এম.এ আজিজ রাসেল :

আন্তর্জাতিক কৃষ্ণ ভাবনামৃত সংঘ (ইস্কন) আয়োজিত ৯দিন ব্যাপী শ্রী শ্রী জগন্নাথদেবের রথযাত্রা উৎসব শুরু হয়েছে। ২৫ জুন শনিবার বিকালে উৎসবের শুভ উদ্বোধন করেন কক্সবাজার-৩ আসনের সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল। তিনি রথযাত্রায় আগত দর্শনার্থী ভক্তবৃন্দের শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করেন। ৯দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানের প্রথম দিনের অনুষ্ঠান সূচীর মধ্যে ছিল সকালে শ্রী চৈতন্যচরিতামৃত থেকে পাঠ, শ্রী জগন্নাথ, বলদেব ও শুভদ্রা মহারানীর রাজবেশে দর্শন, বিশ্বশান্তি ও মঙ্গল কামনায় অগ্নিষ্টোম বৈঞ্চব হোমযজ্ঞ, ভোগারতি কীর্তন, মহাপ্রসাদ বিতরন, ধর্মীয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও ধর্মীয় আলোচনা সভা। প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আলী হোসেন। তিনি বলেন, আমরা চাইলে এই দেশটাকে একটি সূখী সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করতে পারি। আমরা সকলে মিলে যদি ধর্ম ও ন্যায়ের পথে থেকে দেশের প্রতি দায়িত্ব পালন করি তাহলে এই দেশটিও স্বর্গে পরিণত হতে পারে। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার জনাব ড. একেএম. ইকবাল হোসেন। তিনি বলেন রথযাত্রা আমাদের সকলকে একত্রিত করে অসাম্প্রদায়িকতার শিক্ষা দেয়। রথযাত্রার মাধ্যমে আমরা সকলে একে অন্যকে ধর্ম পালনে উদ্বুদ্ধ করতে পারি। তাহলে সমাজের সকল বিশৃঙ্খলা আপনা আপনিই দূরীভুত হতে পারে। বিশেষ অতিথি হিসাবে আরও উপস্থিত ছিলেন হিন্দু ধর্মীয় কল্যান ট্রাষ্ট্রের ট্রাষ্টি শ্রীযুক্ত প্রিয়তোষ শর্মা চন্দন। উপস্থিত ছিলেন জেলা ট্রাফিক বিভাগের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শ্রীযুক্ত বাবুল চন্দ্র বনিক, মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রনজিত বড়–য়া, জেলা পুজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি রনজিত দাশ ও সাধারণ সম্পাদক বাবুল শর্মা। উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হেলাল উদ্দিন কবির ও ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শ্রীযুক্ত রাজ বিহারী দাশ, সদর উপজেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি দীপক দাশ ও শহর পুজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি ডা: চন্দন দাশ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কক্সবাজার ইস্কনের অধ্যক্ষ শ্রীমান রাধা গোবিন্দ দাস ব্রহ্মচারী মহোদয়। আগামী ৩ জুলাই উল্টো রথযাত্রার মাধ্যমে ৯দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষনা করা হবে। এই ৯দিন শ্রীজগন্নাথদেব তার ভ্রাতা বলরাম ও ভগ্নি শুভদ্রা মহারানীকেসহ মাসির বাড়ি খ্যাত ঘোনার পাড়াস্থ শংকর মঠে অবস্থান করবেন। প্রতিদিন পাঠ কীর্ত্তন ও মহাপ্রসাদ বিতরনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানকে সাফল্য মন্ডিত করে তোলা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •