মালয়েশিয়ায় জুলাই থেকে অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে তীব্র অভিযান

মাহবুবুর রহমান ফাহিম, মালয়েশিয়া থেকে :

মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসী আটকে পহেলা জুলাই থেকে তীব্র অভিযানের হুশিয়ারি দিয়েছে দেশটির অভিবাসন বিভাগ। মালয়েশিয়ায় বিদেশী শ্রমিক নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের নিয়োগকর্তাদের স্মরণ করিয়ে দেয়া হয়েছে যে, তাদের অবৈধ বিদেশী কর্মীদের ই-কার্ড প্রোগ্রামের নির্ধারিত সময় ৩০ জুনের মধ্যে নিবন্ধন করে নিতে৷তা না হলে, তাদেরকে কঠিন শাস্তির সম্মুখীন হতে হবে৷মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক মোস্তফার আলী বলেন, নির্ধারিত সময়ের পরও নিয়োগদাতাদের নিয়োগকৃত কমপক্ষে পাঁচ জন অবৈধ কর্মী পাওয়া গেলে নিয়োগকর্তাদের প্রত্যেক অবৈধ কর্মীর জন্য ১০ হাজার রিঙ্গিত করে জরিমানা করা হতে পারে এবং অবৈধ কর্মীদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে৷তিনি এ প্রসঙ্গে বলেন-
‘আমরা পূর্বে নির্দিষ্ট সময়সীমার (৩০ জুন) ক্ষেত্রে অনড় এবং এই সময়সীমা বাড়ানো হচ্ছে না৷ ১ জুলায় থেকে অবৈধ কর্মী রয়েছে এমন নিয়োগকর্তাদের বিরুদ্ধে তীব্র অভিযান পরিচালনা করবো৷বিনামূল্যে ই-কার্ড এর আওতায় নিবন্ধনের জন্য ছয় মাস সময় দেয়া হয়েছে, সাথে সচেতনতাও বৃদ্ধি করা হয়েছে৷তাই নিয়োগকর্তাদের আমাদের দোষারোপ করা উচিত হবে না যদি তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়।
মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত বৈধ কাগজপত্রহীন বা অবৈধ পথে যারা মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করেছে তাদের জন্যেই ই-কার্ড কর্মসূচী চালু হয়েছে চলতি বছরের ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে৷ বৃক্ষরোপন, কৃষি, ফ্যাক্টরি, নির্মাণ শিল্প ও সেবামূলক এই পাঁচটি খাতে বিদেশী শ্রমিকের সঙ্কট মোকাবেলার জন্যে ই-কার্ড প্রকল্প হাতে নেয় মালয়েশিয়া সরকার৷১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে ৩০ জুনের মধ্যে যে কোন সময় ইস্যুকৃত ই-কার্ডের মেয়াদ থাকবে পরের বছরের ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত৷পরবর্তী ভিসা নেয়ার জন্যে এই সময়ের মধ্যে কর্মীদের নিজ নিজ দূতাবাস থেকে পাসপোর্ট বানিয়ে নিতে বলা হয়েছে৷মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগের তথ্যমতে, ৭ জুন পর্যন্ত মোট ১০৪৫০৭ টি ই-কার্ড ইস্যু করা হয়েছে৷তবে অভিবাসন বিভাগের লক্ষ্য ছিলো ৪ থেকে ৬ লাখ অবৈধ বিদেশী অভিবাসী ই-কার্ড প্রকল্পে নিবন্ধন করবে৷

cbn

সর্বশেষ সংবাদ

বিশ্বের সর্বাধিক হতদরিদ্র মানুষের বাস ভারতে

সবচেয়ে ‘কিউট’ কুকুরের মৃত্যু

চট্টগ্রামে ইয়াবা নিয়ে রোহিঙ্গা দম্পতিসহ গ্রেপ্তার ৪

মাদকবিরোধী অভিযানের সঙ্গে সমাজে ফেরার সুযোগও দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

টেকনাফে গ্রেপ্তার মাদকের আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

এনজিওতে স্থানীয়দের ছাঁটাই উদ্বেগের

রাখাইনে আরসা’র হামলায় ৬ বিজিপি সদস্য আহত: মিয়ানমার

সিঙ্গাপুরে গেলেন এরশাদ

উখিয়ায় দু’টি প্রতিষ্ঠানের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন মন্ত্রীপরিষদ সচিব

লামায় আওয়ামী লীগের আরও ৩ নেতাকর্মীর দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ

কৃষি জমির মাটি যাচ্ছে ইটভাটায়

ভূমধ্যসাগরে পৃথক জাহাজডুবিতে নিহত ১৭০ অভিবাসী

স্থানীয় ছাঁটাইয়ের নেপথ্যে

এবার ছেলে সন্তানের মা হলেন টিউলিপ সিদ্দিক

অধ্যাপিকা এথিন রাখাইনকে সাংসদ হিসেবে দেখতে চায় কক্সবাজারবাসী

ভালো মানুষ হয়ে শিক্ষার্থীদের দেশ গঠনের কাজে অংশ নিতে হবে-অধ্যক্ষ ফজলুল করিম

চকরিয়া সরকারি কলেজে যৌন হয়রানি প্রতিরোধ কল্পে র‌্যালী ও আলোচনা সভা

কক্সবাজার ইনস্টিটিউট ও পাবলিক লাইব্রেরির দ্রুত সংস্কারের দাবীতে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন

নাইক্ষ্যংছড়িতে সাড়ে ৬ কোটি টাকা ব্যয়ে কলেজের দুই নতুন ভবনের কাজ শুরু

এমপি জাফরের নেতৃত্বে চকরিয়া-পেকুয়ার বিপুল নেতাকর্মীর বিজয় সমাবেশে যোগদান