ছয় দেশের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের দেয়াল

অনলাইন ডেস্ক:

ছয়টি মুসলিম দেশের নাগরিক ও শরণার্থীদের জন্য প্রবেশ দরজা আঁটো করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এখন থেকে ইরান, লিবিয়া, সিরিয়া, সোমালিয়া, সুদান ও ইয়েমেনের নাগরিকদের মার্কিন মুলুকে প্রবেশে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হবে। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিতর্কিত ভ্রমণবিষয়ক নিষেধাজ্ঞার কারণে শরণার্থীরাও আটকে যাবেন এ দেয়ালে।

গতকাল বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় রাত আটটা থেকে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হয়েছে।

পরিবারের এই ঘনিষ্ঠ সদস্য ও আত্মীয়ের তালিকায় রয়েছেন মা-বাবা, স্বামী-স্ত্রী, হবু স্বামী-স্ত্রী, সন্তান, প্রাপ্তবয়স্ক ছেলেমেয়ে, জামাই, ছেলের বউ ও নাতি-নাতনি। দাদা-দাদি বা নানা-নানি, খালা-চাচি-মামি-ফুফু, চাচা-খালা-মামা-ফুফা, ভাতিজা এবং ভাগনেকে ঘনিষ্ঠ স্বজন হিসেবে বিবেচনা করা হবে না।

এ সপ্তাহের শুরুতে সুপ্রিম কোর্ট ছয়টি মুসলিম প্রধান দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা আংশিক কার্যকর করার আদেশ দেন। আদালতের আদেশে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রে ঘনিষ্ঠ স্বজন আছে প্রমাণ করতে পারলেই এসব দেশের নাগরিক ও শরণার্থীরা ভিসা নিতে পারবেন। প্রমাণ দিতে না পারলে পরবর্তী ৯০ দিনের জন্য নাগরিকেরা ও ১২০ দিনের জন্য শরণার্থীরা যুক্তরাষ্ট্রে ঢুকতে পারবেন না।

অক্টোবরে ট্রাম্পের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার অন্যান্য বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেওয়ার কথা রয়েছে সুপ্রিম কোর্টের।

তবে ছয় দেশের যেসব নাগরিক এর মধ্যে ভিসা পেয়েছেন, তাঁদের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য হবে না। এ ছাড়া মার্কিন নাগরিক, গ্রিন কার্ডধারী বৈধ বসবাসকারী, দ্বৈত নাগরিক, ইতিমধ্যে এসব দেশের যেসব শরণার্থী যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় পেয়েছেন তাঁদের ক্ষেত্রেও এই নিয়ম প্রযোজ্য নয়। সূত্র: সিএনএন ও বিবিসি অনলাইন

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

কক্সবাজার সৈকতের বালিয়াড়িতে দিবারাত্রির বীচ-কাবাডি শুরু

শাহাজাহান চৌধুরীর দলীয় মনোনয়নপত্র জমা

খাশোগি হত্যায় ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড চায় সৌদি আরব

সূর্য, তারা, গামছা ছেড়ে ধানের শীষে আস্থা

আবু বকরসহ মহেশখালীর ৩ নেতা ঢাকায় গ্রেফতার

মুখ খুললেন বিএনপির ‘সংস্কারপন্থি নেতা’ ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ সহিদুজ্জামান

কক্সবাজার প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহবুবর রহমান সম্পাদক আবু তাহের চৌধুরী

বালুখালির লাকড়ি বেপারি সরওয়ার রাতারাতি কোটিপতি!

রোহিঙ্গাদের বিক্ষোভে আটকে গেলো প্রত্যাবাসন

Our AIM Foundation Medical & Humanitarian Mission Trip

জামিন পেলেন শহিদুল আলম

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় মৃত্যু ঝুঁকিতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

কক্সবাজার-৩ আসনে আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী নাজনীন সরওয়ার কাবেরী

নয়া পল্টনে বিএনপির নাশকতা জাতির জন্য অশনি সংকেত: মেয়র নাছির

সুষ্ঠু নির্বাচন বনাম অসুস্থ মনোনয়ন!

নিজ দেশে ফিরতে রাজি না রোহিঙ্গারা, চলছে বিক্ষোভ

‘অবৈধ উপায়ে অর্জিত টাকায় ‘আয়কর’ দিয়ে রেহাই মিলবেনা’

অর্ন্তজালের জনপ্রিয়তা এবং নৈতিকতা

‘স্বেচ্ছায়’ ফিরলেই প্রত্যাবাসন: কমিশনার

সেনা মোতায়েন ভোটের দুই থেকে দশদিন আগে: ইসি সচিব