কক্সবাজারে চার শতাধিক ঝুঁকিপূর্ণ বসতির তালিকা তৈরি

বলরাম দাশ অনুপম:

অবশেষে কক্সবাজারের পাহাড়ী এলাকায় ঝুঁকিপূর্ণ বসবাসকারীদের বিরুদ্ধে উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়েছে। সম্প্রতি রাঙ্গামাটি, চট্টগ্রাম, বান্দরবান ও কক্সবাজারসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় পাহাড় ধসে ব্যাপক প্রাণহানির পর নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। দফায় দফায় বৈঠক এবং ঝুঁকিপূর্ণ পাহাড়ী এলাকা পরিদর্শন করে পাহাড়ের পাদদেশে ঝুঁকিপূর্ণ ও অতি-ঝুঁকিপূর্ণ ভাবে বসবাস করা চার শতাধিক বসতির তালিকা তৈরি করা হয়। এই তালিকা ধরেই উচ্ছেদ অভিযান শুরু করে জেলা প্রশাসন। রবিবার জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এই উচ্ছেদ অভিযান শুরু করা হয়। শহরের বৈদ্যঘোনা এলাকায় দুপুর ২ টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইমরুল কায়েসের নেতৃত্বে এই উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়। অভিযানের প্রথম দিনে ঝুঁকিপূর্ণের তালিকায় থাকা ১০টি বসতি উচ্ছেদ ও বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া। অভিযানে জেলা প্রশাসনের পাশাপাশি কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, পরিবেশ অধিদপ্তর, ফায়ার সার্ভিসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ছাড়াও পুলিশ, র‌্যাব ও আনসারের কর্মকর্তারা অংশ নেন। জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইমরুল কায়েস বলেন-সম্প্রতি রাঙ্গামাটি, চট্টগ্রাম, বান্দরবান ও কক্সবাজারসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় পাহাড় ধসে ব্যাপক প্রাণহানির কারণে জেলার পাহাড়ের পাদদেশের ঝুঁকিপূর্ণ ও অতি-ঝুঁকিপূর্ণ চার শতাধিক বসতির তালিকা তৈরি করা হয়েছে। তালিকা অনুযায়ী রবিবার থেকে উচ্ছেদ অভিযান শুরু করা হয়। প্রথম দিনে ১০টি বসতি উচ্ছেদ করা হলেও পরবর্তীতে তালিকায় থাকা অন্যগুলো উচ্ছেদ করা হবে বলে জানান তিনি। এদিকে রবিবার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির মাসিক সভায় জেলা প্রশাসক মোঃ আলী হোসেন বলেন-জেলার বিভিন্ন এলাকার পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে অনেক জনবসতি। জেলা প্রশাসন কর্তৃক পৌরসভার ওয়ার্ড ভিত্তিক এবং উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদে গঠিত টিমের সদস্যরা সংশ্লিষ্ট পাহাড়গুলো পরিদর্শন করেছেন। প্রথমে পাহাড়ে অতি ঝুঁকিপূর্ণ বসবাসকারিদের বাড়ির বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা এবং সরিয়ে নেয়ার নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া পাহাড়ি ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা থেকে বসবাসকারিদের সরে যেতে মাইকিং ও সহকারি কমিশনার এবং নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটদের নেতৃত্বে পরিদর্শক টিমের পরিদর্শন অব্যাহত রাখবে এবং পাহাড়ি ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা থেকে বসবাস কারিদের নিরাপদস্থানে অপসারনে নিয়োজিত রাজনৈতিক, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিকসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান জেলা প্রশাসক।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

১০ নম্বরি হলেও নির্বাচন বয়কট করবো না : ড. কামাল

‘অপরাধের কারখানা’ হোটেল লেগুনা বীচে বন্দী ঢাকার তরুণী উদ্ধার, আটক ২

প্রকৃত নেতা মাত্রই পল্টিবাজ : ইমরান খান

ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে অধিনায়ক সাকিব, ফিরেছেন সৌম্য

বিজয় ফুল তৈরী প্রতিযোগিতায় চট্টগ্রাম বিভাগে প্রথম উখিয়ার নওশিন

চকরিয়ার রুবেল বাঁচতে চায়

দূর্নীতির দায়ে চট্টগ্রামের কারা ডিআইজি প্রিজন ও জেল সুপারের বদলী

মহেশখালী উন্নয়ন পরিষদের নির্বাচন সম্পন্ন

রোহিঙ্গা শিবিরে কলেরা টিকা ক্যাম্পেইন শুরু

শহর পরিচ্ছন্নতায় নামলেন কক্সবাজার পৌর মেয়র

‘বাবা লাগবে? সবুজ গোলাপি লাল সব আছে’

সংসদ নির্বাচনে কেন আসতে চাচ্ছে না বিদেশী পর্যবেক্ষকেরা?

জোট করা ছাড়া কি এবার জয় সম্ভব নয়?

বাংলাদেশের নির্বাচন : কেন কৌশল পাল্টাল ভারত?

কক্সবাজার সদর-রামু আসনে নৌকা পাচ্ছেন কে?

ভারতের রাজনীতিতে যেভাবে প্রভাব ফেলবে বাংলাদেশের নির্বাচন

চার পয়েন্টকে গুরুত্ব দিয়ে তৈরি হচ্ছে আ.লীগের ইশতেহার

মহেশখালীতে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার

দলের সিদ্ধান্ত কতটুকু মানবেন বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীরা?

মওলানা ভাসানীর ৪২তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ