সংবাদদাতা
কক্সবাজার সদরের ইসলামপুর নতুন অফিস বাজার এর উত্তর পার্শ্বে (ছাবের মৌলভীর গর্জন গাছ তলা) দীর্ঘদিন ধরে প্রতিষ্ঠিত মদ ও জুয়ার আসর অবশেষে গুড়িয়ে দিয়েছে স্থানীয় ক্ষুব্ধ জনতা।
শুক্রবার দুপুরে নতুন অফিস ও কৈলাশেরঘোনা এলাকার অর্ধশতাধিক জনতা দুঃসাহসিক এ কাজে অংশ নেয়। একাজকে সাধুবাদ জানিয়েছে সর্বস্তরের মানুষ।
এদিকে অসর গুড়িয়ে দেয়ার পরপরই ক্ষুব্ধ জুয়াড়ীরা নতুন বাজারে এসে গুলি বর্ষণের ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
স্থানীয়রা জানায়, ফুলছড়ি শিয়াপাড়ার ইমাম শরীফ প্রকাশ টুয়াইয়া, পেঠান, সাহাব উদ্দিনের নেতৃত্বে নিয়মিত জুয়া ও মদের বসনো হতো ওই দুইটি বাড়ীতে। বিক্রি হতো ইয়াবা। তাতে জড়িত ছিল স্থানীয় জুমনগর এলাকার চিহ্নিত ১০/১২ জন ওঠতি বয়সী যুবক। আনাগুনা ছিল বিভিন্ন পুরাতন মাদক ব্যবসায়ী ও জুয়াড়ীদের।
আসর দুইটি আরাকান সড়কের পাশে হওয়ায় খুব সহজেই চলতো মাদকদ্রব্যের বিকিকিনি। দূর দূরান্ত থেকে যেতো জুয়াড়ী ও মাদকসেবীরা। আসরে নেতৃত্বদানীরারা প্রভাবশালী হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে কথা বলতে সাহস করতো না কেউ।
অভিযোগ রয়েছে- যারা এই আসরের বিরুদ্ধে কথা বলেছে, তাদের উপর নেমে আসে নির্যাতন, হুমকী, মিথ্যা মামলা ও হয়রানী। স্থানীয় প্রশাসনও মাদক ব্যবসয়ীদের সাথে মাসিক মাসোহারা নিত। যে কারণে অক্ষত থেকে যায় ঘৃণিত এই আসর।
স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা হলে তারা জানায়, চিহ্নিত এই দুইটি ঘরে শুধু মদ ও জুয়ার আসর বসতোনা। এখানে অনেক তরুনী ধর্ষণের ঘটনাও ঘটেছে। এখান থেকে নিয়ন্ত্রিন হতো ডাকাতি, চুরি, অপহরণসহ নানা অপরাধকর্ম।
এদিকে দীর্ঘ দিন পরে হলেও চিহ্নিত মাদক ও জুয়ার আসর গুড়িয়ে দেয়ায় সকলকে সাধুবাদ জানিয়েছে এলাকাবাসী। অন্যায় কাজ বিরোধী এই অভিযান অব্যাহত রাখার দাবী সকলের।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •