সংবাদদাতা :

কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও দৈনিক দৈনন্দিন’র প্রধান সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম বলেছেন, পেকুয়া-চকরিয়া ছিল আ’লীগের দূর্গ। মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধিকার আন্দোলন ও সংগ্রামে পেকুয়ার সন্তানরা কক্সবাজার জেলাসহ বাংলাদেশের রাজনীতিতে অবদান রেখে গেছেন। আজ আওয়ামীলীগের সে ঐতিহ্য ও ঐক্য ম্লান হয়েছে। ঝিমিয়ে গেছে আ’লীগের রাজনীতি। নেতৃত্ব ও ঐক্যমত্যের প্রকট সংকট নিরসন না হলে আ’লীগের রাজনীতি ভবিষ্যত আরো অনিশ্চিত হবে। হারানো গৌরব ও ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে আমাদের কাজ করতে হবে। মনে রাখতে হবে, নৌকার বিজয়ের প্রথম শর্ত ঐক্যবদ্ধতা।

শুক্রবার পেকুয়ার মগনামায় সর্বসাধারণের জন্য আয়োজিত ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মুহরীপাড়া জাগরণ স্কুলে ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান মো. খায়রুল এনামের সভাপতিত্বে অনুষ্টিত ইফতার মাহফিল ও আলোচনা সভায় তিনি আরো বলেন, আমি আমার বাবা ও দাদার জন্মস্থানে এসেছি। আমার বাপ চাচারা এ অঞ্চলের খেটে খাওয়া মানুষের জন্য কাজ করেছেন। রাজনীতি করেছেন বঞ্চিত ও নিপিড়িত মানুষের পক্ষে। আ’লীগ শোষণ ও বঞ্চনার বিপক্ষে কথা বলেছে। মগনামা আ’লীগ অতীতে অনেক শক্তিশালী ছিল। এখন থেকে কাজ করলে অতীতের ন্যায় আ’লীগ শক্তিশালী ও সুশংগঠিত হবে।

একাদশ জাতীয় নির্বাচনকে উদ্দেশ্য করে রাশেদুল ইসলাম আরো বলেন, সামনের নির্বাচন অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং হবে। উন্নয়ন ও অগ্রগতির যে ধারা সুচিত হচ্ছে শেখ হাসিনাকে পুনর্বার ক্ষমতায় অধিষ্টিত না করলে দেশ গভীর সংকটে নিপতিত হবে। এখন থেকে প্রস্তুতি নিতে হবে নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে। দল কাকে মনোনয়ন দিচ্ছে সেটি ভাবভার বিষয় নয়। বিজয়ী করতে আ’লীগকে অবশ্যই শক্তিশালী ও সুসংগঠিত হতে হবে। আমি রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান এ অঞ্চলের মানুষের সাথে আমাদের নাড়ির সম্পর্ক। বাপ চাচার নেতৃত্বকে পুনর্জীবিত করতে আগে মগনামার মানুষকে সুসংগঠিত করতে হবে। আমি আপনাদের সুখে দুঃখের সাথী হওয়ার দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ হয়েছি। জুলুম নির্যাতনের বিপক্ষে বাপ চাচারা ছিলেন আমিও তাদের সন্তান হিসেবে আপনাদের কাছে থাকতে চাই।

ছাত্রনেতা সায়েদুর রহমানের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আ‘লীগ নেতা মো. নাজেম উদ্দিন, ডা. আব্দুল জলিল, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ন-সম্পাদক সাংবাদিক নাজিম উদ্দিন, সাংবাদিক জালাল উদ্দিন, ইউনিয়ন আ‘লীগের য্গ্নু সম্পাদক ওমর ফারুক বাবুল ও ইসমাঈল বিএসসি, এড. জামশেদ, ছাত্রলীগ নেতা শওকত, মগনামা ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি মনচুর আলম নানক, পারভেজ উদ্দিন নিশান।

উপস্থিত ছিলেন আ’লীগ নেতা সাংবাদিক মুহাম্মদ হাসেম, আ’লীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম, আবদুল খালেক, এচার মাঝি, রুহুল আমিন, মো. ইসমাঈল, বদিউল আলম, সরওয়ার কামাল, মো. সেলিম, আবু ছিদ্দীক বাদশা, ভেট্টু মেস্ত্রি, আবু মকসুদ, যুবলীগ নেতা রুকন উদ্দিন, শামসুল আলম, মো. ইসমাঈল, মাহমুদুল করিম, নুরুচ্ছাপা সওদাগরসহ ছাত্রলীগ, কৃষক লীগ ও অঙ্গসহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ সর্বস্তরের মগনামাবাসি।

  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •