প্রেস বিজ্ঞপ্তি :
মহেশখালী উপজেলা শাপলাপুর মুকবেকী এলাকায় পারিবারিক তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংগঠিত বাকবিতন্ডাকে জামায়াতে ইসলামীর উপর দায় চাপিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে পরিবেশিত সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ এবং মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে আটককৃত নিরীহ জনসাধারণের মুক্তি দাবি করে বিবৃতি দিয়েছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী কক্সবাজার জেলা প্রচার সেক্রেটারি আবু বকর ছিদ্দিক। বিবৃতিতে তিনি বলেন, ঈদ জামায়াতে দুই পক্ষের মধ্যে পারিবারিক তুচ্ছ ঘটনা সংগঠিত হলে স্থানীয় চেয়ারম্যানের মধ্যস্থতায় ঈদগাঁহ মাঠেই তাৎক্ষণিক মিমাংসা হয়ে যায়। উক্ত ঘটনাকে পুঁজি করে সরকারদলীয় লোকজন নিরীহ জনসাধারণকে হয়রানি করার উদ্দেশ্যে পুলিশ প্রশাসনকে ভুল তথ্য দিয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ এনে ভয়ভীতি ও আতংক সৃষ্টি করে। এলাকার শান্তিপ্রিয় নিরীহ জনগণ ঈদ উদ্যাপন শেষে যখন রাত্রিবেলায় নিজ নিজ বাসায় অবস্থান করছিলেন তখন সরকারদলীয় লোকজন পুলিশসহ নিরীহ জনসাধারণের বাসা-বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে ৫জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। পরবতীতে জামায়াতে ইসলামীর ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন কারার হীন উদ্দেশ্যে পুলিশ কর্তৃক সরবরাহকৃত অস্ত্র দিয়ে মিথ্যা মামলা সাজিয়ে মিডিয়ার সামনে হাজির করে গ্রেফতার দেখায়। আমি পুলিশ প্রশাসনের এহেন পক্ষপাতদুষ্ট কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। অবিলম্বে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে আটককৃতদের মুক্তি দাবি করছি। পাশাপাশি বিভিন্ন গণমাধ্যমে পরিবেশিত মিথ্যা সংবাদের প্রতিবাদ করছি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •