এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া :

চকরিয়ায় পাওনা টাকার অজুহাতে চিহিৃত দুর্বৃত্তরা দোকানে ঢুকে প্রকাশ্যে দিবালোকে কুপিয়ে জখম করেছে বাবা-ছেলেকে। গতকাল শুক্রবার বিকাল আনুমানিক সাড়ে পাঁচটার দিকে কক্সবাজার-চট্রগ্রাম মহাসড়কের উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের উত্তর হারবাং ১নং গেইট এলাকায় ঘটেছে এ হামলার ঘটনা। গুরুতর আহত জয়নাল হোসেন (৬৫) ও তার ছেলে বেলাল উদ্দিনকে (২৯) স্থানীয়রা উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেছে। আহত বাবা-ছেলে হারবাং ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের গাইনাকাটা গ্রামের অধিবাসি।

হামলার ঘটনায় স্থানীয় হারবাং ইউনিয়নের গাইনাকাটা গ্রামের বাসিন্দা ও উপজেলার আলোচিত মাদক সম্রাট তোফায়েল এবং তাঁর সহযোগিরা নেতৃত্ব দেন বলে অভিযোগ করেছেন আহত বেলাল উদ্দিন।

চকরিয়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বেলাল উদ্দিন জানান, গতকাল বিকাল ৫টার দিকে কয়েকজন বন্ধুকে সাথে নিয়ে উত্তর হারবাং ১নং গেইট এলাকার একটি চায়ের দোকানে বসে গল্প করছিলেন। ওইসময় অভিযুক্ত মাদক সম্রাট তোফায়েল আহমদের ছোটভাই জুলফিকার আলী সেখানে এসে তাঁর ( বেলাল উদ্দিন) কাছে প্রাপ্ত পাওনা টাকা দাবি করে।

আহত বেলাল উদ্দিন অভিযোগ করেছেন, টাকা দাবির বিষয় নিয়ে তাঁর সাথে জুলফিকারের মধ্যে দোকানের ভেতরে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ধারালো কিরিচসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে তাঁর (বেলাল উদ্দিন) ওপর হামলা চালায় মাদক স¤্রাট তোফায়েল ও সহযোগি মহিউদ্দিন, মোরশেদ, জুনাইদ, বদরুসহ ৭-৮জন। এসময় কিছু বুঝে উঠার আগে তাঁরা (হামলাকারী দুর্বৃত্তরা) বেলালকে ধারালো কিরিচের আঘাতে কুপিয়ে জখম করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ছেলেকে কুপানোর ঘটনার দৃশ্য দেখে বাড়ি থেকে দৌঁড়ে ছেলেকে উদ্ধার করতে এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা বেলালের বাবা জয়নাল হোসেনকেও এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে। পরে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে হামলকারীরা পালিয়ে যায়।

স্থানীয় লোকজন অভিযোগ করেছেন, হামলায় নেতৃত্ব দেয়া তোফায়েল আহমদ চকরিয়া উপজেলার আলোচিক মাদক স¤্রাট। তার বিরুদ্ধে মাদক বিক্রি, পাচার, সরকারি বনাঞ্চল দখল ও বনভুমিতে অবৈধ স্থাপনা তৈরী করে প্লট বিক্রির অভিযোগে চকরিয়া, লোহাগাড়া ও লামা থানায় অন্তত ২৯টি মামলা রয়েছে। তারমধ্যে ১৩টি মাদক মামলা ও ১৬টি বন মামলাসহ একাধিক জিডি।

আহত বেলাল উদ্দিন জানিয়েছেন, তাদের উপর হামলার এ ঘটনায় অভিযুক্ত তোফায়েলসহ সহযোগিদের বিরুদ্ধে চকরিয়া থানায় মামলা দায়ের করার প্রক্রিয়া চলছে। #

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •