সাড়ে তিন হাজার বাংলাদেশির সেকেন্ড হোম মালয়েশিয়া

আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া:
মালয়েশিয়ায় সেকেন্ড হোম গড়েছেন প্রায় সাড়ে তিন হাজার বাংলাদেশি (৩৫৪৬ জন)। দেশটিতে ‘মাই সেকেন্ড হোম’ (এমএমটুএইচ) কর্মসূচির আওতায় এসব বাংলাদেশি সেখানে এ সুযোগ পেয়েছেন।

কুয়ালালামপুরে এমএম২এইচ নিয়ে জাতীয় কর্মশালায় দেশটির পর্যটন ও সংস্কৃতি বিষয়কমন্ত্রী নাজরি আজিজ এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, এই কর্মসূচির আওতায় ২০০২ সাল থেকে এ পর্যন্ত মালয়েশিয়ায় দ্বিতীয় বাড়ি বা সেকেন্ড হোম গড়ার অনুমতি পেয়েছেন ১২৬টি দেশের ৩৩ হাজার ৩০০ জন। এর মধ্যে বাংলাদেশিদের সংখ্যা ৩ হাজার ৫৪৬ জন।

তিনি আরও বলেন, এ সময় আবেদনকারীদের ভিসা নবায়ন, ব্যাংক অ্যাকাউন্ট চালু ও অন্যান্য সম্পদ ক্রয়ের কারণে মালয়েশিয়ার রাজস্ব আয় হয়েছে ২৯০ কোটি মালয়েশিয়ান রিঙ্গিত।

দেশটির কর্তৃপক্ষ জানায়, সর্বশেষ প্রকাশিত এই তালিকায় শীর্ষে রয়েছে চীন। দেশটির ৮ হাজার ৭১৪ নাগরিক মালয়েশিয়ায় সেকেন্ড হোম করেছেন। এর পরের অবস্থানে আছে জাপান (৪২২৫ জন)। তৃতীয় অবস্থানে বাংলাদেশ। এরপর দক্ষিণ কোরিয়া, যুক্তরাজ্য, আয়ারল্যান্ড ও সিঙ্গাপুরের অবস্থান।

মালয়েশিয়ার সেকেন্ড হোম প্রজেক্ট প্রথম চালু হয় ২০০২ সালে। প্রথমবার কোনো বাংলাদেশি এ জন্য আবেদন করেননি। বাংলাদেশিরা প্রথম আবেদন করেন ২০০৩ সালে। তখন থেকে এ পর্যন্ত মোট আবেদন করেছেন প্রায় ৮ হাজার ৩৫০ জন বাংলাদেশি। এর মধ্যে অনুমতি পেয়েছেন ৩ হাজার ৫৪৬ জন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ১০ বছরের নন-মালয়েশিয়ান ভিসার জন্য আবেদন করতে বয়স ৫০ বছরের কম হলে ব্যাক অ্যাকাউন্টে নগদ ৫ লাখ রিঙ্গিত জমা থাকতে হবে এবং মালয়েশিয়ার ব্যাংকে ফিক্সড ডিপোজিট করতে হয় ৩ লাখ রিঙ্গিত। তবে বয়স ৫০ এর বেশি বয়স হলে ব্যাংকে অ্যাকাউন্টে সাড়ে ৩ লাখ রিঙ্গিত এবং মালয়েশিয়ায় দেড় লাখ রিঙ্গিত ফিক্সড ডিপোজিট করতে হবে। তবে উভয় ক্ষেত্রে মাসিক আয় হতে হবে কমপক্ষে ১০ হাজার রিঙ্গিত।

সর্বশেষ সংবাদ

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটে যুক্ত হচ্ছে ডট বিডি, ডট বাংলা

মিয়ানমারের ৫০ সেনা সদস্যকে হত্যার দাবি আরাকান আর্মির

না ফেরার দেশে অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ

রোহিঙ্গাদের আর বসিয়ে বসিয়ে খাওয়ানো যাবে না : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পৃথিবীর ফুসফুসকে বাঁচাতে আকাশ থেকে পানি ঢালছে বলিভিয়া

রোহিঙ্গাদের পেছনে ২ বছরে বাংলাদেশের খরচ ৭২ হাজার কোটি টাকা!

কাশ্মীর: নামাজের পরে শ্রীনগরের সৌরা এলাকায় বিক্ষোভ, সংঘর্ষ

স্থানীয় সরকার সচিব হেলালুদ্দীনের মায়ের মৃত্যু: এমপি জাফর আলমের শোক

সাতকানিয়ায় আওয়ামীলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম

সন্ত্রাসী হামলায় আহত ছাত্রলীগ নেতা তামজিদের অবস্থার অবনতি, চমেকে প্রেরন

সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের মায়ের মৃত্যুতে মেয়র মুজিবের শোক

মুরালিয়া অংশের বেড়িবাঁধ : প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করলেন বড়ঘোপ চেয়ারম্যান ছোটন

ঈদগাঁও থেকে ৫০ লিটার চোলাইমদসহ ব্যবসায়ী আটক

৮দিনের সরকারী সফরে দক্ষিণ কোরিয়া ও থাইল্যান্ড যাচ্ছেন মেয়র মুজিবুর রহমান

পাগলির বিল-নাইক্ষ্যংছড়ি সড়ক কার্পেটিং উদ্ভোধন করলেন চেয়ারম্যান শাহ আলম

শিশুর অধিকার ও মায়ের ভালোবাসা

ভারুয়াখালী -পিএমখালী সংযোগ সেতু স্থাপনের দাবিতে হাজারো মানুষের মতবিনিময়

হেলালুদ্দিন আহমদের মায়ের ইন্তেকাল, শনিবার বাদে আছর জানাজা

শাহ সুফি নুরুল আমিন (রহঃ) চিশতিয়া হেফজখানা ও এতিমখানা পরিচালনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

ঈদগাঁও ভাদীতলা-শিয়াপাড়া যাতায়াত সড়কের মরণ দশা: জনদূর্ভোগ চরমে