ইমরান হোসাইন, পেকুয়া:

পেকুয়ায় মো. আরমান (২৪) নামের এক যুবকের কাছ থেকে নগদ টাকা ও দুটি মোবাইল ফোন লুঠে নিয়ে পুলিশে দিয়েছে বিএনপি নেতা ওয়াসিমের লোকজন।

রবিবার (১১জুন) দুপুর আড়াই টার দিকে টইটং বাজার এলাকায় এঘটনা ঘটে। আটক আরমান মগনামা ফুলতলা এলাকার মো. আইয়ুবের ছেলে।

আরমানের মা সাজেদা বেগম বলেন, মেয়ের জামাই রিদুয়ানকে দেয়ার জন্য পঞ্চাশ হাজার টাকা নিয়ে টইটং গেলে মগনামা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা শরাফত উল্লাহ ওয়াসিমের ভাড়াটে লোকজন তাকে আটক করে। এসময় ওই টাকা ও তার ব্যবহৃত দুটি মোবাইল সেট ছিনিয়ে নেয় তারা।

আরমানের চাচী ও মগনামা ইউপির ১,২ ও ৩নং ওয়ার্ডের নারী সদস্য হামিদা আক্তার বলেন, সম্প্রতি মগনামা ইউনিয়নের ফুলতলা বাজারে সন্ত্রাসীদের নির্বিচারে গুলিবর্ষণের ঘটনায় হামলাকারীদের পক্ষে দায়ের করা পাল্টা মামলার আসামী করা হয়েছিল আরমানকে। ওই সন্ত্রাসী বাহিনীর প্রধান ওয়াসিম আজ পরিকল্পিতভাবে আরমানকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

পেকুয়া থানার এসআই নাছির উদ্দিন বলেন, স্থানীয় জনতার আসামী আটকের খবর পেয়ে আমি পুলিশ ফোর্স নিয়ে টইটং বাজার থেকে আরমানকে আটক করে থানায় আনি। সে মগনামা ফুলতলায় গুলিবর্ষণ ঘটনায় একপক্ষের দায়েরকৃত মামলার ৫নং আসামী। আসামীকে আমার হেফাজতে নেয়ার আগে কিছু হয়েছে কিনা তা আমি জ্ঞাত নই।

আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে পেকুয়া থানার ওসি জহিরুল ইসলাম খান বলেন, জনতা আটক করে ওই আসামীকে পুলিশে সোপর্দ করেছে। আটককে আগামীকাল (সোমবার) আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •