বিশেষ সংবাদদাতা:

প্রবাসীর স্ত্রী নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে নিরুদ্দেশ হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের লেদা লামার পাড়া এলাকায় ঘটনা এটি। ৩ সন্ত্রানের জননী হাসিনা বেগম ২৪ জুন সকাল ৬ টার দিকে একই ইউনিয়নের পানখালী গ্রামের পিতার বাড়ীতে ঈদ উপলক্ষে বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে শ্বশুরালয় থেকে বের হয়। পরে খবর নিয়ে দেখা যায়, সে পিতার বাড়ীতে না গিয়ে নির”দ্দেশ হয়ে যায। এ ব্যাপারে হাসিনার শ্বশুর জকির আহমদ টেকনাফ মডেল থানায় গত শুক্রবার বিকেলে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এতে উল্লেখ করা হয়, ১৫ বছর পূর্বে লেদা এলাকার ইমান হোসেনের সাথে বিয়ে হয় হাসিনা বেগমের। তাদের সংসারে জন্ম নেয় ৩ সন্তান। জীবনের তাগিদে মালয়েশিয়া পাড়ি দেয় স্বামী ইমান হোসেন। বেশ কিছুদিন স্ত্রী হাসিনা বেগমকেও মালয়েশিয়া নিয়ে যান। চার বছর পুর্বে হাসিনা দেশে চলে এসে শ্বশুর বাড়ীতে বসবাস শুর” করেন। কিন্তু গত ২৪ জুন ঈদ উপলক্ষে পিতার বাড়ীতে বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে পাশ্ববর্তী আত্মীয় স্বজনদের কাছ থেকে ৪ ভরি সহ মোট ৫ ভরি স্বর্ণ ও হাতে টাকা নগদ৫০ হাজার টাকা নিয়ে চম্পট দেয় হাসিনা। এরপর থেকে আর হদিস পাওয়া যাচ্ছে না। তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে বার বার রিং দেওয়া হলেও রিসিভ করে ও প্রান্ত থেকে কথা না বলায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয় নি। টেকনাফ মডেল থানার ওসি মাইনুদ্দিন খান জানিয়েছেন, বিষয়টি তদন্ত কওে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •