ভারতের সেই বিচারপতি গ্রেপ্তার

নিউজ ডেস্ক:

প্রধান বিচারপতিকে কারাদণ্ড দেওয়ার পর আদালত অবনাননার জন্য শাস্তিপ্রাপ্ত ভারতের বিচারপতি চিন্নাস্বামী স্বামীনাথন কারনান গ্রেপ্তার হয়েছেন।

কলকাতা হাই কোর্টের এই বিচারককে মঙ্গলবার তামিলনাড়ু রাজ্যে গ্রেপ্তার করা হয় বলে ভারতের সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে।

গত ৯ মে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়ার পর থেকে পালিয়ে ছিলেন ৬২ বছর বয়সী কারনান। তিনি বাংলাদেশে পালিয়ে গেছেন বলেও গুঞ্জন ছড়িয়েছিল।

কারনানই ভারতের প্রথম বিচারপতি, দায়িত্ব পালনের সময় যার বিরুদ্ধে সাজার রায় হল।

পালিয়ে থাকা অবস্থায় সাজার রায়ের পর গত ১২ জুন অবসরে যান বিচারপতি কারনান।

তার আট দিনের মাথায় তামিলনাড়ুর কোইমবাটোরে গ্রেপ্তার হলেন তিনি। গ্রেপ্তারের পর তাকে রাজ্যে রাজধানী চেন্নাইয়ে নিয়ে যাওয়া হয় বলে টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়।

ভারতের প্রধান বিচারপতি জে এস খেহার আদালত অবমাননার দায়ে বিচারক কারনানকে দোষী সাব্যস্ত করে কারাদণ্ডের আদেশের সঙ্গে তাকে গ্রেপ্তারে কলকাতার পুলিশ প্রধানকে নির্দেশ দিয়েছিলেন।

চিন্নাস্বামী স্বামীনাথন কারনান চিন্নাস্বামী স্বামীনাথন কারনান
এরপর কলকাতা পুলিশ তাকে ধরতে চেন্নাই পর্যন্ত অভিযান চালালেও এতদিন সফল হয়নি। ধারণা করা হচ্ছে, কর্মরত একজন বিচারপতিকে গ্রেপ্তার এড়াতেই পুলিশ দেরি করেছে।

বিশ্বের সবচেয়ে বড় গণতান্ত্রিক দেশ ভারতের বিচার বিভাগে কারনানকে নিয়ে নজিরবিহীন এই জটিলতার শুরু চলতি বছরের প্রথম দিকে। ওই সময় মাদ্রাজ হাই কোর্টে ছিলেন বিচারপতি কারনান।

তিনি ভারতের ২০ জন ‘দুর্নীতিগ্রস্ত বিচারকের’ নাম উল্লেখ করে তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত দাবি করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে চিঠি পাঠান।

এ ঘটনার পর তাকে বদলি করে কলকাতা হাই কোর্টে পাঠিয়ে দেয় দেশটির সর্বোচ্চ আদালত। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে তিনি অভিযোগ করেন, দলিত শ্রেণির মানুষ হওয়ায় তাকে হয়রানি করা হচ্ছে।

এরপর কথার লড়াইয়ের মধ্যে ভারতের প্রধান বিচারপতি নেতৃত্বাধীন সুপ্রিম কোর্টের আট সদস্যের বেঞ্চ ১ মে বিচারপতি কারনানের মানসিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে দেখার নির্দেশ দিলে আরও ক্ষুব্ধ হন তিনি।

মানসিক সুস্থতা পরীক্ষার জন্য আসা চিকিৎসকদের ফিরিয়ে দিয়ে বিচারপতি কারনান নিজের বাড়িতে আদালত বসিয়ে প্রধান বিচারপতিসহ সুপ্রিম কোর্টের আট বিচারককে পাঁচ বছর করে ‘কারাদণ্ড’দেন।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

এলাকার উন্নয়নই আমার স্বপ্ন -কাউন্সিলর সাহাব উদ্দিন সিকদার

শহীদ জাফর মাল্টিডিসিপ্লিনারী একাডেমিক ভবনের উদ্বোধন

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি কর্মীদের ন্যায় বিচার কোথায়?

আইনগত ভিত্তি পেলেই ইভিএম ব্যবহার : সিইসি

খাগড়াছড়িতে ব্রিজ ভেঙে ট্রাক নদীতে, নিখোঁজ ১

সাগরে বৈরি আবহাওয়ার কবলে পড়ে ফিশিং ট্রলার ডুবি

‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন মুক্তগণমাধ্যমের জন্য বড় বাধা হয়ে দাঁড়াবে’

ফাইভ-জি মোবাইল নেটওয়ার্কে বিকিরণের ঝুঁকি বেশি?

রাখাইনে এখনো থামেনি সেনা ও মগের বর্বরতা

জাতীয় ঐক্য নিয়ে অস্বস্তিতে আ’লীগ

প্রধানমন্ত্রীর জাতিসঙ্ঘ সফরে প্রাধান্য পাচ্ছে রোহিঙ্গা ইস্যু

সাকা চৌধুরীর কবরের ‘শহীদ’ লেখা নামফলক অপসারণ করলো ছাত্রলীগ

তিন মাসের জন্য প্রত্যাহার আনোয়ার চৌধুরী

মনোনয়ন দৌড়ে শতাধিক ব্যবসায়ী

ফখরুল-মোশাররফ-মওদুদ যাচ্ছেন ঐক্য প্রক্রিয়ার সমাবেশে

এবার ভারতের কাছেও শোচনীয় হার বাংলাদেশের

রোহিঙ্গা শিশুদের শিক্ষায় ২০০ কোটি টাকা অনুদান বিশ্বব্যাংকের

বিরোধীরা সব জায়গায় সমাবেশ করতে পারবে

চাকরি না পেয়ে সুইসাইড নোট লিখে খুবি ছাত্রের আত্মহত্যা

নবাগত এসপি মাসুদ হোসেনের চকরিয়া থানা পরিদর্শন