সুস্থ হয়ে চট্টগ্রামে ফিরছেন হেফাজত আমির

সিবিএন ডেস্ক:
এক মাসের বেশি সময় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার পর ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে ফিরছেন হেফাজতে ইসলামের আমির শাহ আহমদ শফী।

তার ছোট ছেলে মওলানা মোহাম্মদ আনাছ সোমবার বলেন, “আব্বা এখন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। চিকিৎসকের পরামর্শে আজ তাকে হাটহাজারী নিয়ে যাব আমরা।”

৯৫ বছর বয়সী শফীকে বিকালে হেলিকপ্টারে করে ঢাকা থেকে নিয়ে যাওয়া হবে বলে হেফাজতের সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদী বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান।

শারীরিক দুর্বলতা ও শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা নিয়ে গত ১৮ মে থেকে চট্টগ্রাম নগরীর প্রবর্তক মোড়ের সিএসসিআর নামে একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন আহমদ শফী।

প্রায় ১৫ দিন সেখানে চিকিৎসার পর পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় গত ৬ জুন এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে নিয়ে আসা হয় ঢাকার আজগর আলী হাসপাতালে।

সেখানে মেডিসিন বিভাগের বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক সরওয়ারে আলম এবং নিউরোলজির অধ্যাপক নূরুল হুদার তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা নেন তিনি।

বর্তমানে হেফাজত আমির স্বাভাবিকভাবে চলাচল করতে পারছেন বলে তার ছেলে মোহাম্মদ আনাছ জানিয়েছেন।

আহমদ শফীকে গত ৬ জুন এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে ঢাকায় নেয়া হয়

চট্টগ্রামের হাটহাজারীর কওমি মাদ্রাসা দারুল উলুম মইনুল ইসলাম-এর মহাপরিচালক শফী তার ঘরানার মানুষের কাছে যেমন শ্রদ্ধেয়, তেমনি নারীবিরোধী নানা বক্তব্যের কারণে অন্য মহলে বিতর্কিত।
তার নেতৃত্বাধীন সংগঠন হেফাজতে ইসলাম চার বছর আগে ঢাকার মতিঝিলে সমাবেশ থেকে ব্যাপক তাণ্ডব চালিয়ে আলোচনায় আসে।

যুদ্ধাপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে গড়ে উঠা গণজাগরণ মঞ্চের আন্দোলনের বিরুদ্ধে মাঠে নামা সংগঠনটি ওই বছরের ৫ মে ‘নাস্তিক’ ব্লগারদের শাস্তি ও নারীনীতি বাতিলসহ ‘বিতর্কিত’ ১৩ দফা দাবিতে মতিঝিলে সমাবেশ ডাকে। সেই সমাবেশ থেকে আশপাশের এলাকাসহ ঢাকার বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক তাণ্ডব চালানো হয়, সংঘাতে নিহত হন বেশ কয়েকজন।

সুপ্রিম কোর্টের সামনে রোমান ‍যুগের ন্যায়বিচারের প্রতীক ‘লেডি জাস্টিস’ আদলে স্থাপিত ভাস্কর্য অপসারণের দাবিতে ফের মতিঝিলের মত সমাবেশের হুমকি দিয়ে সম্প্রতি আবার আলোচনায় আসে হেফাজত।

গত মাসে গণভবনে কওমী মাদ্রসাগুলার শীর্ষ প্রতিনিধি এবং শাহ আহমদ শফীর উপস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও সর্বোচ্চ আদালত প্রাঙ্গণ থেকে ভাস্কর্য সরানোর পক্ষে বলেন। ওই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী কওমি মাদ্রাসার সর্বোচ্চ সনদকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রির সমান ঘোষণা করেন।

সর্বশেষ সংবাদ

সৌদি আরব প্রবাসী পিএমখালীর ফেরদৌস সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত

‘মধ্যরাতের পার্লামেন্ট’ নিয়ে ব্যাখ্যা দিলেন বিএনপি এমপি হারুন

২০ থেকে ২২ জুলাইয়ের মধ্যে এইচএসসির ফল

৪ জুলাই থেকে হজ ফ্লাইট শুরু

‘এলাকার সমস্যা সমাধানে সবাইকে এক হতে হবে’

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার-৯

সিগারেটের মতোই ক্ষতিকর কোমল পানীয়

টেকনাফের ইয়াবা ভুট্টোর বাড়ি ফিরে পেতে হাইকোর্টে করা আবেদন খারিজ

মোবাইল চার্জে দিয়ে গেম খেলার সময় স্কুলছাত্রের মৃত্যু

অবশেষে বার্সায় ফিরছেন নেইমার

কউক’র মহাপরিকল্পনা ও উন্নয়ন ভাবনা শীর্ষক সেমিনার

ডিটারজেন্ট ও এন্টিবায়োটিক মিলেছে প্রাণ-আড়ং-ইগলু-মিল্কভিটাসহ ৭ দুধে

লামায় কিশোর-কিশোরী স্বাস্থ্য বিষয়ক ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা 

সরকারি কর্মকর্তাদের মাদক পরীক্ষা কার্যকর হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

কলাতলী পিকনিক স্পটে দুই শিক্ষার্থীকে ছুরিকাঘাত করে সর্বস্ব ছিনতাই

ভূমি অধিগ্রহণ ন্যায্য মূল্য না পাওয়ায় চট্টগ্রাম আদালতে আরবিট্রেশন মামলা

চট্টগ্রামে কাভার্ড ভ্যান চালকের মরদেহ উদ্ধার

কক্সবাজারে বিশেষ সাইরেন বাজিয়ে ‘স্বঘোষিত ভিআইপি’দের তৎপরতা বেড়েছে

কোস্ট গার্ড কর্তৃক ৬ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ

রামুতে বন্য হাতির আক্রমণে এক বৃদ্ধা নিহত