু নিভু, প্রদীপ। এই সময়ও যদি এসব বিষয়ে কেউ লিখার কর্মে হাত দেয়,অনেকে এখনও কাজটাকে অসম্মানের,আ’কাজের কাজ ভাবে।
যার কারনে কক্সবাজারের ডাটা গুলো নিভুল পেতে আজ ভরসা রাখতে হয় কলকাতা,দিল্লীর,লাইব্রেরী, এবং লেখকদের উপর। আরো সাচ্ছা নিভুল চাইলে বৃটিশ মিউজিয়াম, আর্কাইভে। আরো খাটি সরিষার তৈলের মতো চাইলে,যে ঘানিতে আপনাকে নির্ভর করতে হবে, তা হচেছ,বার্মিজ, সংস্কৃত ভাষায় যারা লিখেছে, তাঁদের উপর।
সংস্কৃত এবং বার্মিজ ভাষায় লিখিত লেখকদের লেখায় অতীতেরও যে অতীত, তার বিশদ, নির্ভেজাল, নির্ভরযোগ্য তথ্য রয়ে আছে।মালা গাঁথার মালী নেই বলে,তাহ আজ দৃষ্টি সীমানার বাইরে।
তারপরও কক্সবাজারের বিভিন্ন এলাকার নামকরণ গুলো বিশ্লেষণে, হেঁটে চলা পথিকের প্রাণে বিরানীর স্মেল, যে আকুতির ঝড় বয়,সেই আবহ কালবৌশাখীর মতোই রয় বহমান । বানানশৈলীতে সেই স্মেলে আজ, ঈদগাঁও,ঈদগড়। রংমহল,শাহপরীর দ্বীপ।
#ঈদগাঁও #
#######
ঈদগাঁও, এই বানানটি ইদানীং অনেকে ১/ঈদগা,২/ঈদগাও,৩/ঈদগাহ(৩নং,জেলার বাইরের লোকজন অফিসের নথিতে,)এইভাবেই র্চ্চা করছে।
ইদানীং ‘ইদগাহ’ এই বানানেও অনেকে লিখে,বানানটা শুধরে লিখার তাগাদা দিলে, উত্তর করে,এড্ডিক্যা লেইলে কি বুঝা ন জাইবদেনে?২
Noun অর ভুল আছে বলি কইয়েদে ইবা কঁ ন? ৩
IDGAON
###########
এই ইংরেজী বানানটি কেউ ‘IDGAH’ ‘EIDGAH’ কেউ ‘EIDGAON ‘আবার ‘EIDGA’কেউ আবার ‘IDGAO’এই বানানেই লিখছে।
“IDGAON “,ঈদগাঁও” বানানটির ঐতিহাসিক পেক্ষাপট:-
###############
বর্তমান কক্সবাজার উপজেলার একটি জনবহুল ইউনিয়ন ঈদগাঁও। কক্সবাজার শহর থেকে বিশমাইল দুরত্বে এর অবস্থান। অতীতে এই ইউনিয়ন রামু থানার অধীনে ছিল।
মোঘল বাদশাহ শাহজাহানের পুত্রদের মধ্যে উত্তরাধিকারীর যোদ্ধ সংঘটিত হয়।শাহজাহান পুত্র শাহসুজা তখন বাংলার সুবেদার ,নিজেও সে গৃহ বিবাদে জড়িয়ে ভাই আওরঙ্গজেবের কাছে পরাজিত হন।শাহসুজা বাংলা ত্যাগ করে আরাকানে আশ্রয় চেয়েছিলেন,উদ্দেশ্য মক্কা গমন করবে এরপর পারস্যের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হবেন।
তখন ছিল আষাঢ় মাস।সাগরপথ ছিল উত্তাল,মোঘলেরা সাগর যাত্রায় অনভিজ্ঞ, শাহসুজা ও।এই কারনে সুজা আরকান রাজের সাথে যোগাযোগে চুক্তিমত হয়।
আরাকান রাজ প্রতিজ্ঞা করেন,আরাকানে আশ্রয় দিবে। শীতের সময়ে সাগর যখন শান্ত থাকবে নিরাপদে মক্কা যাবার ব্যবস্থা করবে।
আরাকানের পথে শাহসুজা :-
#################
যোদ্ধে সুজা পরাজিত হন( 5 january 1659 a.d.)
তিনি আরাকানের রাজধানী ম্রোহং উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেন।
ভাই আওরঙ্গজেবের কাছে পরাজিত হবার পর তিনি সিদ্ধান্ত নিলেন দেশ ছেড়ে পলায়ন করবেন ( 5 April 1660 a.d.)
তিনি ঢাকা ত্যাগ করেন ৬ ই রমজান(i.e. May 16, 1660 a.d.)
‘Dianga’ চট্টগ্রাম বন্দরের বিপরীতে পৌঁছেন( 3rd june 1660)
চট্টগ্রাম এর পর থেকে বিশাল বাহিনী পরিবার পরিজন সহ রাস্তা করে করে,রাস্তার পাশে বটবৃক্ষের চারা রোপন করতে করতে,বহর চলছেই, এলাকা ছিল জঙ্গলাকীর্ণ। এভাবে যাত্রাপথে তারা এসে পৌঁছায়,বর্তমান আলোচ্য এলাকায়।সেই সময় রমজান শেষ।
এই এলাকায় সম্রাট শাহসুজা বহরসহ ঈদের নামাজ আদায় করেন। এই এলাকায় ঈদের নামাজ আদায়ের ‘ঈদগাহ ‘হয় বলে এলাকাটি ‘ঈদগাহ’ নামে পরিচিতি পায়।তখন এলাকাটি ছিল চাটগাঁইয়া ভাষায় ‘আগুম মোরা’ জঙ্গলাকীর্ণ এলাকা ।
এই ‘ঈদগাহ’কালের বিবর্তনে কলমের খোঁচায়,খোঁচায় আমাদের আজকের “ঈদগাঁও “idgaon”তবে ইংরেজীর ক্ষেত্রে” EIDGAON “বানানটিই ইতিহাস,ঐতিহ্যের সাথে সমীচিন।
NOUN এর ভুল নেই বলে বলে, যদি ইতিহাস ঐতিহ্যের তোয়াক্কাই না করি… ‘হারিয়ে যাবে অতীত’।
তাইতো …বদলাইস না:বাবা!
‘বদলালে বদলে যাবে,
প্রজন্ম হারাবে অতীত ‘!
#################
পাদটীকা :—
১/
২/এইরকম লিখলে কি বুঝানো যাবে না, নাকি?
৩/NOUN এর ভুল আছে,এই কথা বলেছে কে?
#################
দোহাই:—–
1/বাংলাদেশ বার্মা সম্পর্ক:—রতন লাল চক্রবর্ত্তী(১৭৮৫—১৮২৪)
2/খান মোহাম্মদ সিদ্দিক,কক্সবাজারের প্রতিষ্টাতা হিরাম কক্স,পরিক্রম, আষাঢ় শ্রাবন ১৩৭০
3/Hunter,W.W.The imperialGazetteer of india,vol,vl,London,1836.
4/Bengal District Records,chittigong.vol.1,1760.—1773.Calcutta 1923.
5/বাদশা মিয়া চৌধুরীর অপ্রকাশিত ডায়েরী…সাবেক চেয়ারম্যান হলদিয়া পালং উখিয়া, কক্সবাজার।
6/Glimpses of cox’s bazar—-cox’s bazar Foundation
7/ চট্টগ্রামের সমাজ ও সংস্কৃতি—–আবদুল হক চৌধুরী
৮/জলপিড়ি২০০৩ স্মৃতিস্মারক চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়।
৯/চট্টগ্রামের ইতিকথা(আদিযুগ) ডক্ট্র আহমদ শরীফ
১০/চট্টলা—সম্পাদক,শচীন গুহ,কলিকাতা।
লেখক:—উখিয়া কলেজের সমাজবিজ্ঞানের শিক্ষক।
alamgir83cox@gmail.com

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •