ঈদ নিরাপত্তায় থাকবে ‘সম্মিলিত সিকিউরিটি’

ডেস্ক নিউজ:

ঈদের ছুটিতে ফাঁকা হতে শুরু করেছে রাজধানী ঢাকা। প্রায় ৫০ লাখেরও বেশি নগরবাসী ঢাকা ছেড়ে যাবেন। ফলে ঢাকায় ফাঁকা থাকছে অনেক বাসা-বাড়ি। এগুলোর নিরাপত্তায় বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। থানা পুলিশের পাশাপাশি স্থানীয় সিকিউরিটি গার্ডদের সঙ্গে সমন্বয় করে নেওয়া হয়েছে ঈদের ছুটির বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

ঢাকা মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মাসুদুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘ফাঁকা ঢাকার নিরাপত্তায় ডিএমপির ১৫ হাজারের বেশি পুলিশ সদস্য নিয়োজিত থাকবেন। পুলিশ সদস্যদের পাশাপাশি অন্যান্য বাহিনীর সদস্য ও স্থানীয় নিরাপত্তারক্ষীদের সমন্বয়ে সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে।’

ডিএমপি সূত্রে জানা গেছে, রমযান উপলক্ষে ঢাকায় তিন ভাগে নিরাপত্তা ব্যবস্থা ভাগ করা হয়েছে। ঈদ পূর্ববর্তী, ঈদকালীন ও ঈদ পরবর্তী। পুরো সময় জুড়ে কড়া নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে রাখা হবে ঢাকা। চেকপোস্ট ও টহল টিম বাড়ানো হয়েছে। থানা পুলিশের কর্মকর্তারা এগুলো নিবিড় পর্যবেক্ষণ করবেন। বাড়ি-ঘরের নিরাপত্তার জন্য পুলিশের টহল টিমের পাশাপাশি স্থানীয় সিকিউরিটি গার্ডদের সঙ্গে সমন্বয় করা হয়েছে। সিকিউরিটি গার্ডদের তদারকি করবেন টহল পুলিশের সদস্যরা।

ডিএমপির শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান জানান, ‘ঈদকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। প্রচুর সংখ্যক পুলিশ সদস্য নিরাপত্তায় নিয়োজিত রয়েছেন। বাড়ি-ঘরের নিরাপত্তা বাড়াতে টহল টিম বৃদ্ধি করা হয়েছে। যেকোনও ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে পুলিশ।’

এয়ারপোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূরে আজম মিয়া বলেন, ‘ফাঁকা ঢাকার বাড়ি-ঘরের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে থানা পুলিশের সঙ্গে স্থানীয় সিকিউরিটি গার্ডদের সমন্বয় করা হয়েছে। তাদের নিয়মিত তদারকিতে রাখা হবে।’

ঢাকা ছেড়ে ঘরমুখী মানুষদের তাড়াহুড়া করে বাড়ি না ছাড়ার পরামর্শ দিয়ে ডিএমপি’র উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মো. মাসুদুর রহমান বলেন, ‘বাড়ি ছাড়ার আগে নিজেরাই ভালভাবে নিজেদের বাড়ির নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করে যেতে হবে। তালা লাগানো হয়েছে কিনা, দরজা জানালা খোলা আছে কিনা এগুলো খুব ভালো করে খেয়াল করতে হবে। প্রতিবেশীরা কেউ যদি ঢাকায় থাকে তাহলে তাদের বলে যাওয়া, যাতে বাসায় প্রতি নজর রাখে। আর যাত্রাপথে অপরিচিত কারও কাছ থেকে খাবার না খাওয়া। প্রয়োজনে যাত্রাপথে বাইরের খাবার এড়িয়ে চলা উচিত।’

নিরাপত্তার ব্যাপারে র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘আমরা এবার রমজানে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। ইনশাল্লাহ আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবণতি হবে না।’

এদিকে ঈদকে কেন্দ্র করে সারাদেশে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক এ কে এম শহীদুল হক।

আর ঈদ ও ঈদের জামাতকে কেন্দ্র করে কোনও ধরনের সন্ত্রাসী হামলার হুমকি নেই বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। একইসঙ্গে তিনি বলেন, ঈদের ছুটিতে রাজধানীর বাড়িগুলোতে পর্যান্ত নিরাপত্তা দেওয়া হবে। আমাদের ভ্রাম্যমাণ পুলিশ ও চেকপোস্টগুলো সতর্ক অবস্থানে থাকবে।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

জাতিসংঘের হস্তক্ষেপের কোনও অধিকার নেই: মিয়ানমার সেনাপ্রধান

বৃহস্পতিবার ঢাকায় বিএনপির সমাবেশ

দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করা কি শুধু ইসলামেই নিষেধ?

খুটাখালীর ব্যবসায়ী নুরুল ইসলামের ইন্তেকাল

যেভাবে ব্রাশ করলে দাঁতের ক্ষতি হয়

আমি সৌভাগ্যবান যে তোমাকে পেয়েছি : বিবাহবার্ষিকীতে মুশফিক

মালদ্বীপের বিতর্কিত নির্বাচনে বিরোধী নেতার জয়

ইমরান খানের স্পর্ধা আর মেধায় বিস্মিত মোদি

ফেসবুক লিডারশিপ প্রোগ্রামে নির্বাচিত হলেন বাংলাদেশের রাজীব আহমেদ

কঠিন প্রতিশোধের হুমকি ইরানের

তিন জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৩

জাতীয় ঐক্য নয়, জগাখিচুড়ি ঐক্য : কক্সবাজারে কাদের

যুক্তফ্রন্টের নামে দুর্নীতিবাজরা এক হয়েছে

পেকুয়ায় স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

আলীকদমে সংরক্ষিত বনাঞ্চল থেকে পাথর উত্তোলনের দায়ে ১১ আটক

সাংবাদিক আহমদ গিয়াসের শ্বশুর মাওলানা সিরাজুল্লাহ আর নেই

এসকে সিনহাকে চ্যালেঞ্জ বিচারকের

ম্যাচ সেরা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল চান ড. কামাল

দেশের হয়ে প্রথম ২৫০ মাশরাফির