নিজস্ব প্রতিবেদক

কক্সবাজার সদরের খুরুশকুলে দিনদুপুরে ছিনতাইয়ের ঘটনায় এক ছিনতাইকারীকে কারাগারে পাঠালো আদালত।

মঙ্গলবার (২০ জুন) কক্সবাজার সিনিয়র জুড়িসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট সিরাজুল ইসলামের আদালতে ছিনতাইয়ের মামলায় জামিন চাইতে গিয়ে তাকে কারাগারা পাঠানো হয়।

ধৃত যুবক খুরুশকুলের কাওয়ারপাড়া এলাকার নুরুল আলম বদ্দারের ছেলে শাহেদ উদ্দীন।

সূত্র জানায়, গত ১০ জুন সকালে সদরের খুরুশকুল ইউনিয়নের ডেইল পাড়া থেকে সাদ্দাম ও বোরহান নামে দুই ভাই ব্যবসার কাজে মোটরসাইকেল নিয়ে কক্সবাজার শহরে আসছিলেন। ওই সময় পথ গতিরোধ করে কাওয়ারপাড়া বাজারে তাদের মারধর করে তাদের ব্যবহৃত মোটরসাইকেল, দামী মোবাইল ও নগদ ৫০ হাজার টাকা কেড়ে নেয় স্থানীয় নুরুল আলম বদ্দার ও তার ছেলে পারভেজ, মামুন ও শাহেদ উদ্দীন। পরবর্তীতে একই ঘটনার সুত্র ধরে সাদ্দামের মালিকানাধীন একটি টমটমও ছিনতাই করে নিয়ে আসে তারা। এই ঘটনায় মো: সাদ্দাম বাদী হয়ে কক্সবাজার সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করে। এই বিচারাধীন মামলায় আদালতে জামিন চাইতে গিয়ে তাকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠিয়ে দেন আদালত।

এদিকে মামালার বাদী সাদ্দাম জানান, ‘গত ১০ জুন মোটর সাইকেল নিয়ে কক্সবাজার আসার পথে অহেতুক গাড়ি থামিয়ে আমার কাছে থাকা নগদ ৫০ হাজার টাকা, দামি মোবাইল ও মোটর সাইকেলটি কেড়ে নেয়।’ এই ঘটনায় আমি মামলা করার পর পুলিশ টমটম ও আমার মোটরসাইকেলটি আাসামীর বাড়ী থেকে উদ্ধার করে।

তিনি জানান, বর্তমানে ওই টমটম আর মোটরসাইকেল কক্সবাজার সদর থানার অধীনে রয়েছে। শাহেদ উদ্দীন আদালতের মাধ্যমে কারাগারে গেলেও এই মামলার বাকী তিন আসামী পলাতক রয়েছে।

এদিকে খুরুশকুলের স্থানীয় সূত্র দাবী করছে, নুরুল বদ্দারসহ তার তিন ছেলে মিলে এই ধরণের অনৈতিক কর্মকান্ডে জড়িয়ে পড়েছে।

মামলার বাদী কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের কাছে পলাতক তিন আসামীকে দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার দাবী জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •