৫৭ ধারা মানবাধিকারবিরোধী নয়: তথ্যমন্ত্রী

যুগান্তর :  তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৫৬ ও ৫৭ ধারা নিয়ে ভুল ব্যাখ্যা করা হচ্ছে। এই আইন সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক এটা কেউ প্রমাণ করতে পারেনি। এটা মানবাধিকারবিরোধী নয়।

বুধবার জাতীয় সংসদে পীর ফজলুর রহমানের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

শুধুমাত্র সাংবাদিকদের জন্য করা হয়নি উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, এটা সাধারণ দণ্ডবিধি। এ ধারাটি মানুষের নিরাপত্তার জন্য করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, নারীর নিরাপত্তার জন্য, শিশুদের নিরাপত্তার জন্য ধারাটি করা হয়েছে। এটা জামিন অযোগ্য অপরাধ। তবে উচ্চ আদালতে গেলে জামিন পাওয়া যায়।
এ ধারাটি তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে করা হয়নি বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

ইনু বলেন, ডিজিটাইলেজশনের ফলে গণমাধ্যমের বিশাল প্রসার ঘটেছে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির ডিজিটাল স্পেস তৈরি হয়েছে। এর ফলে অনেকে তথ্যপ্রযুক্তির অপব্যবহার করে সাম্প্রদায়িক উসকানি দেয়, চরিত্র হনন করে, রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকাণ্ড, ধর্মীয় বিভেদ সৃষ্টির মতো অপরাধ করে। তখনই কেবল এই আইনের প্রয়োগ হয়। এটা শুধু সাংবাদিকদের জন্য করা হয়েছে এ কথাটি ঠিক নয়।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, কেউ অনলাইনে বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুক, টুইটারে চরিত্র হনন করে পোস্ট দিলে এই আইনের আওতায় আসবে। এই আইন নিয়ে ভুল ব্যাখ্যা করা হচ্ছে। এই আইনে একটা পর্যায়ে জামিনযোগ্য। নিম্ন আদালতে জামিন পায় না, উচ্চ আদালতে গেলে জামিন পাওয়া যায়। এরকম ৩০ এর অধিক আইন আছে জামিন অযোগ্য। কিন্তু উচ্চ আদালতে গেলে বিচারকরা মনে করলে জামিন দিতে পারেন।

মন্ত্রী বলেন, দেশে ১ হাজার ৮শ’ এর অধিক অনলাইন পত্রিকা আছে। পত্রিকা, টেলিভিশন, সাপ্তাহিক, পাক্ষিকসহ দেশে কতগুলো গণমাধ্যম রয়েছে। প্রতিটি গণমাধ্যমে যদি ১০ জন করে সাংবাদিকও কাজ করেন তাহলে কত হাজার সাংবাদিক কাজ করছে তা অনুমেয়। এর মধ্যে খুবই নগণ্য দুই একজন ৫৭ ধারায় গ্রেফতার হয়েছেন।

তিনি বলেন, তাছাড়া ৫৭ ধারার মামলার প্রতিটি বিষয় আমরা দেখছি। এ নিয়ে তথ্য মন্ত্রণালয় হস্তক্ষেপ করে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ও হস্তক্ষেপ করে। আমাদের আইনজীবীরা দেখেন কোনো মিথ্যা অভিযোগে কেউ গ্রেফতার হলে তাকে যেন জামিন দেয়া হয়।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ৫৭ ধারা সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক কেউ প্রমাণ করতে পারেনি। তারপরেও তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক নতুন একটি আইনের খসড়া করা হয়েছে। আমাদের আইনমন্ত্রী দেখবেন ৫৭ ধারা বহাল রাখার দরকার আছে কিনা।

সর্বশেষ সংবাদ

কর্ণফুলী নদীতে পাথরবোঝাই ‘সী-ক্রাউন’ জাহাজ ডুবি

লামায় অন্ত:স্বত্তা নারীকে মারধর : শিক্ষিকাসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা

ঈদের বাজারে বিকিকিনি চলছে দেদারছে

ইসলামী আন্দোলনের কর্মীদের চিন্তার বিভ্রান্তি থেকে মুক্ত থাকতে হবে

প্রান্তিক কৃষকদের কাছ থেকে ২৬ টাকা দরে ধান কিনলেন মহেশখালীর ইউএনও

নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়নের উন্মুক্ত বাজেট

টানা ৩ বার পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতায় মমতা

ভারত সরকার গঠন করতে যাচ্ছে বিজেপি

বাজারমূল্যের চেয়ে তিনগুণ বেশি কারা ক্যান্টিনের পণ্য

চট্টগ্রামে অস্ত্রসহ ৪ ছিনতাইকারী গ্রেফতার

বান্দরবানে আ.লীগ নেতা অপহরণের ঘটনায় প্রতিবাদ সভা

‘পাহাড়ে অবৈধ চাঁদাবাজির মাধ্যমে অবৈধ অস্ত্র কিনছে সন্ত্রাসীরা’

চট্টগ্রামে অস্ত্রসহ ছিনতাইকারী আটক

ব্যক্তির দোষ কেন রাষ্ট্র বহন করবে?

সিএলসি’র উদ্যোগে ইফতার মাহফিল ও সার্টিফিকেট প্রদান

রাস্তায় পড়ে থাকা বৃদ্ধকে হাসপাতালে পাঠালেন এসআই

সাতকানিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় সাইকেল আরোহী নিহত

৩০ কেজি করে সাড়ে ৬ শতাধিক স্থানীয় বাসিন্দা পেল সেহেরী ও ইফতার সামগ্রী

সস্ত্রীক ওমরাহ পালনে গেলেন সিবিএন সম্পাদক

‘কারো ঘরে আগুন ধরানো বা নেভানোর মিশন নিয়ে আসিনি’