উখিয়ায় অর্ধলক্ষ মানুষ পানিবন্দি, পাহাড় ধসে নিহত ১

শফিক আজাদ, উখিয়া:

কয়েকদিনের প্রবল বর্ষনে উখিয়া উপজেলায় বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। পুরো উপজেলার অধিকাংশ এলাকার নিন্মাচল প্লাবিত হয়ে পানিবন্দি হয়ে পড়েছে অর্ধলক্ষ মানুষ। কক্সবাজার-টেকনাফ সড়ক যোগাযোগ সহ অধিকাংশ গ্রামের রাস্তাঘাট ঢুবে যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।  এলাকার মৎস্য ঘের,পানের বরজ, ক্ষেতখামার সহ গবাদিপশুরর ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। উখিয়া উপজেলা নির্বাহী মোহাম্মদ মাঈন উদ্দিন জানিয়েছেন উখিয়ার বন্যা পরিস্থিতির অবস্থা ভয়াবহ। প্রতিটি এলাকার পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। তিনি জানান,আমরা স্থানীয় চেয়ারম্যান মেম্বারদের সাথে যোগাযোগ করে এলাকার জনগনকে নিরাপদে সরিয়ে দেওয়ার কাজ চালিয়ে যাচ্ছি। সাইক্লোন সেন্টার ও স্কুল গুলোতে বন্যার আক্রান্ত জনগনকে সরিয়ে নেওয়াসহ প্রতিটি এলাকার ব্যাপারে আমরা সজাগ দৃষ্টি রাখছি। এলাকার জানমান রক্ষার ব্যাপারে যা যা করনীয় সবকিছু করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে উখিয়ার বন্যার ব্যাপারে জেলা প্রসাশক মহোদয়কে অবহিত করা হয়েছে।

জানা গেছে, গত কয়েকদিন থেমে থেমে বৃষ্টিপাত হলেও বুধবার ভোররাত থেকে উখিয়ায় বিরামহীন একনাগাড়ে বৃষ্টি হতে থাকে। এতে পুরো উপজেলার নিম্নাঞ্চল ব্যাপকভাবে প্লাবিত হয় ধ্বসে পড়ে এলাকার বেশকিছু মাটির ঘরবাড়ি।
পানিবন্দি হয়ে পড়ে রাজাপালং ইউনিয়নের হাজীর পাড়া,মৌলভীপাড়া,মালিভটা,ঘিলাতলী,ডিগিলিয়া,বড়ুয়া পাড়া,,পাতাবাড়ি, হিন্দুপাড়া,হরিনমারা,দুছড়ি,উত্তর পুকুরিয়া, সিকদারবিল,পালংখালী ইউনিয়েনের রহতের বিল, ধামনখালী, আঞুমান পাড়া, হলদিয়া পালং ইউনিয়েন চৌধুরী পাড়া,রুমখা সহ বেশ কয়েকটি গ্রাম,জালিয়াপালং ইউনিয়নের নিম্ননাঞ্চল,রত্নাপালং ইউনিয়নের ভালুকিয়া,হিমছড়ি, গয়ালমারা,চাকবৈটা সহ বেশ কয়েকটি গ্রাম।
তাছাড়া উপজেলার বিভিন্ন বাজারের শতাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ সহশ্রাধিক বাড়িঘর, স্কুল-মাদ্রাসা ও অফিস-আদালত ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। বষর্নের ফলে কক্সবাজার টেকনাফ সড়কের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। ভারী বর্ষণ অব্যহত থাকায় পাহাড় ধসের আশঙ্কায় সতর্ককতাজারী করেছে উপজেলা প্রশাসন। পাহাড়ের পাদদেশে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় বসবাসকারীদের নিরাপদ আশ্রয়ে সরে যেতে সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার পক্ষ থেকে মাইকিং করা হয়েছ। এদিকে পাশ্ববর্তী নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম সরওয়ার কামাল জানান, ঘুমধুুম ইউনিয়নের আজুখাইয়া ফকিরপাড়া এলাকায় পাহাড় ধ্বসে ছেমন খাতুন (৫৫) নামে বয়োবৃদ্ধ মহিলার মৃত্যু হয়েছে। সে ওই এলাকার আব্দুল মাজেদের স্ত্রী। তিনি আরো বলেন এছাড়াও তুমব্রু, কোনারপাড়া, নতুনপাড়া,বেতবুনিয়া সহ বেশ এলাকায় বর্ষনের ফলে প্লাবিত হয়েছে। নিকটবর্তী প্রাথমিক বিদ্যালয়  আশ্রয় কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহারের জন্য খোলা রাখা হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

সাংবাদিক হাফিজ পোয়াংগেরখিল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি নির্বাচিত

ফাঁসিয়াখালীতে নির্বাচনী সহিংসতা, সাংবাদিক বাপ্পির ওপর সন্ত্রাসী হামলা

ছেলেধরা গুজবের বিরুদ্ধে সরকারের কঠোর হুঁশিয়ারি

জি এম কাদেরকে চেয়ারম্যান মানেন না রওশন

কক্সবাজার জেলা প্রশাসন জনপ্রশাসন পুরস্কারের জন্য মনোনীত

কক্সবাজার শহরে ২ হাজার ইয়াবাসহ নারী-পুরুষ আটক

মাসুদ রানা ছবির বাজেট ৮৩ কোটি টাকা

হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ থেকে প্রিয়া সাহা বহিষ্কার

নিষিদ্ধ সময়ে মাছ ধরতে দেয়ার নামে জেলেদের থেকে টাকা আত্মসাৎ

দুদক পরিচালক এনামুল বাছির গ্রেফতার

কক্সবাজার পৌরসভার সাথে কাজ করতে চায় জাপানী সাহায্য সংস্থা ‘জাইকা’

কুতুবদিয়ার বড়খোপ উপ-নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর পক্ষে প্রকাশ্যে এমপি’র প্রচারণার অভিযোগ

ইন্দোনেশিয়ার ওয়ার্ল্ড ভিলেইজ লিডারশিপ ক্যাম্পের জন্য নির্বাচিত ওমর ফারুক

সদর উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিং এর পুর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন

একজন ডা. বুলবুল বেঁচে থাকে পথ পরিক্রমায়

উখিয়ায় সংবাদকর্মীর উপর হামলাকারী আতিক গ্রেফতার

বদর মোকাম জামে মসজিদকে দেশের মডেল মসজিদ হিসেবে গড়ে তোলা হবে

উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে নৌকায় ভোট দিন -মুজিবুর রহমান

ফাঁসিয়াখালী ইউপি উপ-নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী ফরিদকে বিএনপির সমর্থন

চকরিয়ায় ইয়েস’র উদ্যোগে তথ্য অধিকার বিষয়ক ক্যাম্পেইন