জিয়াবুল হক, টেকনাফ:

টেকনাফ বাহারছড়া ইউনিয়নের ১,২,৩ ওয়ার্ডের মহিলা ইউপি সদস্য মাতৃত্ব ভাতা দিতে উৎকোচ নিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ১২ জুলাই টেকনাফ সোনালী ব্যাংক থেকে টাকাগুলো উত্তোলনের সময় এই উৎকোচ নেয়া হয়।  অভিযোগ রয়েছে,  সুবিধাভোগী প্রতিজন থেকে ইউপি সদস্য আনোয়ারা বেগম ৫০০-১০০টাকা করে উৎকোচ নিয়েছেন।

গত ৬ মাস আগে মাতৃত্ব ভাতার ব্যাংক একাউন্ট করার নামে ১৮ জন অসহায় মহিলাদের কাছ থেকে ১৫ শত টাকাও নিয়ে ছিলেন বলেও ভুক্তভোগী মহিলারা জানান।

জানা গেছে, বুধবার দুপুরের দিকে টেকনাফ বাহারছড়া ইউনিয়নের ৮০ জন অসহায় মহিলাদেরকে টেকনাফ সোনালী ব্যাংকে মাতৃত্ব ভাতা প্রথম ধাপের ৩ হাজার টাকা করে দেওয়া হয়। এই ৩ হাজার টাকা থেকে ব্যাংকের নিচে উক্ত টাকা থেকে ৫০০-১০০০ টাকা করে নিয়েছেন বাহারছড়া ইউনিয়নের মহিলা ইউপি সদস্যরা বলে ভুক্তভোগীরা এই প্রতিবেদককে অভিযোগ করেন।

এ ব্যাপারে টেকনাফ বাহারছড়া ১,২,৩ ইউপি সদস্য আনোয়ার বেগম বলেন, আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ সম্পুর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। আমি এই ধরনের কোন টাকা কারো কাছ থেকে নেয়নি। কিন্তু মাঝে মধ্যে কয়েকশ টাকা নিতে হয় গাড়ী ভাড়ার জন্য।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •